‘একমাত্র সন্তান রাজু মায়ের কাছে ফিরতে পারলেন না’

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯ | ২ কার্তিক ১৪২৬

‘একমাত্র সন্তান রাজু মায়ের কাছে ফিরতে পারলেন না’

মোংলা প্রতিনিধি ১২:১৯ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৯

‘একমাত্র সন্তান রাজু মায়ের কাছে ফিরতে পারলেন না’

মায়ের ফোন পেয়ে বাইক নিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন রাজু(২৫)। কিন্তু কে জানতো টগবগে এ যুবক আর কখন মায়ের কোলে ফিরবেন না। মা’ও জড়িয়ে ধরতে পারবে না তার আদরেরে একমাত্র সন্তানকে। পথে যে মৃত্যু দ্যূত হয়ে বসে আছে সদ্য  রাস্তায় বসানো ড্রেজারের পাইপ। আর তাতেই শুক্রবার রাতের আধারে ধাক্কা লেগে মটর সাইকেলের নিয়ন্ত্রন হারিয়ে ছিটকে পড়ে যায় রাজু। এরপর প্রচন্ড রক্তক্ষরণে মৃত্যুর হয় তার।

বাবা মায়ের একমাত্র আদরের ছেলে রাজু হাওলাদার। তার অকাল মৃত্যুতে মোংলার এখন চলছে শোকের মাতন। কেউ যেন তার এ মৃত্যু মেনে নিতে পারছে না। ফেসবুক জুড়ে চলছে প্রতিবাদ।

এদিকে শনিবার সকালে পরিবেশ,বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রনালয়েল উপমন্ত্রী হাবিবুন নাহার   শহরের মিয়া মিয়াপাড়া গিয়ে  নিহতের পবিবাবারকে সমবেদনা জানিয়েছেন।

প্রতাক্ষদর্শীরা জানান, শুক্রবার রাত সাড়ে নয়টারদিকে  মাদরাসা রোড দিয়ে মটর সাইকেল যোগে বাড়ি যাওয়ার সময় রাস্তার মাঝে নতুন বসানো ড্রেজার পাইপের কারণে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ছিটকে পড়ে যায় রাজু। ঘটনাস্থলে তার প্রচন্ড রক্তক্ষরণ হয়। পরে মোংলা উপজেলা স্বাস্ত্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পর কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে রাত ১০টার দিকে  মৃত ঘোষনা করেন।

এদিকে রাজুর অকাল মৃত্যুর জন্য রাস্তার বসানো ড্রেজার পাইপকে দ্বায়ী করে মোংলার ফেসবুক ব্যবহারকারীরা  ক্ষোভ প্রকাশ করছেন। তারা এর বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের ব্যবস্থা গ্রহনের দাবি জানিয়েছেন।

মো. রানিসুর রহমান নামে এক ফেসবুক ব্যবহারকারী ক্ষোভ প্রকাশ করে  লিখেছেন প্রতিবাদের ঝড় দেখতে চাই। যে বালুর পাইপটার সাথে দুর্ঘটনা ঘটেছে ২/১ দিন আগেই লাগিয়েছে। কেউ কিছু বলেন না, বলবেন বা কি ? কে বাঁচলো কে মরলো তাতে আপনাদের কি? কাল হয়তো এভাবে অন্য কেউ চলে যাবে...

প্রধান রাস্তার মাঝে ড্রেজারের পাইপ বসানো এবং এতে দুর্ঘটনা কার দ্বায় জানতে চাইলে মোংলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. রাহাত মান্নান বলেন, এটা পৌরসভার নিয়ন্ত্রনে। আমি ছুটিতে আছি। ছুটি শেষে ফিরে সকলে বসে একটা ব্যবস্থা নিবো।

তবে ভিন্ন কথা শুনালেন মোংলা পৌর সভার মেয়র জুলফিকার আলী। তিনি এ প্রতিবেদককে বলেন, আমাদের অনুমতি না নিয়েই  এসব পাইপ বসানো হয়েছে।  রাজনৈতিক কারনে ব্যবস্থা নেয়া যাচ্ছে না।

মোংলা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সুধাংশু কুমার মল্লিক বলেন, দুর্ঘটনায় নিহত রাজু মায়ের ফোন পেয়ে বাসায় যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে দুর্ঘটনায় তার মৃত্যু হয়। রাজু  পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডের মিয়াপাড়া এলাকার আজিজ হাওলাদরের ছেলে। তার মৃত্যুতে পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় একটি সাধারণ ডাইরী করা হয়েছে।

এমএমএফ/এফএ

 

খুলনা: আরও পড়ুন

আরও