ফেসবুক-গুগলে বিজ্ঞাপন বন্ধ করছে নিউজিল্যান্ডের কোম্পানিগুলো

ঢাকা, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | 2 0 1

ফেসবুক-গুগলে বিজ্ঞাপন বন্ধ করছে নিউজিল্যান্ডের কোম্পানিগুলো

পরিবর্তন ডেস্ক ৪:৪৫ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৮, ২০১৯

ফেসবুক-গুগলে বিজ্ঞাপন বন্ধ করছে নিউজিল্যান্ডের কোম্পানিগুলো

শুক্রবার মসজিদে হত্যাযজ্ঞের ভিডিও বন্দুকধারী লাইভ প্রচার করায় ফেসবুক ও গুগলে বিজ্ঞাপন দেয়া বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নিউজিল্যান্ডের বৃহত্তম কোম্পানিগুলো। নৃশংস এই সন্ত্রাসী হামলায় নিহত হয়েছেন ৫০ জন।

একটি গো-প্রো ক্যামেরা ব্যবহার করে হামলাকারী আল নূর মসজিদে বীভৎস হত্যাকাণ্ডের ভিডিও লাইভ করে ফেসবুকে। হামলার পরে বহু ঘণ্টা ধরে সামাজিক মাধ্যমে দেখা যাচ্ছিল এই লাইভস্ট্রিম।

ফেসবুক লাইভ স্ট্রিমিং করা ছাড়াও ১৭ মিনিটের ভিডিওটি বারবার শেয়ার করা হয় ইউটিউব ও টুইটারে। অবশেষে এটি সরিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয় বৃহত্তম সামাজিক মাধ্যমগুলো।

সোমবার নিউজিল্যান্ড হেরাল্ড জানায়, নিউজিল্যান্ডের প্রতিষ্ঠানগুলোর এই জোটের মধ্যে এএসবি ব্যাংক, লোট্টো এনজেড, বার্গার কিং, ও স্পার্কের মতো ব্র্যান্ড। ইন্টারনেটে অনিয়ন্ত্রিত কন্টেন্টের কারনে যে ক্ষতি হচ্ছে তার বিরুদ্ধে রুখে দাড়াতে এসব প্রতিষ্ঠান জোটবদ্ধ হয়েছে।

প্রাথমিক পর্যায়ে এই প্রতিষ্ঠানগুলো কতটা ব্যাপকভাবে বিজ্ঞাপন প্রত্যাহার করবে বা কোন সময়সীমার জন্য তারা এটা করবে তা জানা যায়নি।

অন্যান্য বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানও স্বাধীনভাবে একই রকম পদক্ষেপ নিচ্ছে বলে জানায় দ্য নিউজিল্যান্ড হেরাল্ড।

শুক্রবার (মার্চ ১৫) আল নূর মসজিদ আর লিনউড অ্যাভিনিউজ মসজিদের হত্যাযজ্ঞের অল্প কিছুক্ষণের মধ্যে ডিজিটাল বিজ্ঞাপন বন্ধ করে দেয় কিউইব্যাংক।

রোববার নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আরডার্ন বলেন, তিনি ফেসবুকের কাছে জানতে চাইবেন বন্দুকধারী ওই হত্যাযজ্ঞ কীভাবে লাইভ প্রচার করতে পারল।

ফেসবুক জানিয়েছে, হামলার প্রথম ২৪ ঘণ্টায় তারা তাদের প্ল্যাটফর্ম থেকে ১৫ লক্ষ ভিডিও সরিয়েছে।

এবারই প্রথম এসব প্ল্যাটফর্ম থেকে বিজ্ঞাপন প্রত্যাহার করছে না নিউজিল্যান্ডের কোম্পানিগুলো।

শিশুদের সঙ্গে যৌনাচার বিষয়ক কনটেন্টে উদ্বিগ্ন হয়ে এ মাসেই টেলিকম কোম্পানি স্পার্ক ইউটিউব থেকে তাদের বিজ্ঞাপন সরিয়ে নেয়।

ওই সময়ই আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রেও একই রকম পদক্ষেপ নেয় কয়েকটি প্রতিষ্ঠান। ইউটিউব থেকে বিজ্ঞাপন সরিয়ে নেয় ডিজনি ও নেসলে।

এমআর/এএসটি

 

আন্তর্জাতিক: আরও পড়ুন

আরও