কোনো হুমকিতে পিছু হটব না: রাশেদ (ভিডিও)

ঢাকা, শনিবার, ২৩ মার্চ ২০১৯ | ৯ চৈত্র ১৪২৫

কোনো হুমকিতে পিছু হটব না: রাশেদ (ভিডিও)

শাহরিয়ার আলম সোহাগ, ঝিনাইদহ ৪:২১ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৪, ২০১৯

কোনো হুমকিতে পিছু হটবেন না জানিয়েছেন কোটা সংস্কার আন্দোলনে নেতৃত্বদানকারী বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক মো. রাশেদ খাঁন।

তিনি বলেছেন, যত প্রকার হুমকি দেওয়া হোক না কেন ছাত্রসমাজের অধিকার আদায়ের জন্য কাজ করে যাব। কোনো হুমকিতে পিছু হটবো না ইনশাআল্লাহ।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার মুরারীদহ গ্রামের নিজ বাড়িতে এই প্রতিবেদকের সাথে আলাপকালে এসব কথা বলেন রাশেদ খাঁন।

এর আগে বধুবার দুর্বৃত্তরা রাশেদের বাড়িতে গিয়ে তার মাকে হুমকি দেয়- ‘পুনরায় কোনো আন্দোলনে নেতৃত্ব দিলে ছেলেকে গুলি করে মেরে ফেলা হবে’।

এ হুমকির পর রাশেদের মা সালেহা বেগম হৃদরোগে আক্রান্ত হন। এসময় তাকে ঝিনাইদহ ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মায়ের অসুস্থতার খবর পেয়ে রাতেই গ্রামের বাড়িতে চলে আসেন রাশেদ।

বর্তমানে রাশেদের মা সুস্থ আছেন। আজ সকালে তাকে হাসপাতাল থেকে বাড়িতে নিয়ে আসা হয়েছে।

রাশেদ খাঁন বলেন, কোটা সংস্কার আন্দোলনের সাথে জড়িতদের বিভিন্ন সময় হুমকি-ধামকি দেয়া হয়েছে। আমার পরিবারকে হেনস্তা করার চেষ্টা করেছে। তারপরও আমরা কিন্তু ছাত্রদের অধিকার আদায়ের জন্য সামনের দিকে এগিয়ে গিয়েছি।

কোটা সংস্কার আন্দোলনের এই নেতা বলেন, বুধবার সন্ধ্যায় দুইজন ব্যক্তি বাড়িতে এসে আমাকে গুলি করে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। পুনরায় যেন আমি কোনো প্রকার আন্দোলনে নেতৃত্ব না দিই। এর আগেও এই দুই ব্যক্তি আমাদের বাড়িতে এসে বিভিন্ন তথ্য নিয়ে গেছে।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এমন হুমকি আগেও দেওয়া হয়েছে। আমি এই হুমকিতে পিছু হটবো না, বিচলিত না।

তিনি বলেন, ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি মো. মিজানুর রহমান সাহেবের সাথে আমি কথা বলেছি। তিনি আমাকে এরপর কেউ বাড়িতে গেলে তাকে জানাতে বলেছেন।

পরাজিত জিএস প্রার্থী ডাকসু নির্বাচন প্রসঙ্গে বলেন, ভোট ডাকাতি কীভাবে হয়েছে সেটা গণমাধ্যমে আপনারা দেখেছেন। সুষ্ঠু নির্বাচন হলে শুধু ভিপি ও সমাজসেবা পদে না, বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র সংগ্রাম পরিষদ পুরো প্যানেল বিপুল ভোটের ব্যবধানে জয়লাভ করতো। আমরা এই নির্বাচন বাতিল চেয়ে পুনঃতফসিলের জন্য আন্দোলন করছি।

রাশেদ খাঁনের মা সালেহা বেগম এই প্রতিবেদককে বলেন, গতকাল দুই ব্যক্তি এসে আমার ছেলেকে এসব (আন্দোলন) করতে নিষেধ করে। তারা বলেন, ছেলেকে বোঝাও, না হলে এরপরে ক্ষতি হলে আমরা কিছু করতে পারবো না। ঢাকা শহরে অনেক অস্ত্র-গুলি থাকে। ২০/৩০ হাজার টাকা দিলে যে কেউ মেরে দিতে পারে।

তিনি বলেন, এসময় আমার মেয়ে তাদের বলে, আমার ভাই কি একা করেছে নাকি। এসময় তারা বলেন, সরকারের বিরুদ্ধে গেলে ২২৫ জন মেরে দিলে কিছু যায় আসে না।

এসবি

আরও পড়ুন...
ছেলেকে গুলি করে মারার হুমকিতে রাশেদের মা হৃদরোগে আক্রান্ত