বায়ার্ন-ম্যান সিটির বড় জয়, জুভেন্টাসের ড্র

ঢাকা, রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯ | ৪ কার্তিক ১৪২৬

বায়ার্ন-ম্যান সিটির বড় জয়, জুভেন্টাসের ড্র

পরিবর্তন ডেস্ক ১১:০১ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০১৯

বায়ার্ন-ম্যান সিটির বড় জয়, জুভেন্টাসের ড্র

গত মৌসুমে এই অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদের মাঠে এসে ২-০ গোলে হেরেছিল ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর জুভেন্টাস। তা নিয়ে অ্যাতলেতিকোর দর্শকেরা রোনালদোকে কি ব্যঙ্গ-বিদ্রুপই না করেছিল! রোনালদোও অ্যাতলেতিকোর দর্শকদের দুয়ো, ব্যঙ্গ-বিদ্রুপের জবাব দিয়েছিলেন হাতের ৫ আঙুল দেখিয়ে। অ্যাতলেতিকোকে খোঁচাটা তিনি দিয়েছিলেন নিজের ৫টি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ের কথা মনে করিয়ে দিয়ে।

তবে অ্যাতলেতিকোর জয়, দর্শকদের দুয়ো বা রোনালদোর খোঁচা ছাপিয়ে ম্যাচ শেষে আলোচনার বড় বিষয় হয়ে উঠেছিল অ্যাতলেতিকোর আর্জেন্টাইন কোচ দিয়েগো সিমিওনের অশোভন উদযাপন! তীব্র সমালোচনার মুখে সিমিওনে ক্ষমা চাইতে বাধ্য হয়েছিলেন।

এবার অবশ্য তেমন কিছুই ঘটেনি। রোনালদোকে অ্যাতলেতিকোর সমর্থকেরা দুয়ো দেয়নি। কোনো দল জয়ও পায়নি। কাল অ্যাতলেতিকোর ওয়ান্ডা মেট্রোপলিতানো স্টেডিয়ামে দুই দলের চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচটা শেষ হয়েছে ২-২ গোলের ড্র এঁকে।

অ্যাতলেতিকো-জুভেন্টাসের ম্যাচ ড্র হলেও কাল নিজ নিজ ম্যাচে বড় জয় পেয়েছে পিএসজি, বায়ার্ন মিউনিখ, ম্যানচেস্টার সিটি, ডায়নামো জাগরেব। পিএসজি ৩-০ গোলে হারিয়েছে রিয়াল মাদ্রিদকে। বায়ার্ন এবং ম্যান সিটিও পেয়েছে ৩-০ গোলের জয়।

বায়ার্ন নিজেদের মাঠে ৩-০ গোলে হারিয়েছে ক্রভেনা জেভেজদাকে। ম্যান সিটি শাখতার দোনেস্কের মাঠে গিয়ে জিতেছে ৩-০ গোলে। দিনের সবচেয়ে বড় জয়টি পেয়েছেন ডায়নামো জাগরেব। নিজেদের মাঠে তারা ৪-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে আটালান্টাকে। দিনের অন্য ম্যাচগুলোতে রাশিয়ান ক্লাব লোকোমোটিভ মস্কো ২-১ গোলে হারিয়েছে বেয়ার লেভারকুসেনকে। ক্লাব ব্রাগ ও গ্যালাতাসারাইয়ের ম্যাচটি গোলশূন্য ড্র হয়েছে। অলিম্পিয়াকোসের মাঠে গিয়ে গতবারের ফাইনালিস্ট টটেনহামকে পুড়তে হয়েছে ২-২ গোলের ড্র হতাশায়।

রোনালদোকে দুয়ো দিলে, ব্যঙ্গ-বিদ্রুপ করলে ফল কি হয়, গত মৌসুমে টের পেয়েছে অ্যাতলেতিকোর সমর্থকেরা। জুভেন্টাসের মাঠে ফিরতি লেগে জবাব দুয়ো-বিদ্রুপের জবাব দিয়েছিলেন দুর্দান্ত এক হ্যাটট্রিক করে। সেই কথা মনে করেই কিনা, এবার রোনালদোকে দুয়ো দেওয়া থেকে নিজেদের সংযত রাখে অ্যাতলেতিকোর সমর্থকেরা।

জ্বলুনি না পেয়ে রোনালদোও গোল করতে পারেননি। তারপরও অবশ্য ৬৪ মিনিটের মধ্যে ২-০ গোলে এগিয়ে যায় সফরকারী জুভেন্টাস। ৪৭ মিনিটে জুভদের প্রথম এগিয়ে দেন কলম্বিয়ান তারকা হুয়ান কুয়াদ্রাদো। ৬৪ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ফরাসি মিডফিল্ডার ব্লেইস মাতুইদি।

নিজেদের মাঠে তখন যেন দলের হারই দেখতে পাচ্ছিলেন অ্যাতলেতিকোর সমর্থকেরা। তবে শেষ ২১ মিনিটে ২ গোল করে সেই ধারলা পাল্টে দিয়ে অ্যাতলেতিকোকে ড্র এনে দিয়েছেন স্টেফান সাভিচ ও হেক্টর হেরেরা। ৬৯ মিনিটে ব্যবধান ২-১ করেন সাভিচ। ৯০ মিনিটে অ্যাতলেতিকোকে সমতায় ফেরান হেক্টর হেরেরা।

ম্যান সিটির হয়ে গোল ৩টি করেছেন রিয়াদ মাহরেজ, গন্ডোগান ও গ্যাব্রিয়েল জেসুস। বায়ার্নের জয়ের নায়ক কিংসলে কমন, রবার্ট লেভান্ডভস্কি ও টমাস মুলার।

কেআর

 

ফুটবল: আরও পড়ুন

আরও