গাজীপুরে দাপুটে আ’লীগ, চোখে পড়েনি বিএনপি নেতাকর্মীদের

ঢাকা, রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৭ আশ্বিন ১৪২৬

গাজীপুরে দাপুটে আ’লীগ, চোখে পড়েনি বিএনপি নেতাকর্মীদের

মাহমুদুল হাসান ও এম কবির, গাজীপুর থেকে ১০:৫৩ অপরাহ্ণ, জুন ২৬, ২০১৮

গাজীপুরে দাপুটে আ’লীগ, চোখে পড়েনি বিএনপি নেতাকর্মীদের

কেন্দ্র দখল, জালভোট এবং ব্যালট পেপার ছিনতাইয়ের অভিযোগের মধ্যদিয়ে গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। নির্বাচন শুরুর পর থেকে বেশির ভাগ কেন্দ্রে বিএনপি প্রার্থীর কোনো এজেন্ট দেখা যায়নি। মঙ্গলবার নির্বাচনী এলাকা ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

গোলযোগ হওয়া ভোট কেন্দ্র ছাড়া প্রতিটি ভোট কেন্দ্রে পুরুষের চেয়ে মহিলাদের সরব উপস্থিতি ছিল। নেয়া হয়েছিল কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

রাত ১০টা নাগাদ কেন্দ্রভিত্তিক ২৫০টি কেন্দ্রের প্রাথমিক ফলাফলে দেখা গেছে, ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম নৌকা প্রতীকে দ্বিগুণের বেশি ভোট পেয়ে এগিয়ে আছেন।

মঙ্গলবার সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত একটানা ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। মোট ৪২৫টি কেন্দ্রের মধ্যে অনিয়মের অভিযোগে নয়টি কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে।

অবশ্য বেশির ভাগ কেন্দ্র ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ মেয়র প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলমের লোকজনের নিয়ন্ত্রণে ছিল। প্রকাশ্য কোনো বিএনপি নেতাকর্মীকে ভোটকেন্দ্র এবং এর আশপাশে ভোট চাইতে দেখা যায়নি।

বিএনপির একাধিক সূত্র দাবি করেছে, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা ও পুলিশ যৌথভাবে ভোটের আগের দিন বিএনপি নেতাকর্মীদের ভয়ভীতি দেখিয়ে এলাকা ছাড়া করে। ফলে নির্বাচনের দিন বিএনপির প্রার্থী হাসান উদ্দিন সরকারের পক্ষে মাঠে থাকতে পারেনি তারা।

বিএনপি ধানের শীষ প্রতীকের এজেন্ট দিতে না পারলেও কাউন্সিলরদের এজেন্টের মাধ্যমে তদারকি করেছেন বলে জানা গেছে।

জালভোট, কেন্দ্র দখল, ব্যালট পেপার ছিনতাই, দুপুরের মধ্যেই ব্যালট শেষ হয়ে যাওয়া এবং বিভিন্ন কেন্দ্রে বিএনপি প্রার্থীর এজেন্টকে দায়িত্ব পালন করতে না দেয়াসহ বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগ এনে দুপুরে নির্বাচন বন্ধের দাবি জানান বিএনপির প্রার্থী হাসান সরকার।

পরে বিকালে সংবাদ সম্মেলনে তিনি অভিযোগ করে বলেন, চার শতাধিক কেন্দ্র থেকে তার এজেন্টদের বের করে দেয়া হয়েছে। কমপক্ষে ২০ জন এজেন্ট এবং কর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

তবে দুই কারণে গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনের ভোটকেন্দ্রে বিএনপির এজেন্ট নেই বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও নির্বাচনের দলীয় প্রধান সমন্বয়ক জাহাঙ্গীর কবির নানক।

তিনি বলেন, প্রার্থীর দুর্বলতা আর দলীয় কোন্দলের কারণে অনেক জায়গায় তাদের এজেন্ট উপস্থিত করতে ব্যর্থ হয়েছে।

দুপুরে পর রিটার্নি অফিসারের কার্যালয় থেকে সাংবাদিকদের জানানো হয়, বিভিন্ন অনিয়মের কারণে নয়টি কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে। তবে কী কারণে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে, তা জানা যায়নি।

এমএইচ-এমকে/এমএসআই

আরও পড়ুন...
সিলমারা ব্যালট, স্বাক্ষরবিহীন ৩ ব্যালট বইয়ের মুড়িসহ আটক ১
ভোট বন্ধের দাবি হাসান সরকারের
সার্বিকভাবে ভালো ভোট হচ্ছে: রিটার্নিং কর্মকর্তা
দুই শতাধিক কেন্দ্রে জাল ভোট দেয়া হয়েছে: বিএনপি
বিএনপিকে শেষ পর্যন্ত মাঠে থাকার পরামর্শ সিইসির
গাজীপুরে ৫ কেন্দ্রের ভোট স্থগিত
ব্যালট নেই, কেন্দ্রের বাইরে ভোটারদের বিক্ষোভ (ভিডিও)
বিক্ষিপ্ত ঘটনায় গাজীপুরে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন
গাজীপুর সিটিতে ভোট শেষে চলছে গণনা
ইভিএমের ২ কেন্দ্রে এগিয়ে নৌকার জাহাঙ্গীর
অনিয়মের কারণে ৯ কেন্দ্রের ভোট স্থগিত: ইসি
গাজীপুরে দ্বিগুণ ভোটে জিতবে নৌকা: কাদের
গাজীপুরে বড় ব্যবধানে এগিয়ে নৌকা
‘বাইরে ব্যালটে সিলমেরে বাক্স ভর্তি, ৪০০ কেন্দ্রে ছিল না এজেন্ট’
গাজীপুরে ইভিএমের ৬ কেন্দ্রে ভোট পড়েছে ৫৪ শতাংশ

 

গাজীপুর সিটি নির্বাচন-২০১৮: আরও পড়ুন

আরও