আত্মীয়ের দুর্ব্যবহারে সম্পর্ক ছিন্ন করা কি জায়েয?

ঢাকা, ১৭ এপ্রিল, ২০১৯ | 2 0 1

আত্মীয়ের দুর্ব্যবহারে সম্পর্ক ছিন্ন করা কি জায়েয?

পরিবর্তন ডেস্ক ৩:১৭ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৩, ২০১৮

আত্মীয়ের দুর্ব্যবহারে সম্পর্ক ছিন্ন করা কি জায়েয?

অনেকেই মনে করেন, আত্মীয়-স্বজনরা তার সাথে দুর্ব্যবহার করলে তাদের সাথে আত্মীয়তার বন্ধন ছিন্ন করা জায়িয। মূলতঃ ব্যাপারটি এমন নয়। বরং আত্মীয়রা আপনার সাথে দুর্ব্যবহার করার পরও আপনি যদি তাদের সাথে ভালো ব্যবহার প্রদর্শন করেন, তখনই আপনি তাদের সাথে আত্মীয়তার বন্ধন রক্ষা করেছেন বলে প্রমাণিত হবে।

আব্দুল্লাহ ইবনে আমর ইবনে আস (রা.) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ (সা.) বলেন,

«لَيْسَ الْوَاصِلُ بِالْـمُكَافِئِ، وَلَكِنَّ الْوَاصِلَ الَّذِيْ إِذَا قُطِعَتْ رَحِمُهُ وَصَلَهَا»

“সে ব্যক্তি আত্মীয়তার বন্ধন রক্ষাকারী হিসেবে গণ্য হবে না যে কেউ তার সাথে আত্মীয়তার বন্ধন রক্ষা করলেই সে তার সাথে আত্মীয়তার বন্ধন রক্ষা করে। বরং আত্মীয়তার বন্ধন রক্ষাকারী সে ব্যক্তি যে কেউ তার সাথে আত্মীয়তার বন্ধন ছিন্ন করলেও সে তার সাথে আত্মীয়তার বন্ধন রক্ষা করে”। (বুখারী, হাদীস নং ৫৯৯১; আবু দাউদ, হাদীস নং ১৬৯৭; তিরমিযী, হাদীস নং ১৯০৮)

শত্রুতাভাবাপন্ন কোনো আত্মীয়-স্বজনের সঙ্গে সর্বদা ভালো ব্যবহার দেখালেই আপনি তখন তাদের ব্যাপারে সরাসরি আল্লাহ তাআলার সাহায্যপ্রাপ্ত হবেন। তখন তারা কখানোই একমাত্র আল্লাহ তাআলার ইচ্ছা ছাড়া আপনার এতটুকুও ক্ষতি করতে পারবে না।

এ ব্যাপারে হযরত আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত হাদীসে এসেছে, "একদা জনৈক ব্যক্তি রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম কে উদ্দেশ্য করে বলেন, হে আল্লাহর রাসূল! আমার এমন কিছু আত্মীয়-স্বজন রয়েছে যাদের সাথে আমি আত্মীয়তার বন্ধন রক্ষা করি; অথচ তারা আমার সাথে সম্পর্ক ছিন্ন করে। আমি তাদের সাথে ভালো ব্যবহার করি; অথচ তারা আমার সাথে দুর্ব্যবহার করে। আমি তাদের সাথে ধৈর্যের পরিচয় দেই; অথচ তারা আমার সাথে কঠোরতা দেখায়। অতএব, তাদের সাথে এমতাবস্থায় আমার করণীয় কী? তখন রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বললেন,

«لَئِنْ كُنْتَ كَمَا قُلْتَ فَكَأَنَّمَا تُسِفُّهُمُ الْمَلَّ، وَلاَ يَزَالُ مَعَكَ مِنَ اللهِ ظَهِيْرٌ عَلَيْهِمْ مَا دُمْتَ عَلَى ذَلِكَ»

“তুমি যদি সত্যি কথাই বলে থাকো তাহলে তুমি যেন তাদেরকে উত্তপ্ত ছাই খাইয়ে দিচ্ছো। আর তুমি যতদিন পর্যন্ত তাদের সাথে এমন ব্যবহার করতে থাকবে ততদিন আল্লাহ তাআলার পক্ষ থেকে তাদের ওপর তোমার জন্য একজন সাহায্যকারী নিযুক্ত থাকবে”। (সহীহ মুসলিম, হাদীস নং ২৫৫৮)

তাই, আমরা যেনো কোন আত্মীয়ের দূর্ব্যবহারকে অজুহাত বানিয়ে তার সঙ্গে সম্পর্কচ্ছিন্ন না করি৷ বরং যথাসম্ভব উদারতা প্রদর্শন করে তাদের সঙ্গে উত্তম আচরণ করে যেতে থাকি৷ রাব্বে কারীম সহায় হোন৷ আমাদের শেষ পরিণতি হোক অনন্ত কল্যাণের সাথে৷ আমীন৷

এমএফ/

 

হাদিসের জ্যোতি: আরও পড়ুন

আরও