২৫০ মিলিয়ন ইউরোয় মেসিকে নিতে চেয়েছিল রিয়াল!

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ জুলাই ২০১৮ | ৪ শ্রাবণ ১৪২৫

২৫০ মিলিয়ন ইউরোয় মেসিকে নিতে চেয়েছিল রিয়াল!

পরিবর্তন ডেস্ক ২:১১ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৩, ২০১৮

print
২৫০ মিলিয়ন ইউরোয় মেসিকে নিতে চেয়েছিল রিয়াল!

২০১৩ সালের ১ সেপ্টেম্বর গ্যারেথ বেলের সঙ্গে চুক্তি করে ফুটবল দুনিয়াকে চমকে দিয়েছিল রিয়াল মাদ্রিদ। বিশ্বকে চমকে দিয়েছিল মূলত চুক্তির অঙ্কটা। ইংলিশ ক্লাব টটেনহাম থেকে এই ওয়েলস উইঙ্গারকে রিয়াল দলে ভেড়ায় তৎকালীন রেকর্ড ১০০ মিলিয়ন ইউরোয়! বেলের মতো একজন খেলোয়াড়কে এতো টাকায় কেনায় ভ্রু কুচকে ছিলেন অনেকেই। কেউ কেউ তো এমনও বলে ফেলেন, এটা স্রেফ টাকার অব্যহার! কেন বেলের মতো একজনকে ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর চেয়েও বেশি দামে কিনেছিল রিয়াল?

কারণটা জানা গেল এবার। বেলকে রিয়াল এতো চড়া দামে কিনেছিল আসলে লিওনেল মেসিকে কিনতে না পারার ক্ষোভ থেকে! বেলকে কেনার কয়েক মাস আগেই নাকি মেসিকে কিনতে চেয়েছিল রিয়াল। তখন মেসির উপর ২৫০ মিলিয়ন ইউরোর বাই-আউট ক্লজ বা রিলিজ ক্লজ ঝুলিয়ে রেখেছিল বার্সেলোনা।

রিলিজ ক্লজের এই পুরো টাকা দিয়েই নাকি আর্জেন্টাইন সুপারস্টারকে দলে ভেড়াতে মরিয়া ছিল রিয়াল। মেসি এবং তার বাবা হোর্হে মেসির সঙ্গে চুক্তির ব্যাপারে একাদিক বৈঠকও নাকি করেছিল রিয়াল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত মেসির অনিচ্ছার কারণে রিয়ালের আশা পূরণ হয়নি!

স্প্যানিশ ক্রীড়া দৈনিক এল মুন্ডোর বরাত দিয়ে এতোদিন পর সেই গোপন তথ্য ফাঁস করেছে জার্মান ক্রীড়া সাময়িকী ডের স্পাইজেল। সাময়িকীর শুক্রবারের সংখ্যায় এ বিস্তারিত এক প্রতিবেদন ছাপা হয়েছে।

তাতে বলা হয়েছে, চুক্তির বিষয়ে চূড়ান্ত বৈঠকটি হয়েছিল রিয়াল সভাপতি ফ্লোরেন্তিনো পেরেজের ব্যক্তিগত জেট বিমানে! বৈঠকে মেসি ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন তার বাবা এবং এজেন্ট হোর্হে মেসি এবং তার আইনজীবী ইনিগো সুয়ারেজ। রিয়ালের পক্ষ থেকে সভাপতি পেরেজ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ক্লাবের ক্রীড়া পরিচালক মিগুয়েল পারদেজা এবং ক্লাব আইনজীবী।

স্পাইজেল জানিয়েছে, মেসির সঙ্গে রিয়াল চুক্তিটা করতে চেয়েছিল ২০২১ সাল পর্যন্ত। রিয়ালে বছরে ২৩ মিলিয়ন ইউরোর বেতন দেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিল মেসিকে। এর পাশাপাশি তার বাবা হোর্হে মেসিকে দিতে চেয়েছিল বাড়তি এক মিলিয়ন ইউরো।

আর্থিক এই সুবিধার পাশাপাশি মেসিকে অন্য রকম একটা টোপও দিয়েছিল রিয়াল। মেসি ও তার বাবার বিরুদ্ধে তখন কর ফাঁকির মামলা চলছিল স্পেনের আদালতে। মেসিকে কিনে কর ফাঁকির মামলা প্রত্যাহারের জন্য স্পেনের প্রধানমন্ত্রী মারিয়ানো রাজয়ের উপর চাপ প্রয়োগ করার প্রতিশ্রুতিও নাকি দিয়েছিল!

খবরটি কানে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই রিয়াল অবশ্য স্পাইজেলের এই দাবিকে ‘সম্পূর্ণ মিথ্যা বলে দাবি করেছে। ক্লাবের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ‘এই তথ্যেরই সত্যতা নেই। এটা সম্পূর্ণই মিথ্যা।’ তবে মেসি বা তার বাবার পক্ষ থেকে এখনো কেউ মুখ খুলেননি।

কেআর

 
.



আলোচিত সংবাদ