সড়ক আইন সংশোধনের দাবিতে নড়াইলে বাস ধর্মঘট

ঢাকা, রবিবার, ৮ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

সড়ক আইন সংশোধনের দাবিতে নড়াইলে বাস ধর্মঘট

নড়াইল প্রতিনিধি ১১:৩৯ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ১৮, ২০১৯

সড়ক আইন সংশোধনের দাবিতে নড়াইলে বাস ধর্মঘট

নতুন সড়ক পরিবহন আইনের কতিপয় ধারা সংশোধনসহ ১১ দফা দাবিতে নড়াইলের অভ্যন্তরীণ সকল রুটে অনির্দিষ্টকালের জন্য বাস চলাচল বন্ধ করে দিয়েছেন শ্রমিকরা।

রোববার সন্ধ্যা হতে হঠাৎ করে নড়াইল-মাওয়া, নড়াইল-যশোর, নড়াইল-খুলনাসহ অভ্যন্তরীণ রুটে বাস চলাচল বন্ধ করে দেয়ায় যাত্রীরা চরম বিপাকে পড়েছেন।

এর আগে রোববার সকালে নড়াইল প্রেসক্লাবের সামনে সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮ এর জেল জরিমানা সংশোধনসহ ১১ দফা দাবিতে নড়াইলে পরিবহন মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে।

মানববন্ধন শেষে নড়াইল জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেন শ্রমিক নেতৃবৃন্দ।

মানববন্ধনে বক্তারা প্রতিটি সড়ক দুর্ঘটনায় ৩০৪/খ ধারায় মামলা রুজু করা, মোটরযান ও চালকেদের ওপর অধিক অর্থদণ্ড ও জেল জরিমানা সংশোধনের দাবি ছাড়াও ১১ দফা দাবি জানান।

এদিকে, পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই হঠাৎ করে বাস চলাচল বন্ধ করে দেয়ায় যাত্রীরা চরম বিপাকে পড়েছেন। জরুরি প্রয়োজনেও নির্ধারিত গন্তব্যে যেতে পারছেন না যাত্রীরা।

তবে বাস বন্ধ থাকায় ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেল, থ্রি-হুইলারসহ অন্যান্য ছোট যানবাহনগুলোতে যাত্রীরা গন্তব্য যাতায়াতের চেষ্টা করে যাচ্ছেন। তবে এসব যানবাহনে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

নড়াইল শহরের আলাদাতপুর গ্রামের বাসিন্দা টিপু সুলতান জানান, তিনি জরুরি প্রয়োজনে খুলনায় যেতে চেয়েছিলেন। কিন্তু বাস চলাচল বন্ধ থাকায় যেতে পারেননি।

সোনালী ব্যাংক নড়াইল শাখায় কর্মরত সিনিয়র অফিসার (ক্যাশ) মো. সাইফুল ইসলাম জানান, প্রতিদিন তিনি যশোর থেকে নড়াইলে এসে অফিস করেন। কিন্তু বাস চলাচল বন্ধ থাকায় বিকল্প পদ্ধতি অতিরিক্ত ভাড়া দিয়ে কর্মস্থলে আসতে হয়েছে।

এ ব্যাপারে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও নড়াইল জেলা বাস মিনিবাস শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক সাদেক খান বলেন, বাস বন্ধ রাখার ব্যাপারে সংগঠনের কোন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি। কিন্তু আমাদের সাথে আলাপ না করে বাস চালক-শ্রমিকরা নতুন পরিবহন আইনের ভয়ে স্বেচ্ছায় জেলার বেশ কয়েকটি রুটে বাস চালানো বন্ধ করে দিয়েছে। তবে বিক্ষিপ্তভাবে কোনো কোনো রুটে দু’একটি বাস চলাচল করছে।

এসবি

 

খুলনা: আরও পড়ুন

আরও