কর্মমুখর জীবন যাপনে মুসলমানের তিন পদক্ষেপ

ঢাকা, সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯ | ২৯ আশ্বিন ১৪২৬

কর্মমুখর জীবন যাপনে মুসলমানের তিন পদক্ষেপ

পরিবর্তন ডেস্ক ৭:৩৭ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ০২, ২০১৯

কর্মমুখর জীবন যাপনে মুসলমানের তিন পদক্ষেপ

আমরা যা কিছুই করি না কেন, মুমিন-মুসলমান হিসেবে আমাদের সকলেরই উচিত আমাদের কাজগুলো যথাযথ ও উত্তমভাবে সম্পন্ন করা। নিজেদের উন্নত করতে আমাদের উচিত উঁচু লক্ষ্য নির্ধারণের সঙ্গে ধারাবাহিকভাবে কাজ করে যাওয়া।

জীবনকে আরও কর্মমুখর করতে ও একটি সফল জীবন পেতে আমরা নিচের তিনটি সহজ পদক্ষেপ অনুসরণ করতে পারি।

১. দৃঢ় লক্ষ্য
দৃঢ় লক্ষ্য ও নিয়ত যেকোন কাজেরই ভিত্তি ও মৌলিক উপাদান হিসেবে কাজ করে। আমাদের বিশ্বাস আমাদের শিক্ষা দেয়, আমাদের কাজের পেছনের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য মৌলিকভাবে গুরুত্বপূর্ণ। যে কাজই আপনি করুন না কেন, তার জন্য আন্তরিক ও দৃঢ় লক্ষ্য নির্ধারণ করুন।

রাসূল (সা.) বলেছেন, “সকল কাজই তার উদ্দেশ্য দ্বারা বিবেচিত হবে। একজন ব্যক্তি তার কাজের উদ্দেশ্যের জন্যেই পুরস্কৃত হবে।” (বুখারী, মুসলিম)

আমাদের ধর্ম ইসলামই আমাদেরকে কাজের লক্ষ্যের প্রতি মনোযোগী হতে শিক্ষা দেয়। আল্লাহর কাছে আমাদের অন্তর, আমাদের নিয়ত কোন কিছুই গোপন নেই। আমাদের ভালো নিয়তের জন্য আমরা তাই অন্তরের দিক থেকে প্রশান্ত থাকতে পারি সকল প্রতিকূলতা স্বত্ত্বেও, কেননা আল্লাহ আমাদের উদ্দেশ্য সম্পর্কে জানেন। আমাদের শুধু প্রয়োজন আমাদের লক্ষ্যকে শুধু দুনিয়ার লক্ষ্যেই নয়, বরং আখেরাতে আমাদের কল্যানের জন্যও নির্ধারণ করা।

২. বাস্তবায়নের উদ্যোগ
কোন লক্ষ্য বাস্তবায়নের অর্থ মূলত সেই লক্ষ্য পূরনের জন্য যথার্থ বাস্তব পদক্ষেপ গ্রহণ করাকে বোঝায়। আপনার যাবতীয় সমস্যা, ত্রুটি ও ব্যর্থতার জন্য নিজেকে দায়িত্ব নিয়ে তার সমাধানের প্রচেষ্টা করতে হবে।

কোন লক্ষ্য বাস্তবায়ন মুখের কথা নয় যে, সাথে সাথে তা বাস্তবায়িত হয়ে যাবে। বরং এর জন্য নিরন্তর শ্রম ও প্রচেষ্টা ব্যয় করতে হয়। যাই করেন না কেন, তা যথার্থভাবে অবিরাম পরিশ্রমের মাধ্যমে বাস্তবায়নের চেষ্টা করতে থাকুন, আজ না হোক কাল, সাফল্য আপনার হাতে ধরা দেবেই ইনশাআল্লাহ।

৩. প্রতিনিয়ত দুআ করা
আল্লাহর কাছে অবিরাম দুআ করতে থাকুন। দুআ মূলত আপনার সাথে আল্লাহর যোগাযোগের মাধ্যম। দুআর মাধ্যমেই আমরা আল্লাহর কাছে আমাদের চাহিদা সম্পর্কে জানাতে পারি এবং আমাদের কাজে সাহায্যের জন্য প্রার্থনা করতে পারি। মুসলমান হিসেবে আমাদের আশা ত্যাগ করার কোন অর্থ হতে পারে না। কুরআনে আল্লাহ বলেছেন,
وَإِذَا سَأَلَكَ عِبَادِي عَنِّي فَإِنِّي قَرِيبٌ ۖ أُجِيبُ دَعْوَةَ الدَّاعِ إِذَا دَعَانِ ۖ فَلْيَسْتَجِيبُوا لِي وَلْيُؤْمِنُوا بِي لَعَلَّهُمْ يَرْشُدُونَ
“আর আমার বান্দারা যখন তোমার কাছে জিজ্ঞেস করে আমার ব্যাপারে, বস্তুত আমি রয়েছি সন্নিকটে। যারা প্রার্থনা করে, তাদের প্রার্থনা কবুল করে নেই, যখন আমার কাছে প্রার্থনা করে।” (সূরা বাকারা, আয়াত: ১৮৬)

আল্লাহ আমাদের সকল কাজে এবং আমাদের অলস জীবনের পরিবর্তে কর্মমুখর জীবন যাপনে সাহায্য করুন। আমীন।

এমএফ/

আরও পড়ুন...
আয় বাড়াতে যে আমলগুলো করবেন
স্বচ্ছলতা লাভের ৬ কুরআনি পরামর্শ
কোন মানদণ্ডে আপনি জীবনের সফলতা মাপছেন?
আত্মোন্নয়নে নতুন বছরে নিন ১২ পরিকল্পনা
মুসলমানদের সহনশীলতার পাঁচ দৃষ্টান্ত
অফিসের কাজে অবহেলা করাও কি গুনাহ?

 

বিবিধ: আরও পড়ুন

আরও