পরিবর্তনে প্রতিবেদন: মেলায় আঁকিয়েরা পেলেন সম্মান

ঢাকা, বুধবার, ১৫ আগস্ট ২০১৮ | ৩১ শ্রাবণ ১৪২৫

পরিবর্তনে প্রতিবেদন: মেলায় আঁকিয়েরা পেলেন সম্মান

কামরুল হিরন ১১:০০ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ১৬, ২০১৮

print
পরিবর্তনে প্রতিবেদন: মেলায় আঁকিয়েরা পেলেন সম্মান

ওরা শিল্পী, ছবি আঁকে। সংখ্যায় ১০ থেকে ১২ অথবা ১৪ জন। আপনি দাঁড়ালেন, শুধুমাত্র পেন্সিলের আঁচড়ে কাগজের ক্যানভাসে ক্ষণিকেই ফুটিয়ে তুলবে হুবহু আপনারই মুখচ্ছবি।

যতই নাক ছিটকান। অন্যের হাতে ফুটে ওঠা নিজের মুখচ্ছবি দেখে মনে মনে ঠিকই খুশি হন। বাণিজ্য মেলাকে প্রকাশের মঞ্চ ভেবে এমন আঁকিয়েরা ছুটে আসেন বিভিন্ন জেলা থেকে রাজধানী শহরে।

অথচ এই আঁকিয়েরাই বসার জায়গা পান না বাণিজ্য মেলায়। দূর দূর করে তাদের তাড়িয়ে দেওয়া হয়। ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার গত আসরেও এমনটি ঘটেছিল। উঠে যেতে বলা হয়েছিল এসব চিত্রশিল্পীদের। এ নিয়ে এবার শুরুতেই পরিবর্তন ডটকম সচিত্র প্রতিবেদন করে।

গত ১০ জানুয়ারি ‘বাণিজ্য মেলায় পেন্সিলের আঁচড়ে আঁকিবুঁকির ক্যানভাস’ শিরোনামে প্রতিবেদনে উঠে আসে তাদের নিগৃহিত হবার কথা। এই প্রতিবেদনের পরই মেলায় সম্মান পেলেন আঁকিয়েরা।

গতকাল সোমবার একান্ত সাক্ষাতে ডিআইটিএফ পরিচালক আবু হেনা মোরশেদ জামান পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, ‘মেলা প্রাঙ্গণে চিত্রশিল্পীদের বসা নিয়ে লেখা প্রতিবেদনটি আমাদের চোখে পড়েছে এবং নীতিগতভাবে আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি মেলায় আসা এসব শিল্পীদের আমরা আর উঠে যেতে বলব না। এখন থেকে তারা মেলায় বসে নির্বিঘ্নে ছবি আঁকতে পারবেন।’

আঁকুক না ওরা। ওদের মধ্যে থেকেই তৈরি হোক আজকের এসএম সুলতান অথবা জয়নুল আবেদিন, যোগ করেন তিনি।

ডিআইটিএফ কর্তৃপক্ষের নেওয়া সিদ্ধান্তের প্রতিক্রিয়ায় চিত্রশিল্পীদের প্রতিনিধি মুন্সীগঞ্জের রতন মৃধা পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, ‘আমরা আনন্দিত, আমাদের সম্মান পেয়ে। শিল্পীর মর্যাদায় নির্বিঘ্ন চিত্তে আমরা এখন থেকে বাণিজ্য মেলায় ছবি আঁকতে পারব, ভাবতেই অনেক ভালো লাগছে। এখন থেকে নিজেদের আর ছোট মনে হবে না।’

কেএইচ/আইএম
আরও পড়ুন...
বাণিজ্য মেলায় পেন্সিলের আঁচড়ে আঁকিবুঁকির ক্যানভাস (ভিডিও)

 
.


আলোচিত সংবাদ