নেইমারকে ফাঁসাতে গিয়ে উল্টো নিজেই গেলেন ফেঁসে!

ঢাকা, শনিবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯ | ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

নেইমারকে ফাঁসাতে গিয়ে উল্টো নিজেই গেলেন ফেঁসে!

পরিবর্তন ডেস্ক ২:১৭ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৯

নেইমারকে ফাঁসাতে গিয়ে উল্টো নিজেই গেলেন ফেঁসে!

চলতি বছরের মে মাসে নেইমারের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ এনেছিলেন ব্রাজিলিয়ান এক মডেল। নাম তার নাজিলা ত্রিনদাদে। তার অভিযোগ ছিল, প্যারিসের একটি হোটেলে তাকে ধর্ষণ করেছিলেন নেইমার।

সে সময় নাজিলা জানিয়েছিলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নেইমারের সাথে পরিচয় হয় তার। তিনি নেইমারের দারুণ ভক্ত ছিলেন। এরপর নেইমারে আহ্বানে প্যারিসে যান তিনি। সেখানেই ১৫ মে তাকে ধর্ষণ করে পিএসজির তারকা।

ওই ঘটনা পর ভীষণ ভেঙে পড়েন তিনি। নিজেকে সামলে উঠতে সময় লাগে। ৩১ মে নেইমারের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনেন তিনি। নেইমার অবশ্য এই অভিযোগ শুরু থেকেই অস্বীকার করে এসেছিলেন। তার দাবী, যা হয়েছে তা দুই জনের সম্মতিতেই হয়েছে।

নাজিলা ত্রিনদাদে

যাই হোক এই ঘটনায় তদন্তে নামে ব্রাজিলের সাও পাওলোর পুলিশ। সেই সময়টা বেশ খারাপ সময় পার করছিলেন ব্রাজিলিয়ান সেনসেশন। কোপার প্রস্তুতির জন্য ব্রাজিলে অবস্থান করছিলেন। কিন্তু ইনজুরিতে পড়ে ছিটকে যান ব্রাজিল দল থেকে।

তদন্ত শেষে সাও পাওলো পুলিশ অবশ্য ধর্ষণের কোন আলামত খুঁজে পায়নি। ফলে অভিযোগ থেকে মুক্তি মেলে নেইমারের।

তবে এখানেই থেমে থাকেনি পুলিশ। অভিযোগকারী সেই মডেল ও তার স্বামীর বিরুদ্ধে উল্টো প্রতারণা ও ব্ল্যাকমেইল চেষ্টার করার অভিযোগ এনেছে তারা।

এদিকে এই ঘটনায় অবাক হয়েছেন মডেল নাজিলার আইনজীবী। তিনি জানান, তার মক্কেল আলভেসের সঙ্গে জোট করে নেইমারের কাছ থেকে কোনো প্রকার অর্থ আদায় করতে চাননি।

পিএ

 

ফুটবল: আরও পড়ুন

আরও