সহকর্মী ধর্ষণে প্রধান শিক্ষকের যাবজ্জীবন

ঢাকা, রবিবার, ১৬ জুন ২০১৯ | ২ আষাঢ় ১৪২৬

সহকর্মী ধর্ষণে প্রধান শিক্ষকের যাবজ্জীবন

কুষ্টিয়া ও মেহেরপুর প্রতিনিধি ২:৩৮ অপরাহ্ণ, মে ২১, ২০১৯

সহকর্মী ধর্ষণে প্রধান শিক্ষকের যাবজ্জীবন

কুষ্টিয়া শহরের আবাসিক হোটেলে সহকর্মীকে ধর্ষণের মামলায় একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শরিফুল ইসলামকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

একই সঙ্গে ১ লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেয়া হয়।

মঙ্গলবার কুষ্টিয়ার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মুন্সী মো. মশিয়ার রহমান এ রায় দেন।

শরিফুল ইসলামের (৩৫) বাড়ি মেহেরপুরের মুজিবনগর উপজেলার ভবেরপাড়া গ্রামে। তিনি স্থানীয় একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। ঘটনার পর তাকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছিল।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০১৬ সালের ১৩ মে নিবন্ধন পরীক্ষায় অংশ নিতে কুষ্টিয়ায় আসেন মেহেরপুরের আম্রকানন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শরিফুল ইসলাম ও ওই শিক্ষিকা।

এ সময় শহরের একটি আবাসিক হোটেলে মামা-ভাগ্নি পরিচয় দিয়ে পাশাপাশি দুটি কক্ষ ভাড়া নেন তারা। পরের দিন ওই শিক্ষিকার রুমে ঢুকে তাকে ধর্ষণ করেন শরিফুল।

পরে অসুস্থ অবস্থায় নির্যাতিতাকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

অসুস্থ অবস্থায় ওই শিক্ষিকা স্থানীয় থানা ও জেলা প্রশাসনকে বিষয়টি জানান। পরে এ ঘটনায় কুষ্টিয়া মডেল থানায় ধর্ষণের অভিযোগে মামলা করেন তিনি। পুলিশ তদন্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দেয়।

এএকে/আইএম