যশোরে টিসিবির ৪৫ টাকার পেঁয়াজের মান নিয়ে প্রশ্ন

ঢাকা, শনিবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯ | ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

যশোরে টিসিবির ৪৫ টাকার পেঁয়াজের মান নিয়ে প্রশ্ন

যশোর ব্যুরো ৬:৫০ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ০২, ২০১৯

যশোরে টিসিবির ৪৫ টাকার পেঁয়াজের মান নিয়ে প্রশ্ন

যশোরে ৪৫ টাকায় কেজি দরে পেঁয়াজ বিক্রি শুরু করেছে ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি)। সোমবার যশোর দড়াটানা ভৈরব চত্বরে ট্রাকে করে পেঁয়াজ বিক্রি  করা হয়। প্রথম দিনেই ৪৫ টাকায় পেঁয়াজ কিনতে ক্রেতাদের দীর্ঘ লাইন পড়ে যায়। পেঁয়াজ কিনতে গিয়ে হিমশিম খেতে হয়েছে। তবে সাশ্রয়ী মূল্যে এই পেঁয়াজের মান নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন ক্রেতারা।

জানা যায়, তুরস্ক থেকে আমদানি করা সাদা পেঁয়াজ যশোরের জন্য তিন হাজার কেজি বরাদ্দ করেছে টিসিবি। প্রতি ক্রেতা ৪৫ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ ক্রয় করতে পারবেন। 

পেঁয়াজ কিনতে আসা ফারুক হোসেন জানান, টিসিবি প্রতি কেজি পেঁয়াজ ৪৫ টাকায় বিক্রি করলেও তা অনেক নিন্মমানের। এক কেজি পেঁয়াজে দুই শ’ থেকে তিন শ’ গ্রাম পর্যন্ত নষ্ট রয়েছে। আবার পেঁয়াজের মান ভালো না।

ময়না বেগম নামে এক ক্রেতা জানান, বাজারে এসেছিলাম। দেখি দড়াটানায় টিসিবির পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে। দুই ঘন্টা দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে অবশেষে এক কেঁজি পেঁয়াজ পেলাম। তাতে প্রায় আধা কেজি পেঁয়াজ নষ্ট রয়েছে। বদলায়ে দিতে বললে বলে আপনাকে পেঁয়াজ কিনতে হবে না।

ক্রেতাদের অভিযোগ প্রসঙ্গে বিক্রেতা আক্তার হোসেন বলেন, ‘আমাদের যে পেঁয়াজ দেওয়া হয়েছে অমরা তাই বিক্রি করছি।’

যশোরে টিসিবির পেঁয়াজ সরবরাহকারী মেসার্স মাহফুজ ট্রেডিং এর পরিচালক মাহফুজুর রহমান জানান, যশোরে তিন হাজার কেজি পেঁয়াজ বিক্রির বরাদ্দ পেয়েছেন। পেঁয়াজের বস্তার ভেতরে যেমন পেঁয়াজ পেয়েছেন, সেটাই বিক্রি করছেন। যদি নষ্ট থাকে, তাহলে তাদের কিছু করার নেই।

টিসিবির খুলনা বিভাগীয় কর্মকর্তা রবিউল মোর্শেদ জানান, যশোরে তিন হাজার কেজি পেঁয়াজ বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।৪৫ টাকা দরে টানা তিন দিন বিক্রি হবে।

ক্রেতাদের অভিযোগ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, যার খাইতে ইচ্ছা করবে তিনিই এই পেঁয়াজ খাইবেন

এমএইচ

 

খুলনা: আরও পড়ুন

আরও