ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা : ইতিহাসের সবচেয়ে দামী একাদশ

ঢাকা, শনিবার, ৭ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা : ইতিহাসের সবচেয়ে দামী একাদশ

পরিবর্তন ডেস্ক ১২:২৬ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৫, ২০১৯

ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা : ইতিহাসের সবচেয়ে দামী একাদশ

হতে পারে কাগজে-কলমে এটা একটা প্রীতি ম্যাচ। কিন্তু দক্ষিণ আমেরিকার দুই চিরশত্রু ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা ফুটবল মাঠে মুখোমুখি হলে, তা আর প্রীতি থাকে না। বন্ধুত্বের পাপড়িগুলো ঝড়ে গিয়ে হয়ে ওঠে আগুনে উত্তেজনার মহারণ। ছড়ায় বারুদের গন্ধ। আজকের ম্যাচটিও তার ব্যতিক্রম নয়। আজ শুক্রবার রাতে সৌদি আরবের রিয়াদে মুখোমুখি হচ্ছে বিশ্ব ফুটবলের অন্যতম দুই পরাশক্তি ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা। প্রীতি হলেও ম্যাচটিকে ঘিরে ফুটবলপ্রেমীদের টেনশন-উত্তেজনার শেষ নেই।

পুরো বিশ্বের ফুটবলপ্রেমীরাই বুদ হয়ে আছে ম্যাচটি সরাসরি দেখার জন্য। প্রতীক্ষার সেই মিছিলে বাংলাদেশিরা রয়েছে অগ্রভাগেই। ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা, ফুটবলে দক্ষিণ আমেরিকার দুটি দেশ যে বাংলাদেশিদেরই দল! রিয়াদের কিং সাউদ ইউনিভার্সিটি স্টেডিয়ামে ম্যাচটা শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত ১১টায়। সরাসরি সম্প্রচার করবে বেইন স্পোর্টস।

ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা, দুই বৈরি প্রতিবেশির ফুটবল দ্বৈরথ এমনিতেই উত্তেজনায় ঠাঁসা। আজকের দ্বৈরথটিকে বিশেষ আকর্ষণীয় করে তুলছে অন্য একটি বিষয়ও। আজ রিয়াদে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার ম্যাচটি গড়তে যাচ্ছে বিশ্ব ফুটবল ইতিহাসের সবচেয়ে দামী একাদশের রেকর্ড!

সত্যিই তাই। দুই দল মিলেই রেকর্ডটা গড়তে যাচ্ছে। ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা আজ যে শুরুর একাদশ নামাবে, দুই দলের সেই ২২ খেলোয়াড়ের বাজার মূল্য হবে অতীতের যেকোনো একটা ফুটবল ম্যাচের একাদশের চেয়ে বেশি দামী।

তবে এককভাবে আজ আর্জেন্টিনার একাদশটাই হবে বেশি দামী। মেসিদের শুরুর একাদশের খেলোয়াড়দের মোট বাজার মূল্য হবে ৭১০ মিলিয়ন ইউরো। বিপরীতে ব্রাজিলের শুরুর একাদশের মূল্য হবে ৪৮৯ মিলিয়ন ইউরো। মানে দুই দল মিলে আজকের ম্যাচের শুরুর একাদশের মোট মূল্য হবে ১১৯৯ মিলিয়ন ইউরো। একটা ফুটবল ম্যাচে এত বেশি দামী একাদশ অতীতে কখনোই দেখা যায়নি।

একাদশের মূল্যের মাপকাটিতে আর্জেন্টিনার তুলনায় ব্রাজিলের এতটা পিছিয়ে থাকার কারণ নেইমার। পিএসজির এই ব্রাজিল তারকার বর্তমান বাজার মূল্য ১৮০ মিলিয়ন ইউরো। দুই দলের খেলোয়াড় মিলে তার দামই সবচেয়ে বেশি। অথচ সবচেয়ে দামী এই নেইমার আজ ব্রাজিলের হয়ে খেলছেন না। চোটের কারণে ব্রাজিল দলেই নেই তিনি।

১৮০ মিলিয়ন দামী নেইমার থাকলে ব্রাজিলের একাদশের মূল্যও যে আর্জেন্টিনার প্রায় সম পরিমাণই হতো সেটা স্পষ্টই। তিনি খেললে দুই দলের একাদশের মোট মূল্যের অঙ্কটাও আরও বড় হতো। যিনি নেই, তাকে নিয়ে আলোচনা, হিসাব-নিকাশ করে লাভ নেই। যারা আছেন, তারাই ম্যাচটাকে ঠাঁই দিতে যাচ্ছেন ইতিহাসের পাতায়।

গোলরক্ষক পজিশনে ব্রাজিল স্পষ্ট ব্যবধানেই এগিয়ে। ব্রাজিলের তিন গোলরক্ষকের দুজনের দামই আকাশচুম্বি। লিভারপুলের আলিসন বেকারের দাম ৮০ মিলিয়ন ইউরো। ম্যানচেস্টার সিটির এদেরসনের দাম ৭০ মিলিয়ন ইউরো। দুজনের মধ্যে ৮০ মিলিয়নের আলিসনের হাতেই আজ গ্লাভস জোড়া উঠতে যাচ্ছে বলে আভাস মিলেছে।

দামে ব্রাজিলিয়ান সঙ্গে আর্জেন্টাইন গোলরক্ষকদের আসলে তুলনাই চলে না। এ ম্যাচের জন্য আর্জেন্টিনা দলে যে ৪ জন গোলরক্ষক ডাক পেয়েছেন, তাদের কারো মূল্যই ১০ মিলিয়ন ইউরোর বেশি নয়। বরং কম।

রক্ষণেও ব্রাজিলিয়ানরাই এগিয়ে। দুই দল মিলে সবচেয়ে দামী ডিফেন্ডার মারকুইনহোস। পিএসজির এই ডিফেন্ডারের বর্তমান বাজার মূল্য ৬৫ মিলিয়ন ইউরো। সেখানে আর্জেন্টিনার রক্ষণ সেনানিদের মধ্যে সবচেয়ে দামী নিকোলাস ত্যাগলিয়াফিকো। আয়াক্সের ২৭ বছর বয়সী এই ডিফেন্ডারের বাজার মূল্য ২৮ মিলিয়ন ইউরো।

এককভাবে মাঝমাঠেও সবচেয়ে দামী একজন ব্রাজিলিয়ানই। ফিলিপে কুতিনহোর বর্তমান বাজার মূল্য ৯০ মিলিয়ন ইউরো। যদিও দুই বছর আগে বার্সেলোনা তাকে ১৬০ মিলিয়ন ইউরো দিয়ে কিনেছে। তবে বার্সেলোনায় তেমন সুবিধা করতে না পারায় ব্রাজিলিয়ান তারকা এবার ধারে খেলতে গেছেন বায়ার্ন মিউনিখে। বর্তমান পারফরম্যান্সের ভিত্তিতে ২৭ বছর বয়সী তারকার বাজার মূল্য ৯০ মিলিয়ন ইউরো।

ব্রাজিল দলে কুতিনহো যে পজিশনে খেলেন, আর্জেন্টিনা দলে পাওলো দিবালাও সেই পজিশনেই খেলেন। জুভেন্টাসের আর্জেন্টাইন তারকার দামও প্রায় কুতিনহোর সমানই। ২৫ বছর বয়সী দিবালার বর্তমান বাজার মূল্য ৭৫ মিলিয়ন ইউরো।

আগেই বলা হয়েছে, দুই দলের খেলোয়াড়দের মধ্যে সবচেয়ে দামী নেইমার। তিনি থাকলে তাই আজকের ম্যাচের সবচেয়ে দামী খেলোয়াড়ের তকমাটা তার মাথায়ই থাকত। কিন্তু নেইমার না থাকায় সেই তকমাটা থাকছে লিওনেল মেসির মাথায়। ৩২ বছর বয়সী আর্জেন্টাইন অধিনায়কের বর্তমান বাজার মূল্য ১৫০ মিলিয়ন ইউরো। স্বাভাবিকভাবেই দুই দলের ফরোয়ার্ডদের মধ্যেও সবচেয়ে দামীর তকমাটা মেসির কাঁধেই থাকছে।

আক্রমণে মেসির সঙ্গে পাল্লা দেবেন ব্রাজিলের রবার্তো ফিরমিনো। লিভারপুলের ২৭ বছর বয়সী এই ব্রাজিলিয়ান তারকার বর্তমান বাজার মূল্য ৮০ মিলিয়ন ইউরো।

সব মিলে, দুই যে সম্ভাব্য একাদশ নিয়ে মাঠে নামছে, তাদের মোট মূল্য বিলিয়নের কোটা ছাপিয়ে গড়তে যাচ্ছে একটা ফুটবল ম্যাচে সবচেয়ে দামী একাদশের ইতিহাস। রেকর্ডটির মর্যাদা রাখতে মাঠের দ্বৈরথেও নিশ্চয়ই আগুনের স্ফুলিঙ্গই ঝরবে।

কেআর

 

ফুটবল: আরও পড়ুন

আরও