কিংবদন্তি অভিনেত্রী ডরিস ডে আর নেই

ঢাকা, রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯ | ৪ কার্তিক ১৪২৬

কিংবদন্তি অভিনেত্রী ডরিস ডে আর নেই

পরিবর্তন ডেস্ক ১০:০৩ অপরাহ্ণ, মে ১৩, ২০১৯

কিংবদন্তি অভিনেত্রী ডরিস ডে আর নেই

হলিউডের কিংবদন্তি অভিনেত্রী ডরিস ডে ৯৭ বছর বয়সে মারা গেছেন বলে সোমবার জানিয়েছে ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসি।

এক বিবৃতিতে ডরিস ডে অ্যানিম্যাল ফাউন্ডেশন জানায়, ডরিস সোমবার ক্যালিফোর্নিয়ার কারমেল ভ্যালিতে তার নিজ বাড়িতে মারা যান।

এতে বলা হয়, সম্প্রতি জটিল নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হওয়ার আগ পর্যন্ত ডরিসের স্বাস্থ্য তার বয়সের তুলনায় খুবই ভাল ছিল।

‘মৃত্যুর সময় তাকে ঘিরে ছিলেন অল্প কিছু ঘনিষ্ঠ বন্ধু,’ বলা হয় বিবৃতিতে।

বিভিন্ন জনপ্রিয় ও বিখ্যাত চলচ্চিত্রে অভিনয় করে সর্বকালের সেরা অভিনেত্রীদের মধ্যে জায়গা করে নিয়েছেন ডরিস।

গায়িকা থেকে নায়িকায় রূপান্তরিত হওয়া ডরিস অভিনীত চলচ্চিত্রগুলোর মধ্যে রয়েছে- ‘ক্যালামিটি জেন’, পিলো টক এবং কে সারা সারা (যা হবে তা হবে)- এর মতো বিভিন্ন বিখ্যাত ব্যবসাসফল চলচ্চিত্র।

হলিউডের আরেক তারকা রক হাডসনের সঙ্গে জুটি বেঁধে ডরিস গত শতাব্দীর ৫০ ও ৬০’র দশকে উপহার দিয়েছেন একের পর এক বক্স অফিস হিট সিনেমা।

এপ্রিল, ১৯২২-এ জন্ম নেয়া ডরিস ডে’র আসল নাম ম্যারি অ্যান ভন কাপেলহফ। ডরিস আসলে হতে চেয়েছিলেন নৃত্যশিল্পী। কিন্তু, একটি গাড়ি দুর্ঘটনায় তার ডান পা ভেঙে যাওয়ায় সেই স্বপ্ন ত্যাগ করেন তিনি।

এর বদলে ১৫ বছর বয়সে গানের ক্যারিয়ার শুরু করেন ডরিস। বিখ্যাত পরিচালক আলফ্রেড হিচককের ‘দ্য ম্যান হু নিউ টু মাচ’ এবং ‘দ্যাট টাচ অফ মিঙ্ক’ ডরিসকে বিশ্বজোড়া খ্যাতি এনে দেয়।

১৯৬০ সালে ‘পিলো টক’ চলচ্চিত্রের জন্য অস্কার মনোনয়ন পেলেও এই পুরস্কার যেটা হয়নি ডরিসের।

২০০৪ সালে ডরিসকে প্রেসিডেনশিয়াল মেডেল এবং ২০০৮ সালে গ্র্যামিতে আজীবন সম্মাননায় ভূষিত করা হয় ডরিসকে।

এমআর/আইএম

 

হলিউড ও অন্যান্য: আরও পড়ুন

আরও