ভিপির দায়িত্ব নিতে শিক্ষার্থীদের মতকেই প্রাধান্য দেবেন নূর

ঢাকা, সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯ | ২৯ আশ্বিন ১৪২৬

ভিপির দায়িত্ব নিতে শিক্ষার্থীদের মতকেই প্রাধান্য দেবেন নূর

প্রীতম সাহা সুদীপ ৪:৫৪ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৯, ২০১৯

ভিপির দায়িত্ব নিতে শিক্ষার্থীদের মতকেই প্রাধান্য দেবেন নূর

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) ভিপি হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের ক্ষেত্রে সাধারণ শিক্ষার্থীদের মতামতকে প্রাধান্য দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন নুরুল হক নূর।

তিনি বলেন, ভিপি হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের ক্ষেত্রে সাধারণ শিক্ষার্থীরা যা চাইবেন সেটাই করবো। তারা যদি চায় আমি দায়িত্ব গ্রহণ করবো, আর যদি না চায় তাহলে দায়িত্ব নিব না। তাদের সাথে একমত পোষণ করে আন্দোলন চালিয়ে যাব।

মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।

ডাকসু ও হল সংসদের নবনির্বাচিত প্রতিনিধিদের নিয়ে প্রথম কার্যকরী সভা আগামী ২৩ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়ে দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

এমন অবস্থায় নূরের অবস্থান জানতে চাইলে তিনি বলেন, ২৩ তারিখ ডাকসুর প্রথম কার্যদিবস হলেও আমি মনে করি অনেক সময় আমাদের হাতে আছে। আমি আগে যে অবস্থানে ছিলাম, এখন পর্যন্ত সেই একই অবস্থানে আছি। 

নুরুল হক বলেন, যারা পুনঃনির্বাচন চাচ্ছেন তারা ইতোমধ্যে ভিসির সাথে দেখা করেছেন। ভিসি স্যার তাদের অভিযোগগুলো তদন্তের আশ্বাস দিয়েছেন। আরো যেসব সমস্যা হয়েছে তা সমাধানের আশ্বাস দিয়েছেন। এখন কিন্তু একটা প্রক্রিয়ার মধ্যেই সব চলছে, দেখা যাক কি হয়।

ভিসির কার্যালয়ের অবস্থান কর্মসূচিতে অনুপস্থিতির বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমার অসুস্থতার কারণে সেখানে উপস্থিত হতে পারিনি। তবে শিক্ষার্থীদের যেকোনো গ্রহণযোগ্য ও অধিকার আদায়ের আন্দোলনে শতভাগ সাথে থাকবে।

ডাকসুর নবনির্বাচিত এই ভিপি আরো বলেন, সাধারণ শিক্ষার্থীদের মনোভাব বুঝতে অসুস্থ থাকা স্বত্ত্বেও আমি ক্যাম্পাসে এসেছি। তারা যদি চায় আর আমি যদি ভিপি হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করি, তাহলে রাজনৈতিক কর্মসূচিতে অংশ নেয়ার বিনিময়ে হলের সিট দেওয়ার অপসংস্কৃতি বন্ধ করবো।

তিনি আরো বলেন, হলগুলোতে গণরুম, গেস্টরুম, ক্যান্টিনের খাবারের মান ‍উন্নয়ন, কেন্দ্রীয় লাইব্রেরিসহ হলগুলোতে রিডিং রুমের সমস্যাসহ সাধারণ শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে কাজ করবো। একইভাবে আমি সাধারণ শিক্ষার্থীদের চাওয়া পাওয়াকে প্রাধান্য দিয়ে সব আন্দোলন ও সংগ্রামে তাদের পাশে থাকবো।

গণভবনে যাওয়ার বিষয়ে নুরুল হক বলেন, সেখানে যাওয়ার বিষয়ে কেউ কেউ আপত্তি তুলেছিলেন। কিন্তু যেহেতু তিনি দেশের প্রধানমন্ত্রী, দেশের সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারক, তাই অধিকাংশের মতামতের ভিত্তিতেই আমি গণভবনের আমন্ত্রণে গিয়েছিলাম।

পিএসএস/এএসটি

 

ক্যাম্পাস: আরও পড়ুন

আরও