পগবা ব্যর্থতা নেইমারকে দিয়ে পোষাতে চায় রিয়াল

ঢাকা, রবিবার, ৮ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

পগবা ব্যর্থতা নেইমারকে দিয়ে পোষাতে চায় রিয়াল

পরিবর্তন ডেস্ক ১:৫২ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১০, ২০১৯

পগবা ব্যর্থতা নেইমারকে দিয়ে পোষাতে চায় রিয়াল

অনেক দেন-দরবার করেও পল পগবাকে দলে ভেড়াতে পারেনি রিয়াল মাদ্রিদ। ইংল্যান্ডের দলবদলের দরজা বন্ধ হয়ে গেছে। যার অর্থ, অন্তত এই মৌসুমে আর পগবাকে কেনা হচ্ছে না রিয়ালের।

ফরাসি এই মিডফিল্ডারকে না পাওয়ার ব্যর্থতা রিয়াল ঘুচাতে চাইছে নেইমারকে দিয়ে। স্পেনের গণমাধ্যমের খবর, পগবা হাত ফসকে যাওয়ায় রিয়ালের পুরো মনোযোগ এখন নেইমারের দিকে। যেকোনো মূল্যে নেইমারকে দলে ভেড়াতে মরিয়া রিয়াল।

গ্রীষ্মের দলবদল শুরুর আগে থেকেই গুঞ্জন ছিল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে পল পগবাকে ছিনিয়ে নিতে যাচ্ছে রিয়াল। রিয়ালের ফরাসি কোচ জিনেদিন জিদান স্বদেশি পগবাকেই এক নম্বর টার্গেট বানিয়েছিলেন। কোচের আবদার মেটাতে রিয়াল কর্তারাও ২৭ বছর বয়সী কেনার জন্য সব রকম চেষ্টা করেছে। এমনকি ইংল্যান্ডের দলবদলের শেষ দিন পর্যন্তও ম্যানইউকে হ্যাঁ বলানোর চেষ্টা করেছে। কিন্তু রিয়ালের কোনো প্রস্তাবই ম্যানইউ গ্রহণ করেনি।

পগবা হাত ফসকে যাওয়ায় বাধ্য হয়েই রিয়ালকে এখন অন্যদিকে মুখ ফেরাতে হচ্ছে। আর দলের চাহিদা পূরণে নেইমারই এখন তাদের সামনে একমাত্র বিকল্প। একের পর এক তারকা খেলোয়াড় কিনে দলে তারার মেলা বসিয়েছে বার্সেলোনা। চিরশত্রুদের সঙ্গে পাল্লা দিতে রিয়ালের নেইমারের মতো কাউ দলে চাই-ই চাই।

কিন্তু রিয়ালের এই চাওয়াও পূরণ হবে কি না তা নিয়ে যথেষ্টই সংশয় আছে। কারণ নেইমারের দিকে হাত বাড়িয়েছে বার্সেলোনাও। কিন্তু রিয়ালের জন্য স্বস্তির খবর এই, নেইমারের ক্লাব পিএসজির সঙ্গে বার্সেলোনার সম্পর্কটা ভালো নয়। পিএসজি কিছুতেই ব্রাজিলিয়ান তারকাকে বার্সার কাছে বিক্রি করতে চায় না।

অন্য দিকে রিয়াল সভাপতি ফ্লোরেন্তিনো পেরেজের সঙ্গে পিএসজির সভাপতি নাসের আল খেলাইফির সম্পর্কটা বন্ধুর মতো। শুধু এই ব্যক্তিগত সম্পর্ক নয়, রিয়াল এবং পিএসজির ক্লাব পর্যায়ের সম্পর্কটাও ভালো। সেই সম্পর্কের সূত্রেই নেইমারের সঙ্গে চুক্তির ব্যাপারে এরই মধ্যে পিএসজি কর্তাদের সঙ্গে আলোচনাও শুরু করে দিয়েছে রিয়াল।

এমনকি পাঠিয়েছে প্রস্তাবও। এক নেইমারকে পেতে রিয়াল নগদ ১২০ মিলিযন ইউরো ও ক্রোয়েশিয়ান মিডফিল্ডার লুকা মড্রিচকে দেওয়ার প্রস্তাব করেছে। কিন্তু গণমাধ্যমের খবর, রিয়ালের এই প্রস্তাব পিএসজি কর্তাদের মনঃপুত হয়নি। দুই বছর আগে যাকে রেকর্ড ২২২ মিলিয়ন ইউরো দিয়ে কিনেছে, তাকে সস্তায় বিক্রি করতে রাজি নয় পিএসজি।

পিএসজি এখনো পর্যন্ত রাজি হয়নি বটে। তবে নেইমারের সঙ্গে চুক্তির ব্যাপারে দেন-দরবার চালিয়ে যাওয়ার জন্য আরও বেশ কিছুদিন সময় পাচ্ছে রিয়াল।

কারণ, স্পেন ও ফ্রান্সের দলবদলের দরজা বন্ধ হবে আগামী ১ সেপ্টেম্বর। মানে রিয়াল ৩১ আগস্ট পর্যন্ত সময় পাচ্ছে পিএসজিকে হ্যাঁ বলানোর।

স্পেনের গণমাধ্যমের দাবি, অন্য সব ভুলে বাকি সময়টুকুতে নেইমারকে কেনার চেষ্টাই করবে রিয়াল। সমস্যা হলো, নেইমারের প্রতি রিয়ালের এই বিশেষ আগ্রহের কথা বার্সেলোনাও জানে। ফলে তারাও যেকোনো মুল্যে ব্রাজিলিয়ান এই তারকাকে কিনতে তৈরি।

বার্সেলোনা কোচ আর্নেস্তো ভালভার্দে যেমন বলছেন, ‘নেইমার এমন একজন খেলোয়াড়, যাকে সব দলই নিতে চাইবে। কাজেই তার প্রতি রিয়ালের আগ্রহটা বিস্ময়কর কিছু নয়। তবে ন্যু-ক্যাম্পও তাকে পাওয়ার আশা ছেড়ে দেয়নি। দেখা যাক সামনে কি ঘটে।’

কোচ ভালভার্দের কথাতেই স্পষ্ট, সামনের দিনগুলোতেও নেইমারকে ফেরানোর জন্য চেষ্টা করবে বার্সেলোনা। পিএসজি রাজি না হলেও বার্সা চেষ্টা করবে টাকা দিয়ে রাজি করাতে। বোঝাই যাচ্ছে, নেইমারকে নিয়ে রিয়াল-বার্নার যুদ্ধটা এখন জমজমাট। দেখা যাক, শেষ পর্যন্ত এই যুদ্ধে জয়ী হয় কে, রিয়াল নাকি বার্সা? নাকি, স্পেনের দুই জায়ান্টকেই হতাশ করে নেইমারকে রেখে দেয় পিএসজিই?

কেআর

 

ফুটবল: আরও পড়ুন

আরও