কর্মকর্তা সেজে সোনালী ব্যাংকে ছিনতাইয়ের সময় তিন প্রতারক আটক

ঢাকা, বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯ | ২৯ কার্তিক ১৪২৬

কর্মকর্তা সেজে সোনালী ব্যাংকে ছিনতাইয়ের সময় তিন প্রতারক আটক

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি: ৯:১৮ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৭, ২০১৯

কর্মকর্তা সেজে সোনালী ব্যাংকে ছিনতাইয়ের সময় তিন প্রতারক আটক

চুয়াডাঙ্গার জীবননগরে ব্যাংক কর্মকর্তা সেজে সোনালী ব্যাংক থেকে গ্রাহকদের টাকা হাতিয়ে নেয়ার সময় তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ।

বুধবার দুপুরে জীবননগর শহরের সোনালী ব্যাংকের কার্যলয় থেকে তাদেরকে আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলো, মাদারীপুর জেলার শিবচর থানার বয়রাতলা গ্রামের মৃত আনার উদ্দীন ফকিরের ছেলে জামাল হোসেন (৩০), মির্জার চর গ্রামের মোতালেব আলীর ছেলে আবু বক্কর (৩৫) ও রাজৈর থানার আমগ্রাম এলাকার নুরুদ্দীন মিয়ার ছেলে জাকির হোসেন (৩৮)। এছাড়া জীবননগর থানা পুলিশ আলাদা অভিযান চালিয়ে গণডাকাতি মামলার আরও দুই জনকে গ্রেফতার করেছে।

বুধবার বিকেলে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে জরুরী এক সংবাদ সম্মেলনে সংবাদিকদের এ তথ্য জানানো হয়।

সংবাদ সন্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কানাই লাল সরকার জানান, সোনালী ব্যাংকের জীবননগর শাখাতে বুধবার দুপুরে প্রতারক চক্রের ওই তিন সদস্য প্রবেশ করে। এরপর তারা সোনালী ব্যাংকের উর্দ্ধতন কর্মকর্তা পরিচয় দিয়ে কৌশলে বিভিন্ন গ্রাহকদের টাকা হাতিয়ে নেয়ার পায়তারা করে। পরে তাদের কথাবার্তা ও আচরণ দেখে সন্দেহ হলে ব্যাংক ম্যানেজার পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে প্রতারনার অভিযোগে তিনজনকে আটক করে। আটকের সময় তাদের কাছ থেকে সোনালী ব্যাংকের ভুয়া রসিদ, চেকবই, সিল, পরিচয়পত্র, নগদ ৫০ হাজার টাকা ও তাদের ব্যবহৃত একটি প্রাইভেট কার উদ্ধার করা হয়।

অপরদিকে, জীবননগরে ডাকাতির ঘটনায় দুই ডাকাত সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃতা হলো- সদর উপজেলার মোমিনপুর গ্রামের মুকুল আলীর ছেলে সোহাগ আলী (২৮) ও জীবননগর উপজেলার সেনেরহুদা গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে আশরাফুল ইসলাম (৩০)।

সম্প্রতি জীবননগর উপজেলার সন্তোষপুর গ্রামে ৯টি বাড়ি এবং ওই এলাকার কবরস্থানের সামনে ডাকাতির ঘটনায় দুই ডাকাত সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের উভয়কে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোহাম্মদ কলিমুল্লাহ, জীবননগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গনি মিয়া, আলমডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুন্সি আসাদুজ্জামানসহ পুলিশের ঊর্ধতন কর্মকর্তারা।

আআই/জেডএস/

 

খুলনা: আরও পড়ুন

আরও