পুলিশের ভুলে রাজনের কারাবাস, একমাস পর জামিন

ঢাকা, রবিবার, ৮ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

পুলিশের ভুলে রাজনের কারাবাস, একমাস পর জামিন

আদালত প্রতিবেদক ৮:৫৯ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১১, ২০১৯

পুলিশের ভুলে রাজনের কারাবাস, একমাস পর জামিন

পুলিশের ভুলে প্রায় একমাস কারাগারে থাকার পর জামিন পেয়েছেন কুমিল্লার মো. রাজন ভূঁইয়া নামে এক ব্যক্তি। একইসঙ্গে পরোয়ানা তামিলকারী কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া থানার এসআই আরশাদের বিরুদ্ধে পুলিশ আইন অনুযায়ী কেনো শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে না, কারণ দর্শাতে বলেছেন আদালত।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, একটি মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানায় থাকা আসামি মো. হাবিবুল্লাহ রাজন ছয় বছর ধরে পলাতক। মূলত তাকে ধরতে পারেনি পুলিশ, ভুলে অন্য রাজনকে গ্রেফতার করে।

বিষয়টি নজরে আসার পর সোমবার রাজন ভূঁইয়ার জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক আবু জাফর মো. কামরুজ্জামান। এমনকি তাকে মামলার দায় থেকে অব্যাহতিও দেন আদালত।

এছাড়া আগামী ৪ ডিসেম্বর এসআই আরশাদকে আদালতে হাজির হয়ে এ বিষয়ে ব্যাখ্যা দেয়ার নির্দেশ দেন আদালত।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০১২ সালের ৯ মে ২৮ পিস নেশা জাতীয় ইনজেকশনসহ পুলিশের হাতে আটক হন হাবিবুল্লাহ রাজন। এদিনই তার বিরুদ্ধে রাজধানীর বংশাল থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করা হয়। তার বাড়ি কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়ার গোপালনগরে। তার বাবার নাম মো. আব্দুল মান্নান। মাদক মামলায় গ্রেফতারের এক মাসের মধ্যে জামিন পান এই রাজন। এরপর মামলায় অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ।

পরে আদালতে নিয়মিত হাজিরা না দেয়ায় ২০১৩ সালের ৬ জুন রাজনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত। ওই পরোয়ানা যায় ব্রাহ্মণপাড়া থানায়। পরে পুলিশ ভুলে গোপালনগরের মৃত আব্দুল মান্নান ভূঁইয়ার ছেলে রাজন ভূঁইয়াকে গত ১৬ অক্টোবর গ্রেফতার করে বসে। এরপর থেকে তিনি কারাগারে। মূল আসামি রাজনের বয়স বর্তমানে ৩৩ বছর। আর জন্মসনদ অনুযায়ী নির্দোষ রাজনের বয়স ১৯ বছর।

এদিকে গত ৭ নভেম্বর মূল আসামি হাবিবুল্লাহ রাজনও আদালতে জামিন আবেদন করেছেন। জামিন আবেদনটি শুনানির জন্য আদালত আগামী ৪ ডিসেম্বর দিন ধার্য রেখেছেন।

এমআই/এইচআর

 

আইন ও অপরাধ: আরও পড়ুন

আরও