নাটকীয় জয় ছাপিয়ে বড় লিভারপুলের ‘সালাহ-অস্বস্তি’

ঢাকা, সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯ | ২৯ আশ্বিন ১৪২৬

নাটকীয় জয় ছাপিয়ে বড় লিভারপুলের ‘সালাহ-অস্বস্তি’

পরিবর্তন ডেস্ক ১০:২৮ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ০৬, ২০১৯

নাটকীয় জয় ছাপিয়ে বড় লিভারপুলের ‘সালাহ-অস্বস্তি’

দীর্ঘ ১৪ বছরের বন্ধ্যাত্ব ঘুচিয়ে গত মৌসুমে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপা জিতেছে লিভারপুল। এবার তার চেয়েও বড় বন্ধ্যাত্ব ঘোচানো স্বপ্ন উড়ছে অ্যানফিল্ডে। দীর্ঘ ৩০ বছর পর লিগ শিরোপার স্বপ্নে বিভোর লিভারপুল।

মৌসুমের দুই যেতে না যেতেই অলরেডদের লিগ শিরোপার স্বপ্নে বিভোর হওয়াটা বাস্তব সম্মতও। এরই মধ্যে প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী ম্যানচেস্টার সিটির চেয়ে ৮ পয়েন্টে এগিয়ে লিভারপুল। মৌসুমে ৮ ম্যাচের ৮টিতেই জিতে লিগ শিরোপা লড়াইটা এই মুহূর্তে কিছুটা পানসেই বানিয়ে ফেলেছে ইয়ুর্গেন ক্লপের দল। নিজেদের এই দাপুটে পথ চলার পথে লিভারপুল জিতেছে কালও।

তবে নিজেদের মাঠ অ্যানফিল্ডে জিততে লিভারপুলকে নাকে-মুখের ঘাম এক করতে হয়েছে। তারপরও লেস্টার সিটির বিপক্ষে লিভারপুল জয়টা পেয়েছে অন্তিম সময়ের পেনাল্টি নাটকে, ২-১ গোলে। তবে স্বস্তির এই জয় ছাপিয়েও লিভারপুল শিবিরে বড় সালাহ অস্বস্তি। দলের আক্রমণ ভাগের সবচেয়ে বড় এই অস্ত্রটিকে যে মাঠ ছাড়তে হয়েছে চোট পেয়ে।

লিগে সর্বশেষ ১৬ ম্যাচেই জয়। জয়ের এই ধারা অব্যাহত রাখতে কালও প্রথমে এগিয়ে যায় লিভারপুলই। ৪০ মিনিটে অলরেডদের এগিয়ে দেন দুর্দান্ত ফর্মে থাকা সেনেগালিজ উইঙ্গার সাদিও মানে। কিন্তু দুর্দান্ত লড়াকু মানসিকতা দেখিয়ে ৮০ মিনিটে এই গোলটি শোধ করে দেয় সফরকারী লেস্টার সিটি। লেস্টারকে সমতায় ফেরান জেমস মেডিসন।

এরপর আর কোনো দলই গোল পাচ্ছিল না। নির্ধারিত ৯০ মিনিট পেরিয়ে ইনজুরি সময়েরও ৫ মিনিট পেরিয়ে যায়। তখনো স্কোর সেই ১-১। অ্যানফিল্ডে তখন একটাই বার্তা, ছেদ পড়তে যাচ্ছে লিভারপুলের টানা জয়রথে। মৌসুমে প্রথম বারের মতো পয়েন্ট খোয়াতে যাচ্ছে তারা।

ঠিক তখনই পেনাল্টি নাটক। ইনজুরি সময়ের ৫ তথা ম্যাচের ৯৫ মিনিটে নাটকীয়ভাবে পেনাল্টি পেয়ে যায় লিভারপুল। বক্সের ভেতরে সাদিও মানেকে কুৎসিত ট্যাকল করে বসেন লেস্টারের ইংলিশ উইঙ্গার মার্ক আলব্রাইটন। তাতেই কপাল পুড়ে লেস্টারের। পেনাল্টি থেকে গোল করে শেষ মুহূর্তে লিভারপুলকে ২-১ গোলের স্বস্তির জয় এনে দেন জেমস মিলনার।

তবে এই জয় ছাপিয়ে লিভারপুল শিবিরে বড় সালাহ অস্বস্তি। ম্যাচের ৮৯ মিনিটে উরুতে চোট পেয়ে মাঠ ছেড়েছেন লিভারপুলের মিশরীয় ফরোয়ার্ড। লেস্টারের বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত হামজা চৌধুরী কড়া ট্যাকল করলে উরুতে চোট পেয়েছেন সালাহ। সঙ্গে সঙ্গেই তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। পরে মাঠ ছেড়েছেন খুড়িয়ে খুড়িয়ে।

সালাহ’র নতুন করে পাওয়া এই চোট কতটা গুরুতর সেটা এখনো জানা যায়নি। জানা যাবে আ রোববার এক্সরে রিপোর্ট পাওয়ার পর। তবে লিভারপুলের জার্মান কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপের ইঙ্গিত, চোটটা বেশ গুরুতরই। এমনকি বেশ কিছুদিন সালাহকে মাঠের বাইরেও কাটাতে হতে পারে।

সম্ভাব্য সেই শঙ্কার কথা ভেবেই কিনা লিভারপুল কোচ ম্যাচ শেষের সংবাদ সম্মেলনে কড়া সমালোচনা করেছেন হামজা চৌধুরী অখেলোয়াড়ী ট্যাকলের। বলেছেন, ‘ট্যাকলটি সত্যিই কুৎসিত ছিল।’

যাই হোক, কালকের এই জয়ে ৮ ম্যাচে পূর্ণ ২৪ পয়েন্টই হলো লিভারপুলের। দ্বিতীয় স্থানে ম্যানচেস্টার সিটির সংগ্রহ ৭ ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট। যারা আজ নিজেদের মাঠে খেলবে উলভসের বিপক্ষে।

লিভারপুলের কষ্টের জয়ের দিনে বড়সড় এক ধাক্কা খেয়েছে টটেনহাম। ব্রাইটনের কাছে হেরে গেছে ৩-০ গোলে। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে কাল দিনের সবচেয়ে বড় জয়টি পেয়েছে অ্যাস্টন ভিলা। তারা নরউইচকে হারিয়েছে ৫-১ গোলে। এছাড়া বানর্লি ১-০ গোলে হারিয়েছে এভারটনকে, ওয়েস্ট হামের মাঠে গিয়ে ক্রিস্টাল প্যালেস জিতেছে ২-১ গোলে।

কেআর

 

ফুটবল: আরও পড়ুন

আরও