যুবলীগ নেতা শামীম ১০ দিন রিমান্ডে

ঢাকা, সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯ | ২৯ আশ্বিন ১৪২৬

যুবলীগ নেতা শামীম ১০ দিন রিমান্ডে

আদালত প্রতিবেদক ৮:৫২ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৯

যুবলীগ নেতা শামীম ১০ দিন রিমান্ডে

যুবলীগ নেতা জি কে শামীমকে অস্ত্র ও মাদক মামলায় ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

এর মধ্যে অস্ত্র মামলায় পাঁচদিন ও মাদক মামলায় পাঁচদিন।

শনিবার রাত ৮টার দিকে ঢাকা মহানগর হাকিম বেগম মাহমুদা আক্তারের আদালত রিমান্ডের এ আদেশ দেন।

এর আগে সন্ধ্যায় তাকে আদালতে হাজির করে দুই মামলায় ১৪ দিনের রিমান্ডের আবেদন করেন গুলশান থানা পুলিশ।

এছাড়া অস্ত্র মামলায় তার সাত দেহরক্ষীকে চারদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

সাত দেহরক্ষী হলেন— দেলোয়ার হোসেন, মুরাদ হোসেন, জাহিদুল ইসলাম, সহিদুল ইসলাম, কামাল হোসেন, সামসাদ হোসেন ও আমিনুল ইসলাম।

গুলশান থানা আদালতের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা পুলিশের উপ-পরিদর্শক রকিবুল হাসান রিমান্ডের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

এর আগে শনিবার দুপুর ২টা ৫৫ মিনিটে টেন্ডারবাজি, চাঁদাবাজির সুনির্দিষ্ট অভিযোগে আটক যুবলীগ নেতা জি কে শামীম ও তার সাত বডিগার্ডকে গুলশান থানায় হস্তান্তর করে র‌্যাব।

গুলশান থানার ডিউটি অফিসার এসআই মো. সাদেক জানান, তাদের বিরুদ্ধে মাদক, অস্ত্র ও মানি লন্ডারিংয়ে তিনটি মামলা হয়েছে।

শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর গুলশানের নিকেতনের অফিসে অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করে র‌্যাব।

অভিযানে এক কোটি ৮০ লাখ নগদ টাকা উদ্ধার করা হয়। এছাড়া ১৬৫ কোটি টাকার ওপরে এফডিআর (স্থায়ী আমানত) পাওয়া যায়, যার মধ্যে তার মায়ের নামে ১৪০ কোটি ও ২৫ কোটি টাকা তার নামে। পাওয়া যায় মার্কিন ডলার, মাদক ও আগ্নেয়াস্ত্র।

চাঁদাবাজি ও টেন্ডারবাজির অভিযোগ থাকায় রাজধানীর সবুজবাগ, বাসাবো, মতিঝিলসহ বিভিন্ন এলাকায় প্রভাবশালী ঠিকাদার হিসেবে পরিচিত যুবলীগ নেতা শামীমকে ধরতে শুক্রবার ভোর ৬টা থেকে সাদা পোশাকে শুরু হয় র‌্যাবের অভিযান। বিকেল সাড়ে ৪টায় অভিযান শেষে শামীমসহ আটজনকে আটক করার কথা জানায় র‌্যাব।

এমআই/এসবি

 আরও পড়ুন...
কে এই শামীম
যুবলীগ নেতা শামীম আটক
শামীমের টাকার উৎস অবৈধ
শামীমের কার্যালয়ে কোটি কোটি টাকা, অস্ত্র ও মদ
শামীমের বিরুদ্ধে ৩ মামলা

 

আইন ও অপরাধ: আরও পড়ুন

আরও