ক্রসবারে মারলেন মেসি, গ্রিজমানকে দেখলেন না?

ঢাকা, বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯ | ২৯ কার্তিক ১৪২৬

ক্রসবারে মারলেন মেসি, গ্রিজমানকে দেখলেন না?

পরিবর্তন ডেস্ক ১২:১৫ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ০৬, ২০১৯

ক্রসবারে মারলেন মেসি, গ্রিজমানকে দেখলেন না?

লিওনেল মেসি ও লুইস সুয়ারেজের মধ্যে বোঝাপড়াটা দারুণ। কোন অবস্থায় কে কোথায় থাকবেন, সহজেই তা বুঝতে পারেন। তাদের চোখের যোগাযোগটাও অসাধারণ। কিন্তু সদ্য বার্সেলোনায় আসা আতোইন গ্রিজমানের সঙ্গে মেসি-সুয়ারেজের রসায়নটা এখনো দানা বাঁধেনি। বরং এরই মধ্যে মেসি-সুয়ারেজের সঙ্গে গ্রিজমানের বোঝাপড়ার ঘাটতিটা স্পষ্ট। তবে সেজন্য দায়টা দেওয়া হয় গ্রিজমানকেই।

বোদ্ধাদের রায়, গ্রিজমানই মেসি-সুয়ারেজের সঙ্গে বোঝাপড়ার ক্ষেত্রটা এখনো তৈরি করতে পারেননি। গ্রিজমান এই অভিযোগ মাথা পেতে মেনেও নিয়েছেন। কিন্তু কাল বার্সেলোনা ও স্লাভিয়া প্রাগের মধ্যকার চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচে বোদ্ধাদের এই রায় মিথ্যা বলে প্রমাণিত।

অত্যন্ত দৃষ্টিকটুভাবে বোদ্ধাদের ভুল প্রমাণ করলেন স্বয়ং মেসি! একটা শটের মাধ্যমে মেসি প্রমাণ করলেন, তাদের ত্রয়ীর বোঝাপড়ার ঘাটতির দায় গ্রিজমানের একার নয়। বরং গ্রিজমানের চেয়ে তার দায়-ই বেশি। মানে মেসি নিজেই নিজেকে তুললেন কাঠগড়ায়।

ঘটনাটা ঘটেছে কাল ম্যাচের ৩৬ মিনিটে। সতীর্থের পাশ ধরে ক্ষীপ্রতার সঙ্গে মেসি চলে যান প্রতিপক্ষ স্লাভিয়া প্রাগের বক্সের কাছে। বক্সের ঠিক সামনে গিয়ে মেসি নিজের স্বভাবসুলভ স্টাইলে বাঁ-পায়ে জোরালো এক শট নেন। তার বুলেট গতির দূরপাল্লার শটটি স্লাভিয়া প্রাগের গোলরক্ষক অন্দ্রেজ কোলারকে বোকাও বানিয়েছিল। কিন্তু তার শটটি জালে যায়নি। প্রতিহত হয় ক্রসবারে লেগে।

অসাধারণ এক দূরপাল্লার শট নেওয়ায় সমর্থক-ফুটবলপ্রেমীদের কাছ থেকে ধন্যবাদ পাওয়ার কথা মেসির। কিন্তু ধন্যবাদের পরিবর্তে উল্টো তাকে পড়তে হয়েছে সমালোচনার মুখে। তুলে দিয়েছে কাঠগড়ায়। কেন? কারণ, সামনে তিনজন ডিফেন্ডার থাকার পরও মেসি যখন শটটা নিলেন, তার সামান্য দূরেই যে একদম ফাঁকায় দাঁড়িয়ে ছিলেন আতোইন গ্রিজমান।

মেসির সঙ্গে গ্রিজমানও দৌড়ে আসেন। সুযোগ বুঝে ফরাসি তারকা নিজের মতো পজিশনও তৈরি করেন। কিন্তু তাকে পাস না দিয়ে নিজেই শট নেন মেসি। শটটি দুর্দান্তই ছিল। গোল হলে হয় তো প্রশ্নও উঠত না। উল্টো বাহবা পেতেন। কিন্তু তার শট গোলে পরিণত হয়নি।

শুধু মেসির ওই শটই নয়, কাল পুরো ম্যাচেই কোনো গোল করতে পারেনি বার্সেলোনা। ফল, পুঁচকে স্লাভিয়া প্রাগের সঙ্গেও পুড়তে হয়েছে গোলশূন্য ড্র হতাশায়। দলের এই ব্যর্থতার কারণে মেসির ভুলটা আরও বড় হয়ে উঠেছে।

সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে দৃশ্যটির একটা ছবি পোস্ট করা হয়। ছবিটি মুহূর্তেই ভাইরাল হয়ে যায়। সঙ্গে চলছে নানা রকম মন্তব্য। তবে সবার মন্তব্যেরই সার সংক্ষেপ, মেসি নিজেই কেন শটটি নিলেন? কেন তিনি গ্রিজমানকে পাস দিলেন না? তিনি কি ফাঁকায় দাঁড়ানো গ্রিজমানকে দেখতেই পাননি?

সামনে প্রতিপক্ষের তিন ডিফেন্ডার ফিরে থাকায় শট নেওয়ার চেয়ে গ্রিজমানকে পাস দেওয়াটাই বেশি সহজ ছিল মেসির জন্য। কিন্তু মেসি সহজ কাজটি না করে কঠিন পথেই হাঁটেন। পাস দিলে যে গ্রিজমান গোল অবশ্যই করতে পারতেন, সেটা বলার উপায় নেই। তবে গ্রিজমান যে ফাঁকা জায়গায় দাঁড়িয়ে ছিলেন, তাতে মেসি তাকে পাসটা দিতেই পারতেন। তাহলে হয়তো গোল করার সুযোগটাও বাড়ত।

কিন্তু সেই সহজ পথে না হাঁটায় একটা বাঁকা প্রশ্নও উঠছে, মেসি কি গ্রিজমানকে আসলেই দেখেননি? নাকি দেখেও স্বার্থপর ভাবে নিজেই শট নিয়েছেন? এই অভিযোগ সত্যি না হলেও গ্রিজমানের সঙ্গে বোঝাপড়ার ক্ষেত্রে মেসির যে বড় রকম ঘাটতি রয়েছে, সেটি স্পষ্ট।

কেআর/পিএ/

 

 

ফুটবল: আরও পড়ুন

আরও