শ্রমিক নেতাকে মারধর, ভোমরা বন্দরে পণ্য খালাস বন্ধ

ঢাকা, রবিবার, ২৬ মে ২০১৯ | ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

শ্রমিক নেতাকে মারধর, ভোমরা বন্দরে পণ্য খালাস বন্ধ

সাতক্ষীরা প্রতিবেদক ২:০৫ অপরাহ্ণ, মে ১৪, ২০১৯

শ্রমিক নেতাকে মারধর, ভোমরা বন্দরে পণ্য খালাস বন্ধ

শ্রমিক নেতাকে মারধরের প্রতিবাদে সাতক্ষীরার ভোমরা স্থল বন্দরে পণ্য খালাস বন্ধ করে দিয়েছেন শ্রমিকরা। একই সময়ে তারা বন্দর এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছেন।   

হ্যান্ডলিং শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি এরশাদ আলীর ওপর বহিরাগতদের দুই দফা হামলার প্রতিবাদে মঙ্গলবার (১৪ মে) সকাল থেকে পণ্য খালাস বন্ধ করে দেয় শ্রমিকরা।

একাধিক শ্রমিক নেতা জানায়, ভোমরা ট্রাক টার্মিনালে গাড়ি পার্কিং এবং চাঁদাবাজি করছিলেন শাওন নামের এক যুবক ও তার সঙ্গীরা। এর প্রতিবাদ করায় শাওন তার লোকজন নিয়ে রোববার হামলা করে শ্রমিক নেতা এরশাদ আলীর ওপর। এ ঘটনায় সাতক্ষীরা থানায় মামলা দিয়ে ফেরার পথে সোমবার রাতে এরশাদের ওপর আবারও হামলা করে সন্ত্রাসীরা।

পুলিশ এ ঘটনায় আরিফ ও জুয়েল নামের দুইজনকে গ্রেফতার করেছে।

এদিকে এ হামলার প্রতিবাদে শ্রমিকরা ভারতীয় ট্রাক থেকে আমদানি পণ্য খালাস করা বন্ধ করে দিয়েছেন।

হ্যান্ডলিং শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক তরিকুল ইসলাম জানান, হামলাকারীদের গ্রেফতার ও বিচার না হওয়া পর্যন্ত তারা কাজে ফিরবেন না।

পণ্য খালাস না হওয়ায় বিপুল সংখ্যক ভারতীয় ট্রাক ভোমরা ও ঘোজাডাঙ্গা বন্দর সীমান্তে দাঁড়িয়ে রয়েছে।

অপরদিকে আমদানি পণ্য বহনের জন্য বাংলাদেশি ট্রাকগুলোও বেকার দাঁড়িয়ে রয়েছে। এতে বন্দরে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।

এআরই