৮৫৬ কোটি টাকা বোনাস পেলেন মেসিরা

ঢাকা, রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯ | ৪ কার্তিক ১৪২৬

৮৫৬ কোটি টাকা বোনাস পেলেন মেসিরা

পরিবর্তন ডেস্ক ২:১০ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ০৮, ২০১৯

৮৫৬ কোটি টাকা বোনাস পেলেন মেসিরা

একের পর এক নতুন খেলোয়াড় কিনে বার্সেলোনা নাকি নগদ টাকা সব ফুরিয়ে ফেলেছে। তাদের নগদ ভাণ্ডার নাকি এখন শূন্য! তা খেলোয়াড় কেনার ভাণ্ডার ফাঁকা থাকতে পারে, তাই বলে খেলোয়াড়দের প্রতিশ্রুতি বোনাস দিতে কার্পণ্য করেনি বার্সেলোনা। বরং প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী খেলোয়াড়দের মোটা অঙ্কের বোনাসই দিল কাতালন ক্লাবটি।

গত মৌসুমে স্পানিশ লা লিগা ও সুপার কাপের শিরোপা জিতেছে বার্সেলোনা। এই দুটি শিরোপা জয়ের জন্য মেসি-সুয়ারেজদের মোট ৯২ মিলিয়ন ইউরো বোনাস দিল বার্সা। বাংলাদেশি মুদ্রায় অঙ্কটা ৮৫৫ কোটি ৮৪ লাখ ৩৬ হাজার ৬৬৩ টাকা! ক্লাব বার্সেলোনার বার্ষিক প্রতিবেদনে তথ্যটা নিশ্চিত করা হয়েছে।

বোনাসের এই টাকাটা বার্সেলোনার সেসব খেলোয়াড়দের মধ্যেই ভাগাভাগি হবে, গত মৌসুমেও যারা দলে ছিলেন। যারা নতুন এসেছেন, তারা এই টাকার ভাগ পাবেন না।

বোনাসের অঙ্কটা দেখে যদি কারো অবাক ঠেকে, তাদের চোখ বিস্ময়ে কপালে উঠে যাওয়ার মতো তথ্যও আছে। গত মৌসুমে কোচিং স্টাফের সদস্য ও খেলোয়াড়দের পারিশ্রমিক বাবদ বার্সেলোনার মোট খরচ হয়েছে ৫২৫ মিলিয়ন ইউরো। বাংলাদেশি মুদ্রায় ৪৮৮৩ কোটি ৮৯ লাখ ৪ হাজার ৮৭২ টাকা! এর মধ্যে খেলোয়াড়দের পারিশ্রমিক ৪১৭ মিলিয়ন ইউরো। বাকি ১০৮ মিলিয়ন ইউরো ব্যয় হয়েছে কোচিং স্টাফের পেছনে।

উল্লেখ্য, ২০১৭-১৮ মৌসুমে এবারের চেয়েও খেলোয়াড়দের ২ মিলিয়ন ইউরো বেশি বোনাস দিয়েছিল বার্সেলোনা। মানে লিগ ও কোপা ডেল রে জেতায় ২০১৮ সালে বোনাস দিয়েছিল ৯৪ মিলিন ইউরো। তার আগে ২০১৫ সালে লিগ, উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ও কোপা ডেল রে, আন্তির্জাতিক ‘ট্রেবল’ জেতায় বোনাস দিয়েছিল ৮৯ মিলিয়ন ইউরো।

বছর বছর বোনাস ও ‘অ্যাড অডস’ হিসেবে ক্লাব থেকে যে টাকাটা পান, তাতেই তো মেসি-সুয়ারেজ-পিকেদের বড়লোক বনে যাওয়ার কথা। বার্ষিক পারিশ্রমিক, ম্যাচ ফি, হাতখরচ, যাতায়াত ভাতা, বিজ্ঞাপনী চুক্তি থেকে মোটা অঙ্কের আয়, ইমেজ সত্ব, সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ছবি-স্ট্যাটাস পোস্টের মাধ্যমে আয়ের কথা বাদই দিলাম।

কেআর/জেডএস

 

ফুটবল: আরও পড়ুন

আরও