‘আল্লাহ সুন্দর পছন্দ করেন!’

ঢাকা, ১২ এপ্রিল, ২০১৯ | 2 0 1

‘আল্লাহ সুন্দর পছন্দ করেন!’

মেহেদী হাসান সাকিফ ৪:৫৭ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৫, ২০১৮

‘আল্লাহ সুন্দর পছন্দ করেন!’

ইসলামে ঈমানের প্রধান স্তম্ভ হিসেবে নামাজ রোজা যেমন গুরুত্বপূর্ণ তেমনি পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতাও কম গুরুত্বপূর্ণ নয়। সচ্চরিত্রবান মানুষের একটি প্রধান গুণ হচ্ছে মন পরিষ্কার রাখার পাশাপাশি দেহও পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখা। নোংরা, ময়লা দুর্গন্ধযুক্ত থাকা ঈমানদারের স্বভাব নয়। মুমিন সবসময় পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকবে। পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন ব্যক্তিকে সবাই ভালোবাসে। আল্লাহ তায়ালাও তাদের ভালোবাসেন। আল্লাহ এ ব্যাপারে পবিত্র কুরআনে বলেছেন, ‘নিশ্চয় আল্লাহ তওবাকারীদের এবং যারা অতিপবিত্র থাকে তাদের ভালোবাসেন।’ (সূরা বাকারা, আয়াত : ২২২)

ইসলামি শরিয়া মানুষের পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার জন্য ওজু, গোসল, তায়াম্মুম ও মিসওয়াকের বিধান প্রবর্তন করেছে। আবু মালিক আশআরি (রা.) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন, ‘পবিত্রতা ঈমানের অর্ধেক।’ (সহিহ মুসলিম : ৫৫৬)

দৈনিক ওজু গোসল মিসওয়াকের মাধ্যমে অপরিচ্ছন্নতা ও অপবিত্রতা দূরীভূত হয়ে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা ও পবিত্রতা অর্জিত হয়। আমাদের নিত্য জীবনে নানাভাবে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার বিষয় জড়িত। যেমন : গোসল ফরজ হলে গোসল করা, প্রসাব-পায়খানার পর ওজু করা, দাঁত ও মুখ পরিষ্কার করা এবং বাড়ি ও এর সম্মুখভাগ পরিষ্কার করা ইত্যাদি। এসবের মাধ্যমে মানুষের সুন্দর চরিত্র ও সুরুচির বিকাশ ঘটে। লোকমাঝে সে সভ্য ও ভদ্রবলে বিবেচিত হয়।

অনেকে মনে করেন ইসলামে এলোমেলো দরবেশি বেশই বেশি কাম্য। এ ধারণা সঠিক নয়। ইসলাম যে সাধাসিধা জীবন পছন্দ করে, সেটার অর্থ অপরিচ্ছন্নতা বা এলোমেলো বেশ নয়। বরং পোশাকে বাহুল্য ও লৌকিকতামুক্ত হওয়া এবং আড়ম্বরমুক্ত হওয়াই কামনা করে ইসলাম। প্রত্যেকে যার যার সামর্থ্য অনুযায়ী পরিচ্ছন্ন পরিপাটি পোশাক পরবে সেটাই ইপ্সিত। পোশাক প্রসিদ্ধি বা অহংকার প্রকাশের উদ্দেশ্যে না হলে সুন্দর বা দামি হওয়াতেও সমস্যা নেই। এক ব্যক্তি নবীজি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের সামনে বললেন, আমি পছন্দ করি আমার পোশাক সুন্দর হোক এবং আমার জুতা সুন্দর হোক। রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বললেন, ‘আল্লাহ সুন্দর, তিনি সৌন্দর্য পসন্দ করেন। অহংকার হলো হককে অস্বীকার করা এবং মানুষকে তুচ্ছ জ্ঞান করা।’ (তিরমিজি : ১৯৯৯)।

আল্লাহ আমাদের অনিন্দ্য সুন্দর অবয়বে সৃষ্টি করে সকল সৃষ্টির ওপর শ্রেষ্ঠত্ব দিয়েছেন। আল্লাহ পছন্দ করেন তার বান্দা পরিচ্ছন্ন দেহ-মন নিয়ে পরিপাটি জীবনযাপন করুক। অপরিচ্ছন্ন এলোমেলোভাবে থাকা ইসলামে মোটেও পছন্দনীয় নয়। তা বরং ইসলামে নিন্দনীয়। জাবের বিন আবদুল্লাহ (রা.) বলেন, একদা আল্লাহর রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আমাদের নিকট এসে এক ব্যক্তির মাথায় আলুথালু চুল দেখে বললেন, ‘এর কি এমন কিছুই নেই যার দ্বারা মাথার এলোমেলো চুলগুলোকে (আচড়ে) নেয়?’ আর এক ব্যক্তির পরনে ময়লা কাপড় দেখে বললেন, ‘এর কি এমন কিছুই নেই যার দ্বারা ময়লা কাপড় পরিষ্কার করে নেয়।’ (আবু দাউদ : ৪০৫৬)

এএইচটি

 

বিবিধ: আরও পড়ুন

আরও