ইসলাম ইস্যুতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে জার্মান চ্যান্সেলরের জবাব

ঢাকা, সোমবার, ২৩ জুলাই ২০১৮ | ৭ শ্রাবণ ১৪২৫

ইসলাম ইস্যুতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে জার্মান চ্যান্সেলরের জবাব

পরিবর্তন ডেস্ক ৫:৩৯ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৭, ২০১৮

print
ইসলাম ইস্যুতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে জার্মান চ্যান্সেলরের জবাব

জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মেরকেল বলেছেন, অবশ্যই জার্মানি আর ইসলাম পরস্পর সম্পৃক্ত। খ্রিস্টান ও ইয়াহুদি ধর্মের মতো ইসলামও এই দেশেরই অংশ।

‘জার্মানির সঙ্গে ইসলাম যায় না’ জার্মানির নতুন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হর্স্ট সিহোফার এমন মন্তব্যের জবাবে শুক্রবার তিনি একথা বলেন।

বহুল প্রচারিত বিল্ড সংবাদপত্রকে দেয়া সাক্ষাৎকারে সিহোফার বলেছিলেন, জার্মানিকে ‘গড়ে তুলেছে খৃষ্টান মতবাদ’ এবং তার দেশের উচিত হবে না নিজের ঐতিহ্য ভুলে যাওয়া।

তবে ‘যেসব মুসলিম আমাদের সাথে জার্মানিতে বাস করছে তারা অবশ্যই জার্মানির অংশ’ এই কথাও সাক্ষাৎকারে বলেন সিহোফার।

ক্রিশ্চান সোশ্যাল ইউনিয়ন (সিএসইউ)-এর নেতা সিহোফার আবেদন প্রত্যাখ্যাত আশ্রয়প্রার্থীদের দেশ থেকে বের করে দিতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। এসব আশ্রয়প্রার্থীদের বেশির ভাগই মুসলিম।

প্রসঙ্গত, ২০১৫ সালে মেরকেল সিরিয়ার শরণার্থীদেরকে তার দেশে প্রবেশের অনুমতি দিলে ১০ লাখেরও বেশি অভিবাসী জার্মানিতে গিয়ে আশ্রয় নেয়।

শুক্রবার সুইডিশ প্রধানমন্ত্রী স্টেফানে লোফভেনের সঙ্গে বার্লিনে এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে মেরকেল আরও বলেন, আমাদের দেশের বেশির ভাগজুড়ে রয়েছে খ্রিস্টধর্মের উপস্থিতি। ইহুদি ধর্মও আমাদের ইতিহাস ও সংস্কৃতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে। আর এখন ৪০ লাখের বেশি মুসলিম এখানে বাস করছেন, তাদের ধর্ম পালন করছেন। মুসলিমরা এই দেশের মানুষ। তাদের ধর্ম ইসলামও এই দেশের সঙ্গেই সম্পর্কিত।

পশ্চিম ইউরোপে ফ্রান্সের পরেই সবচেয়ে বেশি মুসলিম বাস করেন জার্মানিতে। দেশটিতে সাম্প্রতিক সময়ে অব্যাহতভাবে ইসলাম-বিদ্বেষ বাড়ছে। মুসলিমদের ওপর বিদ্বেষমূলক হামলার পাশপাশি মসজিদের ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা বেড়েছে।

এফএস/এমএসআই

আরও পড়ুন...
জার্মানির সাথে ইসলাম যায় না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

 
.

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ




আলোচিত সংবাদ