দলবদল নাটক নিয়ে মুখ খুললেন নেইমার

ঢাকা, সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯ | ২৯ আশ্বিন ১৪২৬

দলবদল নাটক নিয়ে মুখ খুললেন নেইমার

পরিবর্তন ডেস্ক ৪:৫৯ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৫, ২০১৯

  দলবদল নাটক নিয়ে মুখ খুললেন নেইমার

পিএসজি ছেড়ে বার্সেলোনায় যেতে মরিয়া ছিলেন নেইমার। এটা সারা দুনিয়া জানে। নেইমারের দলবদল নাটক নিয়ে গ্রীষ্মের পুরো দলবদল মৌসুমজুড়ই ছিল উত্তপ্ত। নেইমার নিজেই পিএসজি কর্তাদের বলেছিলেন, ক্লাব ছাড়তে চান। এমনকি যেকোনো মূল্যে পিএসজি ছাড়ার হুমকিও দিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু এসব হুমকি-ধামকি, ক্লাব ছাড়ার ইচ্ছার কথা নেইমার বলেছিলেন গোপনে। অভ্যন্তরিণ বৈঠকে। বিশ্বস্তসূত্রের মাধ্যমে গোপন সেই তথ্য বের করে আনে গণমাধ্যম। নেইমার কখনোই নিজের দলবদল নিয়ে প্রকাশ্যে কোনো কথা বলেননি।

দলবদল মৌসুমের আগে-পরে-মাঝে কখনোই নয়। অবশেষে নিজের দলবদলের নাটক নিয়ে প্রকাশ্যে মুখ খুললেন ব্রাজিল তারকা। দীর্ঘ ১২৬ দিন পর কাল পিএসজির জার্সি গায়ে খেলতে নেমেছিলেন নেইমার। মাঠে নেমেই দেখিয়েছেন মোহনীয় জাদু। বাইসাইকেল কিকে অবিশ্বাস্য এক গোল করে পিএসজিকে এনে দিয়েছেন জয়।

দর্শনীয় গোলে দলকে জেতানোর আনন্দেই কিনা, ম্যাচ শেষে কথা বললেন দীর্ঘ দুই মাসেরও বেশি সময় ধরে চলা তার দলবদল নাটক নিয়ে। গণমাধ্যমের সামনে হাজির হয়ে প্রথমেই স্বীকার করলেন পিএসজি ছাড়তে চাওয়ার কথা। বললেন, পিএসজি ছাড়তে সর্বোচ্চ চেষ্টাই করেছেন তিনি। কিন্তু দুর্ভাগ্য, পিএসজি তাকে ছাড়েনি।

তার দলবদলের বিষয়টি সারা দুনিয়া জানেন, এটা মনে করিয়ে দিয়ে নেইমার বলেছেন, ‘সবাই জানে আমি ক্লাব ছাড়তে চাইছিলাম। আমি নিজেই এটা পরিস্কার করে দিয়েছিলাম।’ কেন পিএসজি ছাড়তে এমন মরিয়া ছিলেন? এমন প্রশ্নের উত্তরে বলেছেন, ‘আমি বিশদ আলোচনায় যাব না। কারণ, তা অন্যদের প্রভাবিত করতে পারে।’

শুধু এটুকুই নয়, নেইমার এটাও জানিয়ে দিলেন, পিএসজি এবং পিএসজির সমর্থকদের সঙ্গে তার ঝামেলা-তিক্ততা নেই। পিএসজির কারণে পিএসজি ছাড়তে চান না। তাহলে? উত্তরের পরেরটুকু শুনুন নেইমারের মুখেই, ‘আমি সব সময়ই এটা স্পষ্ট করেছি, আমি পিএসজি এবং এই ক্লাবের সমর্থকদের বিরুদ্ধে নই। তার ব্যক্তিগত কারণ ছিল। আমি ক্লাব ছাড়তে চেয়েছি আমার ব্যক্তিগত কারণে। আমার বড় একটা কারণ ছিল। সেজন্য আমি ক্লাব ছাড়ার সর্বোচ্চ চেষ্টাই করেছি। কিন্তু দুর্ভাগ্য, পিএসজি আমাকে ছাড়েনি।’

দলবদল করতে না পারায় নেইমার যে হতাশ, সেটি তার শেষ বাক্যটিতেই স্পষ্ট। তবে হতাশা থাকলেও পিএসজির প্রতি বিশেষ রাগ বা ক্ষোভ নেই। এমনটাও জানিয়েছেন, এখন তার ভাবনাজুড়ে শুধুই পিএসজি, ‘যা হওয়ার তা হয়ে গেছে। কিন্তু দলবদল নিয়ে এটাই আমার প্রথম এবং শেষ কথা বলা। এখন আমার ভাবনায় শুধুই পিএসজি। আমি এখনো পিএসজির খেলোয়াড়। এখন আমার একটাই লক্ষ্য, পিএসজির হয়ে মাঠে সুখী থাকা। আমার পুরো মনোযোগ পিএসজির ওপর।’

কোনো খেলোয়াড় ক্লাব ছাড়তে চাইলে, তার প্রতি সমর্থকেরা ক্ষুব্ধ হবে এটাই স্বাভাবিক। দলবদল নাটক নিয়ে পিএসজির সমর্থকেরাও নেইমারের ওপর প্রচণ্ড ক্ষুব্ধ। পিএসজি সমর্থকেরা সেই ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশও ঘটিয়েছে কাল। পুরো ম্যাচেই নেইমারকে দুয়ো দিয়েছে পিএসজি সমর্থকেরা।

নিজ দলের সমর্থকদের সেই দুয়োর জবাব নেইমার দিয়েছেন পায়ে, মানে গোল করে। পেছনের কারণ যই হোক, নিজ সমর্থকদের দুয়ো শোনাটা হতাশার জানিয়ে নেইমার বলেছেন, ‘এটা খুবই দুঃখজনক। আমি জানি, আমি সেব সময় ঘরের মাঠেই খেলি। কিন্তু এখন থেকে মনে হবে আমি প্রতিপক্ষের মাঠে অ্যাওয়ে ম্যাচ খেলছি।’

আবেগি কণ্ঠে পিএসজি সমর্থকদের প্রতি একটা শিক্ষণীয় বার্তাও পাঠিয়েছেন নেইমার, ‘সমর্থকদের উচিত ম্যাচের পুরো ৯০ মিনিট ধরেই নিজ দলের খেলোয়াড়দের উৎসাহ দেওয়া। যে মুখ দিয়ে আপনি কাউকে দুয়ো দিতে পারেন, সেই মুখে নিজ দলের গোলের জন্য উৎসাহও দেওয়া যায়। তারা পুরোটা সময় ধরেই আমাকে দুয়ো দিয়েছে। এবং শেষ পর্যন্ত কিন্তু তারা উদযাপনও করেছে।’

দুয়োর জবাব মাঠে পায়ে তো দিয়েছেনই। ম্যাচ শেষে দিয়েছেন মুখেও।

কেআর

 

ফুটবল: আরও পড়ুন

আরও