শোভন-রাব্বানীর জন্য আড়াই ঘণ্টা বসে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী!

ঢাকা, ৫ আগস্ট, ২০১৯ | 2 0 1

শোভন-রাব্বানীর জন্য আড়াই ঘণ্টা বসে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী!

জবি প্রতিনিধি ৭:৪১ অপরাহ্ণ, জুলাই ২০, ২০১৯

শোভন-রাব্বানীর জন্য আড়াই ঘণ্টা বসে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী!

সম্মেলন ঘিরে নানা নাটকীয়তার জন্ম দিয়েছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ। শনিবার বেলা ১১টার সম্মেলন শুরু করেছে বিকেল ৩টায়।

প্রচণ্ড গরমে অসুস্থ হয়ে অনেকেই হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। এমনকি স্লোগান দিতে দিতে স্ট্রোকে সুলতান মোহাম্মদ ওয়াসি (২৩) নামে ইংরেজির এক ছাত্র মারা গেছেন।

সকাল থেকেই ক্যাম্পাসের যেদিকে চোখ যায়, সম্মেলনের টি-শার্ট পরে স্কুলশিক্ষার্থী থেকে শুরু করে রিকশাচালক, শ্রমিকদের পাওয়া গেছে।

তবে এসব ছাড়িয়ে আলোচনায় এসেছেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী। কারণ, সম্মেলনের প্রধান অতিথি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল আসারও আড়াই ঘণ্টা পরে তারা দু’জন এসেছেন।

এই দু’নেতার জন্য মন্ত্রী দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করেন। তারা আসার পর বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘আজকের বাংলাদেশে যা কিছু হয়েছে, সবই ছাত্রলীগের হাত ধরে। বায়ান্নর ভাষা আন্দোলন, চুয়ান্নর আন্দোলন, ছয় দফা, স্বাধীনতাযুদ্ধ— সবকিছুতেই ছাত্রলীগ অসামান্য অবদান রেখেছে।’

আসাদুজ্জামান বলেন, ‘ছয় দফা আন্দোলনের সময় তৎকালীন জগন্নাথ কলেজের ছাত্রলীগের নেতারা মিছিল না করলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নেতাকর্মীরা আন্দোলন করতে পারতো না। তখন থেকেই জগন্নাথ কলেজ ও পর্যায়ক্রমে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের শক্ত একটি ঘাঁটি। আগামীতেও এটি বজায় থাকবে বলে আশা করি।’

তিনি বলেন, ‘২০৪০ সালে আমরা উন্নত বাংলাদেশে পৌঁছে যাবে। তখনকার নেতৃত্ব দেবে ছাত্রলীগের নেতারা। নতুন নতুন নেতারা এসে আমাদের স্থান পূরণ করবে।’

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির উদ্দেশে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘নতুন নেতা নির্বাচনের ক্ষেত্রে অবশ্যই যাদের ছাত্রত্ব আছে, তাদের অগ্রাধিকার দিতে হবে। তারা এসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করবে।’

জবি ছাত্রলীগের সম্মেলন প্রস্তুত কমিটির আহ্বায়ক সাবেক সহ-সভাপতি আশরাফুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন, সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী প্রমুখ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন জবি ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি জামাল উদ্দিন।

সম্মেলনে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য অ্যাডভোকেট কাজী নজীবুল্লাহ হীরু, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম বাবু, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি বাচ্চু মিয়া, সাবেক সভাপতি কামরুল হাসান রিপন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক গাজী আবু সাঈদ প্রমুখ।

জেটিএ/আইএম

 

ক্যাম্পাস: আরও পড়ুন

আরও