হজ নিয়ে ইরানের সঙ্গে সৌদির সমঝোতা

ঢাকা, ৬ জুন, ২০১৯ | 2 0 1

হজ নিয়ে ইরানের সঙ্গে সৌদির সমঝোতা

পরিবর্তন ডেস্ক ৭:৫৬ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৭, ২০১৮

হজ নিয়ে ইরানের সঙ্গে সৌদির সমঝোতা

২০১৫ সালের হজ মৌসুমে দুর্ঘটনা কবলিত ইরানি হাজিদের ক্ষতিপূরণসহ আগামী হজ মৌসুমে ৮৬ হাজার ৫শ’ ইরানির অংশগ্রহণ বিষয়ে রিয়াদের সঙ্গে পারস্পরিক সমঝোতার কথা ঘোষণা করেছে তেহরান।

ফারেস নিউজ এজেন্সির রিপোর্ট অনুযায়ী, ইরানের হজ বিষয়ক সংগঠনের নতুন সভাপতি আলী রেজা রশিদিয়ান জানান, ৮৪ হাজার ইরানি, সঙ্গে অতিরিক্ত ২ হাজার ৫শ’ সেবক, চিকিৎসক ও প্রশাসনিক কর্মীসহ মোট ৮৬ হাজার ৫শ’ ইরানি হজব্রত পালন করবেন।

তিনি বলেন, দু’পক্ষের প্রস্তাবনা নিয়ে সৌদি আরবের আমন্ত্রণে মক্কা মুকাররমায় পারস্পরিক আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। এখানেই ইরানিদের হজে অংশগ্রহণ বিষয়ে সমঝোতা হয়।

পাশাপাশি আলী রেজা জেদ্দায় ইরানিদের স্বার্থরক্ষা সংক্রান্ত একটি অফিস নির্মাণের দিকেও ইঙ্গিত করেন।

উল্লেখ্য, ২০১৫ সালের হজ মৌসুম পরপর দুটি দুর্ঘটনার সাক্ষী হয়। প্রথমটি সঙ্ঘটিত হয় ১১ সেপ্টেম্বর। এদিন শক্তিশালী ঝড়ের ফলে সৃষ্ট বায়ুপ্রবাহের সময় নির্মাণ কাজে নিয়োজিত বিশাল আকৃতির একটি ক্রেন উপর থেকে মক্কার মসজিদে হারামের ছাদসহ ভেঙে পড়ে। এতে ১০৭ হাজি নিহত হন, আহত হন অন্তত ২৩৮ জন।

অপর দুর্ঘটনাটি একই মাসের ২৪ তারিখে মিনায় সঙ্ঘটিত হয়। এ সময় পদদলনের ঘটনায় বহু সংখ্যক হাজি আহত ও নিহত হন। কেবল ইরানেরই নিহত হন সর্বাধিক সংখ্যক ৪৬৪ হাজি।

আনাদোলু এজেন্সির রিপোর্ট অনুযায়ী, সার্বিক তত্ত্বাবধানের জন্য জেদ্দায় একটি অফিস প্রতিষ্ঠা করার দিকে লক্ষ্য করে ইরানের হজ মিশনের প্রধান আলী কাজী আসকার বলেন, বিগত বছরগুলোর তুলনায় সৌদির পক্ষ থেকে এবারের সমঝোতা আলোচনা উত্তম শর্তাবলীর সঙ্গে হয়েছে।

২০১৬ সালের জানুয়ারিতে সৌদি সরকার সন্ত্রাসবাদের অভিযোগে অভিযুক্ত শিয়াদের ধর্মীয় ব্যক্তিত্ব নামির বাকির আল-নামিরের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করলে এ ঘটনায় ক্রুদ্ধ হয়ে বিক্ষোভকারীরা রাজধানী তেহরানে সৌদি দূতাবাস ও উত্তর-পূর্ব ইরানের মাশহাদ শহরে কনস্যুলেট ভবনে হামলা করে। এরপর থেকে রিয়াদ ও তেহরানের মধ্যে সর্বপ্রকার কূটনৈতিক সম্পর্ক বিচ্ছিন্ন রয়েছে।

এমএফ/আইএম

 

ইসলামি সংবাদ: আরও পড়ুন

আরও