নুসরাত হত্যা মামলা আসামির কারাগারে সন্তান প্রসব

ঢাকা, সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯ | ২৯ আশ্বিন ১৪২৬

নুসরাত হত্যা মামলা আসামির কারাগারে সন্তান প্রসব

ফেনী প্রতিনিধি ৩:৩৮ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৯

নুসরাত হত্যা মামলা আসামির কারাগারে সন্তান প্রসব

ফেনী জেলা কারাগারে বন্দি থাকা নুসরাত হত্যা মামলার আসামী কামরুন নাহার মনি কন্যা সন্তানের মা হয়েছেন। সে নুসরাত হত্যা মামলায় অভিযুক্ত হয়ে গত ছয় মাস ধরে কারাগারে বন্দি আছেন।

ফেনী কারাগারের জেলার দিদারুল আলম জানিয়েছে, শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে বন্দি কামরুন নাহার মনির প্রসব বেদনা শুরু হলে দ্রুত তাকে ফেনী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। হাসপাতালে রাত সাড়ে ১২ টায় মনি কন্যা সন্তান প্রসব করেন। বর্তমানে মা ও মেয়ে দুইজনই সুস্থ্য আছেন।

ফেনী জেনারেল হাসপাতালে থাকা মনির মা নুর নাহার জানান, নুসরাত হত্যা মামলায় মনি যখন গ্রেফতার হন, তখন সে পাঁচ মাসের গর্ভবতী ছিলেন। আদালতে মনির আইনজীবীর আবেদনের প্রেক্ষিতে গত ৪ সেপ্টেম্বর ফেনী আধুনিক সদর হাসপাতালের আবাসিক ডাক্তার আবু তাহেরের নেতৃত্ব গঠিত তিন সদস্যের মেডিকেল বোর্ড ২৪ সেপ্টেম্বর সন্তান প্রসবের সম্ভাব্য তারিখ দিয়ে তাকে পূর্নাঙ্গ বিশ্রামে থাকার পরামর্শ দেন।

নুর নাহার আরো জানান, সে অসুস্থ্য থাকলেও নবজাতক সুস্থ্য আছে। অসুস্থ্য অবস্থায় ডাক্তার তাকে রিলিজ করে দিয়েছেন কিছুক্ষণের মধ্যে মনিকে কারাগারে নিয়ে যাবে।

ফেনী জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. আবু তাহের মুঠোফোনে জানান, কামরুন নাহার মনি ও নবজাতক সুস্থ্য আছে। কারা কর্তৃপক্ষ চাইলে আজকে তাদের নিয়ে যেতে পারবে।

উল্লেখ্য, সোনাগাজীর মাদ্রাসা ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি হত্যা মামলার বিচার কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। আসামী পক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষ হলে চলিত সপ্তাহে রায়ের তারিখ ঘোষণা হতে পারে।

এ মামলায় কামরুন নাহার মনি হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি প্রদান করেছেন। মামলার অভিযোগপত্রে মাদ্রাসার সাইক্লোন সেল্টারের ছাদে যে পাঁচ আসামী নুসরাতকে হাত-পা বেঁধে আগুন লাগিয়েছে মনি তাদের একজন।

এএএম/এফএ

 

আইন ও অপরাধ: আরও পড়ুন

আরও