৩২৩ পূজামণ্ডপে অনুদান দিলেন মাশরাফী

ঢাকা, সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯ | ২৯ আশ্বিন ১৪২৬

৩২৩ পূজামণ্ডপে অনুদান দিলেন মাশরাফী

নড়াইল প্রতিনিধি ১০:১৯ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ০৮, ২০১৯

৩২৩ পূজামণ্ডপে অনুদান দিলেন মাশরাফী

নড়াইল-২ আসনের নির্বাচনী এলাকার ৩২৩টি পূজামণ্ডপে সংসদ সদস্য ও ক্রিকেট তারকা মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা অনুদান দিয়েছেন। ক্রিকেট থেকে অর্জিত অর্থ থেকে তিনি ৬ লাখ ৪৬ হাজার টাকার অনুদান দেন। একই সাথে তিনি সনাতন হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংস্কৃতিক বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য সৌমেন চন্দ্র বসু জানান, নড়াইল-২ আসেনর সংসদ সদস্য মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা তার নির্বাচনী এলাকার ৩২৩টি পূজা মণ্ডপে ৬ লাখ ৪৬ হাজার টাকা অনুদান দিয়েছেন। এই অর্থ নড়াইল জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সুবাস চন্দ্র বোস, সাধারণ সম্পাদক  ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান নিজাম উদ্দিন খান নিলু, নড়াইল পৌরসভার মেয়র জাহাঙ্গীর হোসেন বিশ্বাস এবং লোহাগড়া উপজেলা আওয়ামীগের নেতৃবৃন্দের  মাধ্যমে পূজামণ্ডপগুলোর নেতৃবৃন্দের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

নড়াইল পৌরসভার ৩৮টি মন্দিরের জন্য বরাদ্দকৃত অনুদান নড়াইল পৌরসভার মেয়র জাহাঙ্গীর বিশ্বাস পৌঁছে দিয়েছেন।

নড়াইল সদর উপজেলার কমলাপুর উদয়নী যুব সংঘের সাধারণ সম্পাদক সাগর বোস বলেন, শারদীয় দুর্গোৎসবে সংসদ সদস্য মাশরাফী বিন মোর্ত্তজার অনুদান পেয়ে আমরা ভীষণ আনন্দিত।

জেলা পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি অশোক কুমার কুন্ডু বলেন, আমাদের নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য এলাকায় আসতে না পারলেও তিনি প্রতিটি মন্দিরে অনুদান দিয়েছেন। একই সাথে প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছাসহ তিনি শুভেচ্ছাপত্র দিয়েছেন। আমরা এতে ভীষণ খুশি। এমপির দেওয়া অনুদান নড়াইল-২ আসনের সকল মণ্ডপে পৌঁছে দেয়া হয়েছে।

জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সুবাস চন্দ্র বোস বলেন, নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা তার ব্যক্তিগত অর্জিত অর্থ থেকে নির্বাচনী এলাকা ৩২৩টি পূজামণ্ডপে ৬ লাখ ৪৬ হাজার টাকার অনুদান দিয়েছেন। একই সাথে তিনি সনাতন হিন্দু ধর্মালম্বীদের শারদীয় দুর্গোৎসবের শুভেচ্ছাও জানিয়েছেন। এতে সনাতন ধর্মালম্বীরা ভীষণ খুশি। নড়াইল জেলাবাসী প্রতিবছরের মতো এবছরও আনন্দঘন ও উৎসবমুখর পরিবেশে শারদীয় উৎসব পালন করছে।

মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা অনুদান দেয়ার পাশাপাশি শুভেচ্ছা বার্তায় সংশ্লিষ্ট পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে  সম্বোধন করে যা লিখেছেন- মহাশয়, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের  প্রধানমন্ত্রী, বঙ্গবন্ধু তনয়া জননেত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে সবাইকে শারদীয় শুভেচ্ছা। শারদীয় দুর্গোৎসব সনাতন ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব। সমাজে অন্যায়, অবিচার ও অশুভ শক্তিদমন করে শান্তি প্রতিষ্ঠা করতে দুর্গোৎসবের তাৎপর্য অনেক। আবহমান কাল ধরে উৎসব-উদ্দীপনার মাধ্যমে নানা উপাচার ও আনুষ্ঠানিকতার মধ্য দিয়ে শারদীয় দুর্গোৎসব উদযাপিত হয়ে আসছে। সনাতন ধর্মের অনুসারীদের পাশাপাশি দুর্গোৎসব এখন জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সকলের উৎসবে পরিণত হয়েছে। তাইতো এখন ধ্বনিত হয়-"ধর্ম যার যার, উৎসব সবার"। এটিই অসাম্প্রদায়িক গণতান্ত্রিক বাংলাদেশের নিদর্শন, যে বাংলাদেশের স্বপ্ন দেখেছিলেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

মহাশয়, আমি সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে আপনার-আমার দীর্ঘদিনের লালিত স্বপ্ন" উন্নত-সমৃদ্ধ নড়াইল" বিনির্মাণে নিরলস কাজ করে যাচ্ছি। স্বশরীরে সবসময় থাকতে না পারলেও আপনাদের যেকোন প্রয়োজনে আমাকে সর্বদা আপনাদের পাশে পাবেন। উন্নত-সমৃদ্ধ নড়াইল গড়ে তোলার এই অভিযাত্রায় আমি আপনাদের সহযোগিতা কামনা করছি।

শারদীয় দুর্গোৎসব সফলভাবে সম্পন্ন করতে সংসদ সদস্য হিসেবে আমি, আমাদের  আওয়ামীলীগ পরিবার, নড়াইল জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসন সদা প্রস্তুত রয়েছি।

শারদীয় দুর্গোৎসবে আমার ক্রিকেটখেলা থেকে উপার্জিত এই সামান্য অর্থ সাদরে শুভেচ্ছা উপহার হিসেবে গ্রহণ করবেন। পরিশেষে, উন্নত নড়াইল গড়তে আপনাদের আশীর্বাদ প্রত্যাশা করছি। শারদীয় দুর্গোৎসব সফল হোক।

শুভেচ্ছান্তে, মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা, সংসদ সদস্য ৯৪, নড়াইল-২ ।

এএস/জেডএস/

 

খুলনা: আরও পড়ুন

আরও