২৭ সেপ্টেম্বর আদালতে মুখোমুখি হচ্ছে নেইমার-বার্সা

ঢাকা, শুক্রবার, ৬ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

২৭ সেপ্টেম্বর আদালতে মুখোমুখি হচ্ছে নেইমার-বার্সা

পরিবর্তন ডেস্ক ৩:২৬ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ০৭, ২০১৯

২৭ সেপ্টেম্বর আদালতে মুখোমুখি হচ্ছে নেইমার-বার্সা

পিএসজি ছেড়ে সাবেক ক্লাব বার্সেলোনায় যেতে মরিয়া হয়ে উঠেছিলেন নেইমার। কিন্তু ব্রাজিল তারকার সেই স্বপ্ন পূরণ হয়নি। টানা দুই মাস ধরে বার্সেলোনা তাকে কেনার নাম করে অভিনয় করে গেছে। তবে চুক্তি না হলেও বার্সেলোনার সঙ্গে ঠিকই দেখা হতে যাচ্ছে নেইমারের। মাঠে নয়, আদালতের কাঠগড়ায়। যে বার্সায় যেতে মরিয়া ছিলেন, আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর আদালতে সেই বার্সেলোনারই মুখোমুখি হতে যাচ্ছেন নেইমার।

না, কেনার অভিনয় করার ক্ষোভ থেকে নেইমার হঠাৎ বার্সেলোনার বিরুদ্ধে মামলা ঠুকে দেননি। কোনো ক্লাব কোনো খেলোয়াড়ের সঙ্গে চুক্তি করবে কি করবে না, সেটা একান্তই সেই ক্লাবের ব্যাপার। আগ্রহী খেলোয়াড়ের তাতে অভিযোগ করার কিছু নেই। তাহলে? নেইমার-বার্সাকে কাঠগড়ায় মুখোমুখি দাঁড় করাতে যাচ্ছে দুই বছর আগেই সেই পাল্টাপাল্টি মামলা। একে অন্যের বিপক্ষে তারা মামলাটি করেছিল ২০১৭ সালে। নেইমার বার্সেলোনা ছেড়ে পিএসজিতে যোগ দেওয়ার পর।

বার্সা ছেড়ে নেইমারের পিএসজিতে যোগ দেওয়ার আগে কী নাটক হয়েছিল, ফুটবলপ্রেমীদের তা জানাই। বার্সেলোনা কিছুতেই নেইমারকে বেচতে রাজি ছিল না। পিএসজি মোটা অঙ্কের টাকার টোপ ফেলে কাত করে ফেলে নেইমারকে। সেই টোপ গিলে নেইমার বার্সার ভালোবাসা ছিন্ন করে রেকর্ড ২২২ মিলিয়ন ইউরোর চুক্তিতে যোগ দেন পিএসজিতে। তবে চুক্তির আগে নেইমার-বার্সার মধ্যকার ভালোবাসার সম্পর্কটা রূপ নেয় চরম তিক্ততায়।

এতটাই যে, ক্ষোভে-দুঃখে একে অন্যের বিরুদ্ধে ক্ষতিপূরণ দাবি করে মামলা ঠুকে দেয়। বার্সেলোনা ৭৫ মিলিয়ন ইউরো ক্ষতিপূরণ দাবি করে নেইমারের বিরুদ্ধে। পাল্টা হিসেবে নেইমার বার্সেলোনার বিরুদ্ধে ঠুকে দেন ২৬ মিলিয়ন ইউরোর ক্ষতিপূরণ মামলা। পিএসজিতে যোগ দেওয়ার ঠিক এক মাস আগে বার্সেলোনার সঙ্গে চুক্তি নবায়ন করেন নেইমার। বার্সেলোনা তাই অভিযোগ করে নেইমার চুক্তি ভঙ্গ করেছেন। আর সেই চুক্তিভঙ্গের জন্য ক্ষতি পূরণ হিসেবে দাবি করে ৭৫ মিলিয়ন ইউরো। বার্সা যে টাকাটা নেইমারের বিরুদ্ধে ঢেলেছিল ২০১৩ সালে, ব্রাজিলিয়ান ক্লাব সান্তোসের সঙ্গে চুক্তির সময়। মানে সান্তোস থেকে নেইমারকে নিয়ে আসতে এই টাকাটা ব্যয় করেছিল বার্সা।

নেইমার পাল্টা মামলা করেন বোনাসের বকেয়া টাকা চেয়ে। চুক্তি অনুযায়ী নেইমার ও তার বাবাকে ৪০ মিলিয়ন ইউরো বোনাস দেওয়ার কথা ছিল বার্সেলোনার। কাতালন ক্লাবটি এর মধ্যে মাত্র ১৪ মিলিয়ন ইউরো প্রদান করে। নেইমার ক্লাব ছেড়ে যেতে পারেন বুঝে বার্সা বাকি ২৬ মিলিয়ন ইউরো দিতে গড়িমসি করে। এবং শেষ পর্যন্ত টাকাটা আর দেয়ওনি বার্সা। নেইমার বকেয়া সেই টাকা চেয়েই মামলা করেন।

সেই পাল্টাপাল্টি মামলারই শুনানির তারিখ পড়েছে ২৭ সেপ্টেম্বর। এ বছরে এর আগেও দুইবার শুনানির তারিখ পড়েছিল। প্রথম তারিখটা পড়েছিল ২৯ জানুয়ারি। দ্বিতীয় তারিখটা পড়েছিল ৩১ মার্চ। কিন্তু সেই দুটি তারিখই পক্ষদের আপত্তির ভিত্তিতে মূলতবী করা হয়। তাই পুনরায় তারিখ পড়েছে ২৭ সেপ্টেম্বর। সেদিন বার্সেলোনারই আদালতে বার্সার মুখোমুখি দাঁড়াতে হবে নেইমারকে।

অবশ্য কোনো পক্ষ তারিখ পেছানোর আবেদন করলে এবং তা আদালত গ্রহণযোগ্য মনে করলে শুনানির তারিখ পেছাতেও পারে। তবে এখনো পর্যন্ত কোনো পক্ষ আপত্তি জানায়নি।

উল্লেখ্য, নেইমারের সঙ্গে তার বাবা নেইমার সান্তোস সিনিয়রকেও দাঁড়াতে হবে কাঠগড়ায়। বার্সার আসামি বাবা-ছেলে দুইজনেই।

কেআর

 

ফুটবল: আরও পড়ুন

আরও