আব্বাস দম্পতির আগাম জামিন

ঢাকা, বুধবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮ | ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

আব্বাস দম্পতির আগাম জামিন

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৪:০৩ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৮, ২০১৮

আব্বাস দম্পতির আগাম জামিন

রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে অগ্নিসংযোগ ও সংঘর্ষের তিন মামলায় আগাম জামিন পেয়েছেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস ও তার স্ত্রী মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস।

রোববার বিচারপতি মো. রেজাউল হক ও বিচারপতি জাফর আহমদের হাইকোর্ট বেঞ্চ তাদের আট সপ্তাহের জামিন মঞ্জুর করেন।

আব্বাস দম্পতি আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করলেন।

আব্বাস দম্পতির পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী জয়নুল আবেদীন ও এম মাহবুব উদ্দিন খোকন।

রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল মমতাজ উদ্দিন ফকির।

শুনানির সময় তারা আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে সকালে আদালতে এসে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির কক্ষে অবস্থান করছিলেন মির্জা আব্বাস ও আফরোজা।

গত বুধবার দুপুরে ঢাকার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে পুলিশের সঙ্গে দলটির নেতাকর্মীদের ব্যাপক সংঘর্ষ হয়। এ সময় পুলিশের দুটি গাড়ি পোড়ানো হয়, ভাঙচুর করা হয় অনেক গাড়ি।

পুলিশের করা তিনটি মামলার প্রতিটিতে হুকুমের আসামি করা হয় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, তার স্ত্রী মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস, বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ, যাত্রাবাড়ী থানা বিএনপির সভাপতি নবীউল্লাহ নবী, কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান আকতারুজ্জামান এবং বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য কফিল উদ্দিনকে।

পল্টন থানায় বুধবার রাতে দায়ের করা হয় বিস্ফোরক আইনের মামলাটি। ১৯২ জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত সহস্রাধিক নেতাকর্মীকে ওই মামলায় আসামি করা হয়েছে। গ্রেফতার দেখানো হয়েছে ১৬ জনকে।

বিশেষ ক্ষমতা আইনে করা ২২ নম্বর মামলায় আসামি করা হয়েছে ১৫৯ জনকে। এ মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়েছে ২৩ জনকে। আর পুলিশের কাজে বাধা দেয়ার অভিযোগে দণ্ডবিধিতে করা ২৩ নম্বর মামলায় আসামির তালিকায় ১৩৭ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। গ্রেফতার দেখানো হয়েছে ২৬ জনকে।

এর মধ্যে একটি মামলায় বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য নিপুণ রায় চৌধুরীকে গ্রেফতারের পর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পাঁচ দিনের রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ।

ওএস/এসবি

আরও পড়ুন...
আগাম জামিন নিতে হাইকোর্টে স্ত্রীসহ মির্জা আব্বাস