খালেদার জামিন আবেদন ফেরত নিলেন আইনজীবীরা

ঢাকা, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | 2 0 1

খালেদার জামিন আবেদন ফেরত নিলেন আইনজীবীরা

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৪:৩৩ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৯

খালেদার জামিন আবেদন ফেরত নিলেন আইনজীবীরা

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় দণ্ডিত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন ফেরত নিয়েছেন তার আইনজীবীরা।

বুধবার বিচারপতি ফরিদ আহমেদ ও বিচারপতি এ এসএম আবদুল মোবিনের হাইকোর্ট বেঞ্চে জামিন বিষয়ে শুনানির পর খালেদা জিয়ার আইনজীবী জয়নুল আবেদীন জামিন আবেদনটি ফেরত নেন।

শুনানির সময় আদালত বলেন, যেহেতু এ বিষয়টি আগে হাইকোর্টের একটি বেঞ্চে শুনানি হয়ে সিদ্ধান্ত দিয়েছে। সেহেতু বিষয়টি এখন আপিল বভাগে নিয়ে যেতে পারেন।

খালেদার আইনজীবী জয়নুল আবেদীন তখন বলেন, বিষয়টি এর আগে হাইকোর্টের অন্য একটি বেঞ্চে শুনানি হলেও আপনাদের শুনতে কোনো বাধা নেই।

এরপরও আদালত আবেদনের ওপর শুনানিতে রাজি না হলে খালেদা জিয়ার আইনজীবী বলেন, তাহলে জামিন আবেদনটি আমরা ফেরত (টেক ব্যাক) নিচ্ছি।

অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম ও দুর্নীতি দমন কমিশনের আইনজীবী খুরশীদ আলম খানও শুনানির প্রস্তুতি নিয়ে আদালতে উপস্থিত থাকলেও তাদের শুনানি করতে হয়নি।

এই আবেদন আবার অন্য কোনো বেঞ্চে তোলা হবে কি না জানতে চাইলে আইনজীবী জয়নুল আবেদীন সাংবাদিকদের বলেন, তারা আলোচনা করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবেন।

গত ৩১ জুলাই বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি এস এম কুদ্দুস জামানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এই মামলায় খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন খারিজ করে দেন।

এরপর বিচারপতি ফরিদ আহমেদের অবকাশকালীন হাইকোর্ট বেঞ্চে জামিন আবেদন করেন খালেদা জিয়া।

কিন্তু খালেদার আইনজীবীরা সে খারিজ আদেশের বিরুদ্ধে আপিলে না গিয়ে গত ৩ সেপ্টেম্বর নতুন করে হাইকোর্টে আবেদন করলে তাকে ‘নজিরবিহীন’ আখ্যায়িত করেন দুদকের আইনজীবী খুরশিদ আলম খান।

শারীরিক অবস্থা, বয়স, সামাজিক অবস্থান, অপরাধের ধরণ- সবকিছু মিলিয়ে খালেদা জিয়া ‘জমিন পেতে পারেন’, এমন যুক্তি তুলে ধরে নতুন করে জামিন আবেদনটি করেন বিএনপিনেত্রীর আইনজীবীরা।

সুপ্রিম কোর্ট ও নিম্ন আদালত মিলে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে এখন ১৭টি মামলা বিচারাধীন। এর মধ্যে দুটি মামলায় (জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট ও জিয়া দাতব্য ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলা) জামিন পেলেই খালেদা জিয়া কারাগার থেকে মুক্তি পেতে পারেন বলে তার আইনজীবীদের ভাষ্য। 

এ দুই মামলায় তার ১৭ বছরের কারাদণ্ড হয়েছে। জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ১০ বছরের সাজার রায়ের বিরুদ্ধে খালেদার আবেদন আপিল বিভাগে এবং দাতব্য ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় নিম্ন আদালতের দেওয়া ৭ বছরের সাজার বিরুদ্ধে করা আপিল হাইকোর্টে বিচারাধীন।

ওএস/এসবি

 

আইন ও অপরাধ: আরও পড়ুন

আরও