ফেসবুক লাইভে কুরআন অবমাননা, 'সেফুদা’র বিরুদ্ধে প্রতিবেদন ১৮ জুলাই

ঢাকা, ২১ জুলাই, ২০১৯ | 2 0 1

ফেসবুক লাইভে কুরআন অবমাননা, 'সেফুদা’র বিরুদ্ধে প্রতিবেদন ১৮ জুলাই

আদালত প্রতিবেদক ৬:২০ অপরাহ্ণ, মে ১৫, ২০১৯

ফেসবুক লাইভে কুরআন অবমাননা, 'সেফুদা’র বিরুদ্ধে প্রতিবেদন ১৮ জুলাই

ফেসবুক লাইভে মুসলমানদের পবিত্র ধর্মীয় গ্রন্থ কুরআন শরিফ অবমাননার অভিযোগে ভিয়েনা প্রবাসী সেফাতউল্লাহ ওরফে ‘সেফুদা’র বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের তারিখ আগামী ১৮ জুলাই দিন ধার্য করেছেন  আদালত।

বুধবার  মামলাটি তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য ধার্য ছিল। কিন্তু এদিন মামলার তদন্ত সংস্থা পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিট প্রতিবেদন দাখিল করতে পারেননি। এজন্য ঢাকার সাইবার ক্রাইম ট্রাইব্যুনালের বিচারক আস্ সামস জগলুল হোসেন প্রতিবেদন দাখিলের পরবর্তী এ তারিখ ঠিক করেন।

গত ২৩ এপ্রিল দুপুরে ঢাকার সাইবার ক্রাইম ট্রাইব্যুনালে সেফাতউল্লাহর বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলার আবেদন জানান আইনজীবী মো. আলীম আল রাজী জীবন। পরে আদালত বাদীর জবানবন্দী গ্রহণ করে মামলাটি তদন্তের নির্দেশ দেন।

মামলার আবেদনে বলা হয়, গত ৯ এপ্রিল বাদী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে দেখতে পান, অস্ট্রিয়ার ভিয়েনা প্রবাসী সেফাতউল্লাহ ওরফে ‘সেফুদা’ তার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে লাইভে এসে পবিত্র ধর্মগ্রন্থ আল কোরআন ও মহানবী হযরত মোহাম্মদ (সা.)-কে নিয়ে অবমাননাকারী মন্তব্য করছেন। এ অবমাননা বাদীসহ মুসলিম ধর্মীয় বিশ্বাসের ওপর আঘাত করেছে।

অভিযোগে আরও বলা হয়, প্রবাসী সেফাতউল্লাহ একইভাবে বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়েও বিভিন্ন সময় লাইভে এসে কুরুচিপূর্ণ, অশ্লীল, আক্রমাণাত্মক ও অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেছেন। এমনকি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য করেছেন। সে কারণে আসামি সেফুদা’র ফেসবুক অ্যাকাউন্ট বন্ধসহ তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির আবেদন করেছেন বাদী।

জানা গেছে, পারিবারিক জীবনে সেফুদার এক সন্তান রয়েছে। তার স্ত্রী থাকেন ঢাকায়। প্রায় ২২ বছর আগে সেফুদা অস্ট্রিয়ার ভিয়েনায় চলে যান।

এদিকে, সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বহুল আলোচিত-সমালোচিত সেফুদাকে দেশে অথবা বিদেশে আইনের হাতে তুলে দিতে পারলে দুই লাখ টাকা পুরস্কার ঘোষণা করেছেন ফেনীর ছাগলনাইয়া উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মেজবাউল হায়দার চৌধুরী সোহেল।

এমআই/এইচকে

 

আইন ও অপরাধ: আরও পড়ুন

আরও