এক ম্যাচেই জিদানকে ১৮০ ডিগ্রি ঘুরিয়ে দিলেন বেল!

ঢাকা, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | 2 0 1

এক ম্যাচেই জিদানকে ১৮০ ডিগ্রি ঘুরিয়ে দিলেন বেল!

পরিবর্তন ডেস্ক ১০:৫৮ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ১৯, ২০১৯

এক ম্যাচেই জিদানকে ১৮০ ডিগ্রি ঘুরিয়ে দিলেন বেল!

‘গ্যারেথ বেলকে আর একদিনও রিয়াল মাদ্রিদে না দেখলে খুশি হব আমি।’ এই তো এবারের গ্রীষ্মের দলবদলের উত্তপ্ত বাজারের শুরুর দিকেই বিস্ফোরক এই মন্তব্য করেছিলেন জিনেদিন জিদান। এমনিতেই বেলকে বিক্রি করার জন্য মরিয়া ছিল রিয়াল। কোচ জিদানের ওই মন্তব্যের পর রিয়ালে বেলের থাকার বিষয়টি আরও কঠিন হয়ে ওঠে। সেই বেলই মাত্র এক ম্যাচের পারফরম্যান্স ১৮০ ডিগ্রি ঘুরিয়ে দিলেন জিদানকে!

যিনি বেলকে আর একদিনও রিয়ালে দেখতে চান না বলে ঘোষণা দিয়েছিলেন, গত পরশুর পারফরম্যান্সের পর সেই জিদানই বেলের প্রশংসায় পঞ্চমুখ। শুধু প্রশংসার বানে ভাসানো নয়, রিয়ালের ফরাসি কোচ রীতিমতো ঘোষণা দিলেন, বেল কোথাও যাচ্ছে না। থাকছেন রিয়ালেই!

রিয়াল বিক্রি করার জন্য মরিয়া ছিল। এরপর পূর্ব তিক্ততার জের ধরে কোচ জিদানের ওই বিস্ফোরক মন্তব্যের পর বেল নিজেও রিয়াল ছাড়তে মরিয়া হয়ে ওঠেন। কিন্তু শত চেষ্টা করেও উপযুক্ত ক্রেতা এখনো পর্যন্ত খুঁজে বের করতে পারেননি ওয়েলস তারকা। তবে ইউরোপিয়ান দলবদলের দরজা বন্ধ হতে যেহেতু এখনো সপ্তাহ দেড়েক বাকি, বেল তাই হন্যে হয়ে ক্রেতা খোঁজার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিলেন এখনো।

কিন্তু সেই চেষ্টায় ইস্তফা দিয়ে বেল এবার ফুসরত পেলেন নিজের খেলায় পুরোপুরি মনোযোগ দেওয়ার। অসাধ্য এই কাজটা তিনি করেছেন গত পরশুর উজ্জীবিত পারফরম্যান্সের সুবাদে।

যেহেতু তাকে আর রিয়ালে দেখতে চান না, কোচ জিদান তাই পুরো প্রাক-মৌসুম প্রস্তুতিপর্বেই বেলকে অবহেলা করেছেন। দল একের পর এক প্রস্তুতি ম্যাচ খেললেও বেলকে তিনি নামাননি কোনো ম্যাচে। কি অদ্ভুত এক কারণে যেন, লা লিগায় নতুন মৌসুমের প্রথম ম্যাচেই সেই বেলের ওপর আস্থা রাখলেন জিদান।

বদলি তালিকায় নয়, পরশু লিগে নিজেদের প্রথম ম্যাচটিতে বেলকে সরাসরি শুরুর একাদশেই নামিয়ে দেন তিনি। ওয়েলস তারকাও কোচের সেই আস্থার প্রতিদান দিয়েছেন অবিশ্বাস্যভাবে। পুরো গ্রীষ্মই দলবদল নিয়ে মহাটেনশনে কাটানো বেল মাঠে নেমেই দেখিয়েছেন পায়ের অবিশ্বাস্য জাদু।

ফল, রিয়ালও লিগ মিশনটা শুরু করতে পেরেছে সেল্টা ভিগোর বিপক্ষে ৩-১ গোলের জয় দিয়ে। বেল অবশ্য গোল পাননি। রিয়ালের হয়ে গোল ৩টি করেছেন করিম বেনজেমা, টনি ক্রুস ও লুকাস ভাজকুয়েজ। তবে বেনজেমা, ক্রুস, ভাজকুয়েজদের ছাপিয়ে রিয়ালের জয়ের বড় নায়কই বেলই। ক্ষীপ্র গতি, অবিশ্বাস্য ড্রিবলিং, পাসিং— সব দিক থেকেই সেল্টা ভিগোর বিপক্ষে ম্যাচটাতে ২৯ বছর বয়সী বেল ছিলেন নিখুঁত।

মৌসুমের প্রথম লিগ ম্যাচেই এমন উড়ন্ত পারফরম্যান্স যার, তাকে কি বিক্রি করা যায়! জিদান তাই বেলকে বিক্রির পরিকল্পনা থেকে ১৮০ ডিগ্রি ঘুরে গেছেন। বিক্রির পরিকল্পনা বাদ দিয়ে মনস্থির করেছেন বেলকে রেখে দেওয়ার।

ম্যাচ শেষে নিজের সেই নতুন মনো বাসনার কথা গণমাধ্যমের সামনে জানিয়েছেনও জিদান, ‘বেল রিয়ালেই থাকছে। সত্যিই সে ছিল দুর্দান্ত। বেলের পারফরম্যান্সে আমি খুশি। আসলে আমি আমাদের প্রতিটা খেলোয়াড়ের পারফরম্যান্সেই খুশি। আমাদের প্রতিটি খেলোয়াড়ই গুরুত্বপূর্ণ।’

কোচ জিদানের এই ঘোষণায় বেল যে খুব খুব খুশি সেটি না বললেও চলে। ক্রেতা খুঁজে না পাওয়ায় তার ক্যারিয়ারের ভবিষ্যতই ঢেকে গিয়েছিল শঙ্কার কালো মেঘে। এক ঝটকায় সেই কালো মেঘ ধুয়েমুছে যাওয়ায় বেল তো খুশি হবেনই।

কেআর

 

ফুটবল: আরও পড়ুন

আরও