ঘুষখোর ভূমি কর্মকর্তাকে কৌশলে ধরলেন ডিসি

ঢাকা, বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯ | ২৯ কার্তিক ১৪২৬

ঘুষখোর ভূমি কর্মকর্তাকে কৌশলে ধরলেন ডিসি

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি ৯:৫৮ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৭, ২০১৯

ঘুষখোর ভূমি কর্মকর্তাকে কৌশলে ধরলেন ডিসি

ভুক্তভোগীর বড় ভাই সেজে এক ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তার ঘুষ চাওয়ার প্রমাণ পেয়ে তাৎক্ষণিক তাকে ধরলেন সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক (ডিসি) এসএম মোস্তফা কামাল।

বৃহস্পতিবার বিকেলে তাকে সাময়িকভাবে বরখাস্তের নির্দেশ দেন ডিসি।

সাময়িকভাবে বরখাস্তকৃত মোকলেস আলী সদর উপজেলার ধুলিহর ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা।

ওই ভুক্তভোগী জানান, তিনি ও তার বাবা বৃহস্পতিবার দুপুরে ধুলিহর ইউনিয়ন ভূমি অফিসে জমির মিউটেশন করতে যান। এজন্য নির্ধারিত ফি ১১শ ৭০ টাকা হলেও তাদের কাছে পাঁচ হাজার টাকা ঘুষ চাওয়া হয়। অনেক দেন দরবার করলেও পাঁচ হাজারের এক টাকা কম হলেও কাজ হবে না বলে তাদের জানিয়ে দেন ওই ভূমি কর্মকর্তা এবং জুয়েল নামে এক দালালকে দেখিয়ে দেন তিনি।

এ সময় ওই ভুক্তভোগী সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামালের কাছে মোবাইল করে ঘুষ চাওয়ার বিষয়টি জানান। জেলা প্রশাসক তাকে তার বড় ভাই পরিচয়ে ওই কর্মকর্তার সাথে কথা বলিয়ে দিতে বলেন।

এ সময় ওই ভুক্তভোগী ধুলিহর ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা মোকলেস আলীর কাছে নিজের ফোনটি দিয়ে বলেন, আমার বড় ভাই আপনার সাথে একটু কথা বলবেন।

এ সময় ডিসি নিজেকে ভুক্তভোগীর বড় ভাই পরিচয় দিয়ে বলেন, ভাই চার হাজার টাকা নেন, আমরা গরিব মানুষ কাজটি করে দেন। উত্তরে ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা মোকলেস আলী বলেন, ঠিক আছে দেখবো।

এর পরপরই সেখানে সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. আসাদুজ্জামানকে পাঠিয়ে দেন ডিসি।

সেখানে গিয়ে ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় এবং ভূমি অফিসে বিভিন্ন কাজে আসা মানুষের সাথে কথা বলে নিয়মিত ঘুষ গ্রহণের বিষয়টি সম্পর্কে নিশ্চিত হন তিনি।

এর পরপরই বিকেলে ধুলিহর ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা মোকলেস আলীকে সাময়িকভাবে বরখাস্তের আদেশ দেন ডিসি।

প্রসঙ্গত, গত ১৩ অক্টোবর সাতক্ষীরা রাজস্ব প্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের শপথ বাক্য পাঠ করিয়ে জেলা প্রশাসনকে দুর্নীতিমুক্ত ঘোষণা করেন ডিসি এসএম মোস্তফা কামাল।

এইচআর

 

খুলনা: আরও পড়ুন

আরও