ইনিই এখন সর্বকালের সবচেয়ে দামী ডিফেন্ডার

ঢাকা, ১৪ আগস্ট, ২০১৯ | 2 0 1

ইনিই এখন সর্বকালের সবচেয়ে দামী ডিফেন্ডার

পরিবর্তন ডেস্ক ১২:০০ অপরাহ্ণ, আগস্ট ০৬, ২০১৯

ইনিই এখন সর্বকালের সবচেয়ে দামী ডিফেন্ডার

এতদিন সর্বকালের সবচেয়ে দামী ডিফেন্ডারের তকমাটা ছিল লিভারপুলের ডাচ ডিফেন্ডার ভিরগিল অন ডিকের দখলে। ২০১৮ সালের জানুয়ারিতে তাকে সাউদাম্পটন থেকে ৮৫ মিলিয়ন ইউরো দিয়ে কিনে নিয়েছিল লিভারপুল। সেই ফন ডিককে সরিয়ে সর্বকালের সবচেয়ে দামী ডিফেন্ডারের মুকুটটি এবার নিজের মাথায় তুলে নিলেন হ্যারি মাগুইরে।

আসলে এই ইংলিশকে সর্বকালের সবচেয়ে দামী ডিফেন্ডার বানাল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। হুট করেই অপ্রত্যাশিত দামে লেস্টার সিটি থেকে এই ইংলিশ ডিফেন্ডারকে কিনে ফেলল ম্যানইউ। সোমবারই আনুষ্ঠানিকভাবে চুক্তিটা সেরে ফেলেছে ম্যানইউ। চুক্তির পর ক্লাবের অফিসিয়াল ওয়েবপেজে মাগুইরেকে কেনার ঘোষণাও দিয়েছে ইংলিশ ক্লাবটি।

চুক্তিটা হয়েছে ৬ বছরের জন্য। তবে শর্ত সাক্ষেপে চুক্তির মেয়াদ আরও এক বছর বাড়ানোর অপশন রাখা হয়েছে। মানে ম্যানইউ চাইলে চুক্তির মেয়াদ আরও এক বছর বাড়াতে পারবে। চুক্তিপত্রে টাকার অঙ্কটা প্রকাশ করা হয়নি।

কেন? ধারণা করা হচ্ছে, আসলে উচ্চ মূল্যের কারণেই চুক্তিতে টাকার অঙ্কটা গোপন রাখা হয়েছে। তবে গোপন রাখতে চাইলেও ম্যানইউ টাকার অঙ্কটা গোপন রাখতে পারেনি। ম্যানইউ’রই এক ঘনিষ্ঠ সূত্র গণমাধ্যমকে জানিয়ে দিয়েছেন, চুক্তিটা হয়েছে ৮৮ মিলিয়ন ইউরোর। বাংলাদেশি মুদ্রায় অঙ্কটা ৮২৭ কোটি ৮০ লাখ ৬৫ হাজার ৬৮৮ টাকা। অঙ্কটা ফাঁস করে দেওয়া সেই ব্যক্তিটি চুক্তি প্রক্রিয়ার সঙ্গেও জড়িত ছিলেন। সুতরাং অঙ্কটাকে গুজব বলে উড়িয়ে দেওয়ার উপায় নেই!

কেউ উড়িয়ে দিচ্ছেও না। বরং ফন ডিকের মাথা থেকে সবচেয়ে দামী ডিফেন্ডারের মুকুটটা খুলে হ্যারি মাগুইরের মাথায় পরিয়েও দিচ্ছেন সবাই। এমনকি ভিরগিল ফন ডিক নিজেও ২৬ বছর বয়সী মাগুইরেকে সর্বকালের সবচেয়ে দামী ডিফেন্ডার মেনে নিয়েছেন।

এটা মেনে নিয়ে তিনি ইংল্যান্ড জাতীয় দলের ডিফেন্ডার মাগুইরেকে সর্তকও করেছেন। তবে সবার আগে সবচেয়ে দামী ডিফেন্ডার হিসেবে মাগুইরেকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ফন ডিক, ‘তাকে শুভ কামনা জানাই।’ এরপর সতর্ক করে বলেছেন, ‘সর্বকালের সবচেয়ে দামী ডিফেন্ডারের তকমাটা মাগুইরেকে বাড়তি চাপে রাখবে। তাকে এই চাপটার সঙ্গে মানিয়ে নিতে হবে। আমি জানি, ব্যক্তিগতভাবে এই চাপ সামলানোটা কতটা কঠিন। তবে আমার বিশ্বাস, চাপটা সামলে নেওয়ার ক্ষমতা মাগুইরের আছে। তার প্রতি আরও একবার শুভ কামনা রইল।’

ইংল্যান্ড জাতীয় দলের হয়ে এ পর্যন্ত ২০টি ম্যাচ খেলেছেন মাগুইরে। করেছেন একটা গোলও। মাগুইরে সেই গোলটা আবার করেন ২০১৮ বিশ্বকাপে সুইডেনের বিপক্ষে কোয়ার্টার ফাইনালে। ২-০ গোলের জয়ে প্রথম গোলটি করেন তিনি।

লেস্টার সিটির মতো মধ্যম মানের ক্লাবে খেলতেন বলেই হয়তো তার উপর লাইমলাইটটা সেভাবে কখনো পড়েনি। তবে প্রতিভা, সামর্থে, দক্ষতায় হ্যারি মাগুইরে নিশ্চিতভাবেই বিশ্বমানের ডিফেন্ডার। গত মৌসুমেই যেমন ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে বল দখলের ব্যক্তিগত যুদ্ধে দ্বিতীয় সেরা ছিলেন মাগুইরে। বল দখলের লড়াইয়ে ৭২.৬৯ শতাংশ বারই সফল হয়েছেন তিনি। সফলতায় তার চেয়ে এগিয়ে ছিলেন কেবল ভিরগিল ফন ডিক, ৭৬.৩২ শতাংশ।

বিশ্বমানের ডিফেন্ডার হওয়ার সবচেয়ে বড় শর্ত দৈহিক উচ্চতা। এই গুণে মাগুইরে যেন একটু বেশিই এগিয়ে। তার উচ্চতা ৬ ফুট ৪ ইঞ্চি। দৈহিক উচ্চতার কারণে অনায়াসেই বাতাসে ভেসে আসা বল হেড করে দলকে বিপদ মুক্ত করতে পারেন।

সর্বকালের সবচেয়ে দামী ডিফেন্ডারের মুকুট মাথায় নিয়ে আসন্ন মৌসুমে নিশ্চয় এই দক্ষতাটা আরও বেশি করে প্রমাণ করতে চাইবেন মাগুইরে।

কেআর

 

ফুটবল: আরও পড়ুন

আরও