জোড়া খুনের মামলায় খালেদ ৭ দিনের রিমান্ডে

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৯ | ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

জোড়া খুনের মামলায় খালেদ ৭ দিনের রিমান্ডে

আদালত প্রতিবেদক ৫:০৯ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৩, ২০১৯

জোড়া খুনের মামলায় খালেদ ৭ দিনের রিমান্ডে

জোড়া খুনের মামলায় ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের বহিষ্কৃত সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়ার ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

বুধবার ঢাকা মহানগর হাকিম আতিকুল ইসলাম শুনানি শেষে এ আদেশ দেন।

এ সময় মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মিনা মাহমুদা খালেদকে আদালতে হাজির করে প্রথমে হত্যা মামলায় গ্রেফতার দেখানোর আবেদন করেন। পরে মামলার সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন করেন।

আবেদন বলা হয়, ২০১৪ সালের ৫ সেপ্টেম্বর রাত ৮ টা ৩০ মিনিটের সময় আসামি ও তার অন্যান্য সহযোগীদের সহায়তায় পূর্বপরিকল্পিতভাবে খিলগাঁও থানাধীন আনোয়ার হোসেনের বাড়ির গেটের সামনে ইসরাইল হোসেন ও শরীফ হোসাইন সায়মনকে লক্ষ্য করে গুলি করে ৩৮ লাখ টাকা ছিনতাই করে। ঘটনাস্থলেই শরীফ হোসেন মৃত্যুবরণ করে এবং ইসরাইল হোসেন গুরুতর আহত হন। পরবর্তীতে তিনিও চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২০১৬ সালের ১ এপ্রিল মৃত্যুবরণ করেন।

এ আসামি ঘটনার সাথে জড়িত মর্মে একাধিক সূত্রে প্রাপ্ত তথ্যের মাধ্যমে জানা যায়। এমতাবস্থায় আসামিকে অস্ত্র মামলায় গ্রেফতার দেখানোসহ মূল ঘটনা উদঘাটন এবং জড়িত অন্যান্য আসামিদের নাম ঠিকানা সংগ্রহ লক্ষ্যে এ রিমান্ডের আবেদন করেন তদন্ত  কর্মকর্তা। আদালত শুনানি শেষে ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এ বিষয়ে রাষ্ট্রপক্ষের সহকারী পাবলিক প্রসিকিউটর হেমায়েত উদ্দিন খান (হিরণ) জানান, ২০১৪ সালে রাজধানীর খিলগাঁও থানাধীন এলাকায় চাচা-ভাতিজা ইসরাইল ও সায়মনকে হত্যার অভিযোগে খালেদকে আদালতে আনা হয়। এরপর শুনানি শেষে আদালত ৭ দিনের রিমান্ডের আবেদন মঞ্জুর করেন।

এর আগে গত ১৮ সেপ্টেম্বর তাকে তার গুলশানের বাসা থেকে অস্ত্রসহ আটক করে র‌্যাব। পরদিন তাকে গুলশান থানায় হস্তান্তর করা হয়। ক্যাসিনোকাণ্ডে কয়েক দফা রিমান্ডের পর কারাগারে ছিলেন খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া।

এমআই/এএসটি

 

আইন ও অপরাধ: আরও পড়ুন

আরও