তুচ্ছ ঘটনায় জাবির দুই হলের শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষ-গুলি, আহত ৬৫

ঢাকা, ৮ জুলাই, ২০১৯ | 2 0 1

তুচ্ছ ঘটনায় জাবির দুই হলের শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষ-গুলি, আহত ৬৫

জাবি প্রতিনিধি ৮:৩৯ অপরাহ্ণ, জুলাই ০৩, ২০১৯

তুচ্ছ ঘটনায় জাবির দুই হলের শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষ-গুলি, আহত ৬৫

গায়ে ধাক্কা লাগার মতো তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে জাহাঙ্গীরনরগ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) দুই হলের শিক্ষার্থীদের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষে পুলিশ, সাংবাদিক, শিক্ষকসহ অন্তত ৬৫ জন আহত হয়েছেন।

বুধবার বিশ্ববিদ্যালয়ের মওলানা ভাসানী হল ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের শিক্ষার্থীদের মাঝে ঘটেছে এমন ঘটনা।

সংঘর্ষে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিতে দেখা গেছে দুই হলের ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের। বিশ্ববিদ্যালয়ের বটতলা এলাকায় দুপুর সোয়া ২টা থেকে বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত লাঠি, রামদা, পিস্তল হাতে দুই হলের শিক্ষার্থীরা সংঘর্ষে লিপ্ত থাকেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুপুর ২টার দিকে বটতলার বেলালের দোকানে মওলানা ভাসানী হলের ৪৫তম ব্যাচের শিক্ষার্থী ছাত্রলীগকর্মী সৌরভ কাপালীর সঙ্গে ধাক্কা লাগে বঙ্গবন্ধু হলের ৪৬তম ব্যাচের শিক্ষার্থী ও ছাত্রলীগকর্মী দ্বীপ বিশ্বাসের। এ নিয়ে কথা কাটাকাটির জেরে দ্বীপ ও তার বন্ধু আলিফ হাসান দীপুকে চড়-থাপ্পড় মারে সৌরভ।

এ খবর বঙ্গবন্ধু হলে পৌঁছালে প্রতিশোধ নিতে শতাধিক শিক্ষার্থী লাঠি, চাপাতি, রামদাসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে বটতলা এলাকায় আসে। ভাসানী হলের শিক্ষার্থীরাও মারামারির প্রস্তুতি নিয়ে বটতলায় আসলে সংঘর্ষ বেধে যায়।
সংঘর্ষ চলাকালে বঙ্গবন্ধু হলের দিক থেকে ৮-১০ রাউন্ড গুলিবর্ষণের ঘটনা ঘটে। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল টিম, দুই হলের দায়িত্বরত শিক্ষকরা চেষ্টা করেও কোনো পক্ষকে নিবৃত্ত করতে পারেননি। পরে পুলিশ এসে বেশ কয়েক রাউন্ড গুলি ও টিয়ারশেল ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

এসময় ইটের আঘাতে আহত হন সহকারী প্রক্টর মহিবুর রৌফ শৈবাল ও বঙ্গবন্ধু হলের ওয়ার্ডেন মেহেদী ইকবাল।
সংঘর্ষের ভিডিও করতে গেলে দৈনিক সংবাদের বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি জোবায়ের কামালকে বঙ্গবন্ধু হলের ৪৪ ব্যাচের সিয়াম (নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগ)সহ কয়েকজন মারধর করে।

বিশ্ববিদ্যালয় মেডিকেল সেন্টারের কর্তব্যরত চিকিৎসক লিখন চন্দ্র বালা জানান, সংঘর্ষের ঘটনায় অন্তত ৬৫ জন শিক্ষার্থী প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ৪০ জনের মতো ভর্তি রয়েছেন।

বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে জানিয়ে ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর আ স ম ফিরোজ উল হাসান বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের আমারা হলে ফিরিয়ে দিয়েছি। যেকোনো অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি এড়াতে পুলিশ সতর্ক অবস্থানে রয়েছে। শিক্ষার্থীদের কাছে থাকা অস্ত্র উদ্ধারের বিষয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।’

শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি জুয়েল রানা বলেন, ‘সংঘর্ষে ছাত্রলীগের কেউ জড়িত থাকলে তাদের বিরুদ্ধে সংগঠন থেকে ব্যবস্থা নেয়া হবে। প্রশাসনকেও বলবো জড়িতদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়ার জন্য।’

এইচআর
আরও পড়ুন...
জাবিতে দুই ঘণ্টাব্যাপী রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ চলছে
জাবিতে দুই হলের শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষ, আহত ৬৫

 

ক্যাম্পাস: আরও পড়ুন

আরও