ইউরোর টিকিট প্রায় মুঠোয় পুরে ফেলল স্পেন-ইতালি

ঢাকা, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | 2 0 1

ইউরোর টিকিট প্রায় মুঠোয় পুরে ফেলল স্পেন-ইতালি

পরিবর্তন ডেস্ক ১:৫৭ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ০৯, ২০১৯

ইউরোর টিকিট প্রায় মুঠোয় পুরে ফেলল স্পেন-ইতালি

২০২০ ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপে অংশ নেবে কোন ২৪টি দল? এখন পর্যন্ত কোনো দলই নিশ্চিত করতে পারেনি নিজেদের টিকিট। তবে গতকাল রাতের জয়ের পর দৌড়ে সবার চেয়ে এগিয়ে গেল স্পেন ও ইতালি। কাল রাতে নিজ নিজ ম্যাচে জয় পেয়েছে স্পেন-ইতালি, দুই দলই।

নিজেদের মাটিতে স্পেন ৪-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে ফারো দ্বীপপুঞ্জকে। ফিনল্যান্ড থেকে ইতালি ফিরেছে ২-১ গোলের কষ্টার্জিত জয় নিয়ে। এ নিয়ে এবারের ইউরো বাছাইয়ে ৬ ম্যাচের ৬টিতেই জিতল স্পেন-ইতালি। কালকের এই জয়ের ফলে দুই দলেরই পয়েন্ট সমান ১৮ করে। স্বাভাবিকভাবেই দুই দলই নিজ নিজ গ্রুপে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে।

ফলে দুই দলই পাচ্ছে চূড়ান্তপর্বের রোমাঞ্চ। আর একটি করে জয় হলেই টিকিট কাটার ঝামেলাটা চুকিয়ে ফেলতে পারবে স্পেন-ইতালি। অক্টোবরের আন্তর্জাতিক উইন্ডোতেই স্পেন-ইতালি পেয়ে যেতে পারে ইউরোর চূড়ান্ত পর্বের টিকিট।
কাল ২০১৮ ও ২০১২ ইউরো জয়ী স্পেনের জয়ের নায়ক দু’জন। রদ্রিগো মরেনো ও পাকো আলক্যাচার। লা লিগার ক্লাব গিজনের মাঠ এল মলিননে দুজনেই করেছেন দুটি করে গোল।

পুঁচকে ফারো দ্বীপপুঞ্জের বিপক্ষে স্পেনের জয় যতটা সহজ ছিল ইতালির জয়টা ছিল ততটাই কঠিন। চূড়ান্তপর্বের আশা উজ্জ্বল করতে ইতালিই অবশ্য এগিয়ে যায় প্রথমে। ৫৯ মিনিটে আজ্জুরিদের এগিয়ে দেন সিরো ইমোবাইল। কিন্তু ৭২ মিনিটেই ম্যাচে সমতায় ফেরে ফিনল্যান্ড। পেনাল্টি থেকে গোল করে ১-১ করেন টিমু পাকু। তবে এর ৭ মিনিট পরই আবার এগিয়ে যায় ইতালি। ৪ বারের বিশ্বকাপজয়ীদের হয়ে জয়সূচক গোলটা করেন জর্জিনহো। পেনাল্টি থেকে।

এই হারের পরও অবশ্য চূড়ান্তপর্বের আশা টিকে আছে ফিনল্যান্ডের। ৬ ম্যাচে ১২ পয়েন্ট নিয়ে তারাই যে জে গ্রুপের পয়েন্ট তালিকার দুই নম্বরে।

এবারের ইউরোর বাছাইপর্ব অনুষ্ঠিত হচ্ছে মোট ১০ গ্রুপে ভাগ হয়ে। প্রতিটা গ্রুপ থেকে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষ ২টি করে দল সরাসরি চূড়ান্তপর্বের টিকিট পাবে। এরপর ১০ গ্রুপের সেরা ৮টি তৃতীয় দল খেলবে প্লে-অফ। প্লে-অফ খেলেই বাকি ৪টি দল যাবে মূলপর্বে। শুধু তাই নয়, বাছাইয়ের শীর্ষ ১৬টি দল জায়গা করে নেবে উয়েফা নেশনস লিগেও।

স্পেন-ইতালি ছাড়াও নিজ নিজ গ্রুপের পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে অবস্থানের সুবাদে চূড়ান্তপর্বের দৌড়ে এগিয়ে আছে ইংল্যান্ড, ইউক্রেন, উত্তর আয়ারল্যান্ড, আয়ারল্যান্ড প্রজাতন্ত্র, হাঙ্গেরি, পোল্যান্ড, ফ্রান্স ও বেলজিয়াম। বর্তমান চ্যাম্পিয়ন পর্তুগাল ও পরাশক্তি জার্মানি আছে নিজ নিজ গ্রুপের দুই নম্বরে।

উল্লেখ্য, একক কোনো দেশে নয়। ২০২০ ইউরো অনুষ্ঠিত হবে পুরো ইউরোপ জুড়ে। টুর্নামেন্টের ৬০ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যেই এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। পুরো ইউরোপের ৫৫টি দেশের (ফিফার সদস্য) মধ্য থেকে ১২টি দেশের ১২টি শহর ইউরোর ভেন্যু হিসেবে নির্বাচিত হয়েছে। তবে দুটি সেমিফাইনাল এবং ফাইনাল, টুর্নামেন্টের বড় ৩টি ম্যাচই অনুষ্ঠিত হবে ইংল্যান্ডের বিশ্বখ্যাত ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে।

কেআর

 

ফুটবল: আরও পড়ুন

আরও