বার্সার হারের রাতে দুই মাদ্রিদের ড্র

ঢাকা, বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯ | ২৯ কার্তিক ১৪২৬

বার্সার হারের রাতে দুই মাদ্রিদের ড্র

পরিবর্তন ডেস্ক ১১:১১ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ০৩, ২০১৯

বার্সার হারের রাতে দুই মাদ্রিদের ড্র

স্প্যানিশ লা লিগাকে বলা হয় তিন ঘোড়ার রেস। রিয়াল মাদ্রিদ, বার্সেলোনা ও অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ-শিরোপার লড়াইটা হয় শুধু তিন দলের মধ্যেই। কাকতালীয়ভাবে ২ অক্টোবরের দিনটি এই তিন ঘোড়াকেই বেঁধে ফেলল হতাশার ফ্রেমে। লেভান্তের মাঠে গিয়ে বার্সেলোনা তো ৩-১ গোলে হেরেই গেছে। দিনের অন্য দুই ম্যাচে ড্র হতাশায় পুড়েছে দুই মাদ্রিদ-রিয়াল মাদ্রিদ ও অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ।

সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে ঠিক আগের ম্যাচটিতেই গোল উৎসব করেছে রিয়াল। লেগানেসকে উড়িয়ে দিয়েছে ৫-০ গোলে। সেই বার্নাব্যুতেই কাল রিয়ালের ফরোয়ার্ডরা একবারের জন্য প্রতিপক্ষের জাল খুঁজে পায়নি। গোল পায়নি প্রতিপক্ষ রিয়াল বেটিসও। বার্নাব্যুতে দুই রিয়ালের ম্যাচটা গোলশূন্য ড্র হয়েছে।

একই হতাশায় পুড়তে হয়েছে মাদ্রিদের আরেক জায়ান্ট অ্যাতলেতিকোও। সেভিয়ার মাঠ থেকে দিয়েগো সিমিওনের দল ফিরেছে ১-১ গোলের ড্র নিয়ে। লেভান্তের কাছে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষ দল বার্সেলোনার হার, এই সুখবর পেয়েই কাল মাঠে নেমেছিল রিয়াল। বার্সেলোনার হার রিয়ালকে সুযোগ করে দিয়েছিল শীর্ষে উঠারও।

কিন্তু এই দুই আনন্দের কোনোটিকেই অনুপ্রেরণা বানাতে পারেনি রিয়াল। টানা দ্বিতীয় জয়ের আশায় কোচ জিনেদিন জিদান পূর্ণ শক্তির দলই নামিয়েছিলেন মাঠে। আক্রমণ সাজিয়েছিলেন করিম বেনজেমা, রদ্রিগো ও এডেন হ্যাজার্ড-এই ত্রয়ীকে দিয়ে। মাঝ মাঠে নামিয়েছিলেন কাসেমিরো, টনি ক্রুস, লুকা মড্রিচ-দলের তিন সেরা মিডফিল্ডারকেই।

কিন্তু লড়াকু রিয়াল বেটিসের রক্ষণ দেওয়াল একবারও ভেদ করতে পারেনি রিয়াল। বল জড়াতে পারেনি জোলে।

সেভিয়ার মাঠে গিয়ে প্রথমেই পিছিয়ে পড়ে অ্যাতলেতিকো। ২৮ মিনিটে দুর্দান্ত এক গোল করে স্বাগতিক সেভিয়াকে এগিয়ে দেন ১-০ ব্যবধানে। অ্যাতলেতিকো এই গোল পরিশোধ করেছে ৬০ মিনিটে। বক্সের যান কোণ থেকে অসাধারণ এক হেডে অ্যাতলেতিকোকে সমতায় ফেরান আলভারো মোরাতা।

একই দিনে ‘তিন ঘোড়া’র পয়েন্ট হারানো, ২ অক্টোবরের দিনটিকে ‘দৈত্য’ বধের দিনই বলা যায়। তবে এই হার এবং ড্রয়ের পরও লা লিগার পয়েন্ট তালিকার শীর্ষ তিনেই আছেন তিন ঘোড়া। ১১ ম্যাচে ২২ পয়েন্ট নিয়ে এক নম্বরে বার্সেলোনা। সমান ১১ ম্যাচে সমান ২২ পয়েন্ট রিয়াল মাদ্রিদেরও। তবে গোল ব্যবধানে পিছিয়ে থাকায় দুই নম্বরে রিয়াল। সমান ম্যাচে ২১ পয়েন্ট নিয়ে ৩ নম্বরে অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ।

এই তথ্য টুকু এবারও লা লিগাকে ‘তিন ঘোড়া’র দৌড়ই মনে হবে। কিন্তু এবারের ভেতরের বাস্তবতাটা একটু ভিন্ন। অন্তত এই মুহূর্ত পর্যন্ত। বার্সা, রিয়াল, অ্যাতলেতিকো-এক, দুই, তিনে থাকলেও সেভিয়া, গ্রানাডা, রিয়াল সোসিয়েদাদের মতো দলগুলো শিরোপার লড়াইটাকে জমাট করে তুলেছে। ৪ নম্বরে থাকা সেভিয়ার পয়েন্ট যেমন তিনে থাকা অ্যাতলেতিকোর সমান ২১। শুধু গোল ব্যবধানে পিছিয়ে সেভিয়া। ৫ নম্বরে থাকা পুঁচকে গ্রানাডারও পয়েন্ট ২০। ৬ নম্বরে থাকা রিয়াল সোসিয়েদাদের পয়েন্ট ১৯।

শীর্ষ দল বার্সেলোনা ও ৬ নম্বরের সোসিয়েদাদের মধ্যে পয়েন্টের ব্যবধান মাত্র ৩! এতেই স্পষ্ট শিরোপার লড়াইটা এখনো পর্যন্ত জমজমাট।

কেআর

 

ফুটবল: আরও পড়ুন

আরও