বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় এফবিসিসিআই সভাপতি হলেন শেখ ফজলে ফাহিম

ঢাকা, বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯ | ২৯ কার্তিক ১৪২৬

বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় এফবিসিসিআই সভাপতি হলেন শেখ ফজলে ফাহিম

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৮:৩৪ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২৯, ২০১৯

বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় এফবিসিসিআই সভাপতি হলেন শেখ ফজলে ফাহিম

ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন বাংলাদেশ শিল্প ও বণিক সমিতি ফেডারেশনের (এফবিসিসিআই) ২২তম সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন শেখ ফজলে ফাহিম।

বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ‘সম্মিলিত ব্যবসায়ী পরিষদ’ প্যানেল থেকে ২০১৯-২১ মেয়াদে তিনি নির্বাচিত হন।

সোমবার রাজধানীর মতিঝিলে ফেডারেশন ভবনে এফবিসিসিআইয়ের নির্বাচন কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক আলী আশরাফ নির্বাচনের ফল ঘোষণা করেন।

এফবিসিসিআইয়ের নবনির্বাচিত ৭১ জন পরিচালকের নিরঙ্কুশ সমর্থনে সভাপতি নির্বাচিত হন শেখ ফজলে ফাহিম।

একই সঙ্গে জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি হয়েছেন মো. মুনতাকিম আশরাফ।

২০১৯-২১ মেয়াদে চেম্বার গ্রুপ থেকে সহ-সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন হাসিনা নেওয়াজ, মো. রেজাউল করিম রেজনু ও দিলিপ কুমার আগারওয়ালা।

অ্যাসোসিয়েশন গ্রুপ থেকে সহ-সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন মো. সিদ্দিকুর রহমান, মীর নিজাম উদ্দিন আহমেদ ও নিজাম উদ্দিন রাজেশ।

ফল ঘোষণার সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা এবং এফবিসিসিআইয়ের সাবেক সভাপতি সালমান এফ রহমান উপস্থিত ছিলেন।

নব-নির্বাচিত সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম বলেন, আমার লক্ষ্য হলো, ব্যবসায়ীদের সর্বোচ্চ স্বার্থ সংরক্ষণ করা এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত ভিশন-২০৪১ বাস্তবায়নে ফেডারেশনের পক্ষ থেকে সর্বোচ্চ সহযোগিতা প্রদান করা।

‘আমি বিশ্বাস করি, সবার সহযোগিতায় অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি অর্জনে জাতীয় অবকাঠামো খাতের উন্নয়নসহ আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক বাণিজ্য নেটওয়ার্কে যুক্ত থেকে ফেডারেশন আগামী দুই বছর আরও অগ্রণী ভূমিকা পালন করবে। ফেডারেশনে আমাদের নির্ধারণ করা পাঁচটা লক্ষ্য ‘ইনস্টিটিউট ফর টেকনিক্যাল ভোকেশনাল এডুকেশন অ্যান্ড ট্রেনিং’, ‘এফবিসিসিআই বিশ্ববিদ্যালয়’, ‘আরবিটেশন সেন্টার’ প্রতিষ্ঠা, ‘ইকোনমিক ইনস্টিটিউট ফর ইকোনমিক পলিসি প্ল্যানিং অ্যান্ড ডিজাইন’, ‘এফবিসিসিআই আইকন’ প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে ফেডারেশনের অবস্থান সুদৃঢ় করতে চাই। ইনশাল্লাহ সকলের সহযোগিতায় আমার নেতৃত্বাধীন বোর্ড সফল হবে।’

শেখ ফজলে ফাহিমকে অভিনন্দন জানিয় সালমান এফ রহমান বলেন, ব্যবসা খাতের নেতৃত্ব আমরা পরবর্তী প্রজন্মের কাছে হস্তান্তর করছি। নব-নির্বাচিত সভাপতি, জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি এবং সহ-সভাপতিবৃন্দ ও বোর্ডের অধিকাংশ সদস্যই নতুন প্রজন্মের প্রতিনিধিত্ব করছে। এটা ভবিষ্যতের জন্য গুরুত্বপূর্ণ।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী ২০৪১ সাল নাগাদ বাংলাদেশকে একটি উন্নত রাষ্ট্র হিসেবে প্রতিষ্ঠা করতে চান, যা বেসরকারি খাতের সক্রিয় অংশগ্রহণ ছাড়া সম্ভব নয়। আমরা সরকারের পক্ষ থেকে একটা অনুকূল পরিবেশ তৈরির চেষ্টা করে যাচ্ছি, যাতে ব্যবসায়ীরা তাদের যথাযোগ্য ভূমিকা পালন করতে পারেন। আমি আশা করি, আসন্ন বাজেট ব্যবসায়ীবান্ধব হবে এবং তা বাস্তবায়নে ফেডারেশনের নব-নির্বাচিত নেতৃবৃন্দ যথাযথ ভূমিকা রাখবে।

ফেডারেশনের বর্তমান সভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন বলেন, অত্যন্ত স্বচ্ছতার সঙ্গে এবং পরিচালকদের নিরঙ্কুশ সমর্থনের মাধ্যমে আজ শেখ ফজলে ফাহিম ফেডারেশনের সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন। এ সংগঠনের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে তিনি ২০১৫ সাল থেকে দায়িত্ব পালন করে আসছেন এবং চলতি মেয়াদে জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি হিসেবে সফলতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়া তার নেতৃত্বাধীন প্যানেলের নেতা হিসেবে তিনি আগামী দুই বছরের জন্য যে লক্ষ্য স্থির করেছেন তা ব্যবসায়ী মহলে প্রশংসিত ও গ্রহণযোগ্য হয়েছে। তিনি আমার সভাপতিত্বের মেয়াদে জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি হিসেবে সময়োপযোগী বিভিন্ন লক্ষ্য ফেডারেশনের কার্যক্রমে যুক্ত করতে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেন। এবার তিনি সভাপতি নির্বাচিত হওয়ায় সেই লক্ষ্য বাস্তবায়নের ধারাবাহিকতা বজায় থাকবে।

এফএ/এএসটি

 

আমদানি-রপ্তানি: আরও পড়ুন

আরও