মাতলামি করায় জবির ৩ ছাত্রলীগকর্মী বহিষ্কার

ঢাকা, শনিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮ | ১ পৌষ ১৪২৫

মাতলামি করায় জবির ৩ ছাত্রলীগকর্মী বহিষ্কার

জবি প্রতিনিধি ৭:৪৮ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৮, ২০১৮

মাতলামি করায় জবির ৩ ছাত্রলীগকর্মী বহিষ্কার

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের তিন কর্মীকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার এবং দু’জনকে কারণ দর্শানোর নোটিস দেয়া হয়েছে।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) দিবস উপলক্ষে আয়োজিত কনসার্টে মাতলামি, মারামারি ও রাব্বি মিয়া নামে এক চালককে মারধরে জড়িত থাকার অভিযোগ তদন্তে প্রমাণিত হওয়ায় রোববার তাদের বিরুদ্ধে এ শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

বহিষ্কৃতরা হলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী আল-সাদিক (আইডি নং ই ১৫০৪০৪০১১), উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী তৌহিদুল ইসলাম শান্ত (আইডি নং ই ১৫০৬০১০৩৩) ও ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের নৃবিজ্ঞান বিভাগের বিভাগের শিক্ষার্থী মো. আশিকুর রহমান আশিক (আইডি নং ই ১৬০৪০৫০৫৮)।

আর কারণ দর্শানোর নোটিস পাওয়ারা হলেন, ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের ফিন্যান্স বিভাগের শিক্ষার্থী মো. শরীফুল ইসলাম (আইডি নং ই ১৬০২০৩১০৬) ও ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থী নূরে আলম সিদ্দিকী (আইডি নং ই ১৬০১০৩০০৮)।

কেন তাদের বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার করা হবে না, তা লিখিতভাবে ১৫ নভেম্বর থেকে সাত কর্মদিবসের মধ্যে রেজিস্ট্রার বরাবর জানাতে বলা হয়েছে।

উল্লেখিত ৫ শিক্ষার্থীই জবি শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ জয়নুল আবেদীন রাসেলের অনুসারি বলে জানা গেছে।

এদের মধ্যে নূরে আলম সিদ্দিকী আগেও সাংবাদিকদের উপর হামলার ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাময়িক বহিষ্কার হয়েছিলেন।

জবি শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ জয়নুল আবেদীন রাসেল বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় দিবসে মারামারি এবং ঘোড়া গাড়ির চালকের মাথা ফাটানোর ঘটনায় তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিয়েছে প্রশাসন। সিসি টিভির ফুটেজ দেখে যে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। আমরা এ সিদ্ধান্তে আস্থা রাখছি।’

তিনি বলেন, ‘অভিযুক্তরা বিশ্ববিদ্যালয়ে এসেছে অল্প কিছুদিন। কিন্তু, এরই মধ্যে অনেক এমন ঘটনা ঘটাল। ভবিষ্যতে তারা আরও বড় অপরাধ করতে পারে, সেজন্যই এমন ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।’

জানা গেছে, গত ২২ অক্টোবর বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উপলক্ষে আয়োজিত কনসার্টে মদ পান করে মাতলামি ও মারামারি করেন ছাত্রলীগের কর্মীরা। আর গত ৫ নভেম্বর সন্ধ্যায় ক্যাম্পাসের মূল গেটে রাব্বি মিয়া নামে এক ঘোড়া গাড়ি চালকের মাথা ফাটিয়ে দেয়া হয়।

আরআর/আইএম