পরকীয়াই কাল হলো সোহাগের

ঢাকা, শনিবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯ | ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

পরকীয়াই কাল হলো সোহাগের

যশোর ব্যুরো ৪:০৩ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ০২, ২০১৯

পরকীয়াই কাল হলো সোহাগের

যশোরে কলেজ ছাত্র সোহাগ ওরফে মাইকেল হত্যা মামলার তিন আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পরকীয়া প্রেম ও স্থানীয় কিশোর গ্রুপের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

রোববার বিকেলে ঢাকার চকবাজার ও সোমবার ভোররাতে যশোর শহরের মোল্যাপাড়া থেকে তাদের আটক করা হয়।

গ্রেফতাররা হলেন- শহরের মোল্যাপাড়ার মৃত খায়রুল ইসলামের ছেলে রায়হান (২১), একই এলাকার নগেন কুমারের ছেলে কালিপদ (২৪) ও ছোট শেখহাটির ওহেদ আলীর ছেলে দাউদ (২১)।

এসময় হত্যার কাজে ব্যবহৃত ছুরি ও মদের সাথে মেশানো ঘুমের ওষুধ মদের বোতল ও তিনটি মোবাইলফোন উদ্ধার করা হয়।

সোমবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে জেলা পুলিশের মুখপাত্র অতিরিক্ত সুপার মোহাম্মদ তৌহিদুল ইসলাম বলেন, গত ২১ অক্টোবর দিবাগত রাতে যশোর শহরের মোল্যাপাড়া নদীর পাড়ে কলেজছাত্র  সোহাগ ওরফে মাইকেলকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় কোতোয়ালি থানায় একটি মামলা হয়। ওই মামলার আসামি রাকিব ও কোরবান আদালতে আত্মসমর্পণ করে। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মফিজুল ইসলাম প্রযুক্তি ব্যবহার করে নিশ্চিত হন রায়হান রাজধানীতে অবস্থান করছে। রোববার বিকেলে ঢাকা থেকে রায়হানকে আটক করা হয়। তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী যশোর শহরের মোল্যাপাড়া থেকে কালিপদ ও দাউদকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তৌহিদুল ইসলাম আরও বলেন, আসামি রাকিবের স্ত্রী ও ভাগ্নির সাথে নিহত সোহাগের পরকীয়া প্রেম ও স্থানীয় কিশোর গ্রুপের আধিপত্য বিস্তার নিয়ে বিরোধে হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

আইআর/জেডএস

 

খুলনা: আরও পড়ুন

আরও