গ্রামীণফোনের কাছে টাকা আদায়ের ওপর নিষেধাজ্ঞা

ঢাকা, শনিবার, ৯ নভেম্বর ২০১৯ | ২৪ কার্তিক ১৪২৬

গ্রামীণফোনের কাছে টাকা আদায়ের ওপর নিষেধাজ্ঞা

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৭:০৭ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৭, ২০১৯

গ্রামীণফোনের কাছে টাকা আদায়ের ওপর নিষেধাজ্ঞা

গ্রামীণফোনের কাছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) ১২ হাজার ৫৮৯ কোটি ৯৫ লাখ টাকা দাবি আদায়ের ওপর দুই মাসের নিষেধাজ্ঞা দিয়েছেন হাইকোর্ট।

বৃহস্পতিবার বিচারপতি এ কে এম আবদুল হাকিম ও বিচারপতি ফাতেমা নজীবের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

আগামী ৫ নভেম্বর আপিল শুনানির দিন ধার্য করেছেন আদালত।

আদালতে গ্রামীণফোনের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী এ এম আমিন উদ্দিন, শরীফ ভূঁইয়া ও তানিম হোসেইন। বিটিআরসির পক্ষে ছিলেন আইনজীবী খন্দকার রেজা-ই-রাকিব।

গ্রামীণফোনের কাছে নিরীক্ষা আপত্তির দাবির ১২ হাজার ৫৭৯ কোটি ৯৫ লাখ টাকা এবং রবির কাছে ৮৬৭ কোটি ২৩ লাখ টাকা পাওনা রয়েছে বলে দাবি করে আসছে বিটিআরসি।

কয়েক দফা চেষ্টায় সেই টাকা আদায় করতে না পেরে লাইসেন্স বাতিলের হুমকি দিয়ে নোটিস পাঠায় বিটিআরসি।

সর্বশেষ গ্রামীণফোনকে গত ২ এপ্রিল চিঠি দেয় বিটিআরসি। এই চিঠির যৌক্তিকতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে অর্থ আদায়ের ওপর অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা চেয়ে গ্রামীণফোন নিম্ন আদালতে একটি মামলা করে।

এরপর গত ২৮ আগস্ট নিম্ন আদালত গ্রামীণফোনের অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞার আবেদন নামঞ্জুর করে। পরে এ নিয়ে হাইকোর্টে আপিল করে গ্রামীণফোন, যার গ্রহণযোগ্যতার ওপর আজ এই শুনানি হয়।

ওএস/এসবি

 

আইন ও অপরাধ: আরও পড়ুন

আরও