ইকুয়েডরকে ৬-১-এ ভাসাল আর্জেন্টিনা

ঢাকা, বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯ | ২৯ কার্তিক ১৪২৬

ইকুয়েডরকে ৬-১-এ ভাসাল আর্জেন্টিনা

পরিবর্তন ডেস্ক ৮:৩৯ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ১৪, ২০১৯

ইকুয়েডরকে ৬-১-এ ভাসাল আর্জেন্টিনা

মেসি-আগুয়েরো-ডি মারিয়ারা নেই তো কী! আর্জেন্টিনার এখন ‘লুকাস, লুকাস’রা আছেন না! ‘লুকাস’, নামের আদ্যক্ষরটা দুইবার লেখায় অনেকে বিভ্রান্তি পড়ে ভুলে মনে করতে পারেন। কিন্তু ভুল নয়। গত ৪ দিনে আর্জেন্টিনা যে দুটি প্রীতি ম্যাচ খেলল, তাতে নায়ক দুই লুকাস।

৩ দিন আগে পরাশক্তি জার্মানির বিপক্ষে আর্জেন্টিনাকে ২-২ ড্র এনে দিয়েছেন লুকাস আলেরিও ও লুকাস ওকাম্পোস। গতকাল রাতে ইকুয়েডরের বিপক্ষেও গোল করেছেন দুই লুকাস। সঙ্গে আরও ৪ গোল মিলিয়ে আর্জেন্টিনা ইকুয়েডরকে ভাসিয়েছে ৬-১-এ।

পরাশক্তি জার্মানির বিপক্ষে প্রথমে ২-০তে পিছিয়ে পড়েও শেষ পর্যন্ত ২-২ ড্র। সেই ম্যাচের আত্মবিশ্বাসের ঘোড়ায় চড়ে ইকুয়েডরকে গোল বন্যায় ভাসানো, সত্যিই আর্জেন্টিনার বড় তারকাহীন তরুণ দলটি দুর্দান্ত একটা সপ্তাহই কাটাল।

স্পেনের ইলচেতে অনুষ্ঠিত কালকের প্রীতি ম্যাচটিতে শুরু থেকেই দাপট দেখাতে শুরু করে লিওনেল স্কালোনির আর্জেন্টিনা। ২০ মিনিটে পেয়ে যায় গোলও। জার্মানির বিপক্ষে নিজেদের প্রথম গোলটি করেছিলেন লুকাস আলেরিও। কালও এই তরুণই উদ্বোধন করেন আর্জেন্টিনার গোলের খাতা। অ্যাকুনার কর্নার থেকে পাওয়ারফুল হেডে বলে ইকুয়েডরের জালে জড়িয়ে দেন তিনি।

এর ৭ মিনিট পর অর্থাৎ ২৭ মিনিটেই ব্যবধান ২-০ করে ফেলে আর্জেন্টিনা। এবার অবশ্য আর্জেন্টিনার কেউ নন, গোলটা করেছেন ইকুয়েডরেরই একজন। অ্যাকুনার ক্রস ক্লিয়ার করতে গিয়ে ইকুয়েডরের ডিফেন্ডার জন এস্পিজোনা নিজেদের জালেই জড়িয়ে দেন বল। আত্মঘাতী গোল!

৩২ আবারও আর্জেন্টাইনদের গোল উৎসব। এবারের গোলদাতা লিয়ান্দ্রো প্যারাদেস। লাওতারো মার্টিনেসকে বক্সের মধ্যে ফেলে দিলে পেনাল্টি পায় আর্জেন্টিনা। তা থেকে ব্যবধান ৩-০ করেছেন লিয়ান্দ্রো প্যারাদেস। দ্বিতীয়ার্ধের চতুর্থ মিনিটে একটা গোল শোধ দেয় ইকুয়েডর। বক্সের অনেকটা বাইরে থেকে দর্শনীয় এক ফ্রি কিকে ইকুয়েডরের হয়ে গোলটা করেছেন বদলি হিসেবে নামা অ্যাঙ্গেল মেনা।

কিন্তু ইকুয়েডরিয়ানদের এই গোল উৎসব ৬৬ মিনিটেই ম্লান হয়ে যায়। ৬৬ মিনিটে আর্জেন্টিনার লিডটা ৪-১ করে ফেলেন জার্মান পাজ্জেলা। ৭৫ মিনিটে ৫-১ করেন নিকোলাস ডমিনগুয়েজ। ম্যাচ শেষের ৪ মিনিট আগে আর্জেন্টিনার শেষ গোল উৎসবটি সারেন লুকাস ওকাম্পোস।

মানে গোল উৎসবের শুরুটা করেছিলেন এক লুকাস। শেষ করেছেন আরেক লুকাস। জার্মানির বিপক্ষে অভিষেকেই গোল করা ২৬ বছর বয়সী লুকাস ওকাম্পোস দ্বিতীয় ম্যাচেও গোল করে বুঝিয়ে দিলেন, দেরিতে অভিষেক হলেও আর্জেন্টিনা জাতীয় দলে নিজের জায়গাটা পাকা করতেই এসেছেন তিনি।

কেআর

 

ফুটবল: আরও পড়ুন

আরও