ব্রাজিল ম্যাচের রেফারিং নিয়ে অভিযোগ করল আর্জেন্টিনা

ঢাকা, ১৮ জুলাই, ২০১৯ | 2 0 1

ব্রাজিল ম্যাচের রেফারিং নিয়ে অভিযোগ করল আর্জেন্টিনা

পরিবর্তন ডেস্ক ৪:০০ অপরাহ্ণ, জুলাই ০৬, ২০১৯

ব্রাজিল ম্যাচের রেফারিং নিয়ে অভিযোগ করল আর্জেন্টিনা

অধিনায়ক লিওনেল মেসি ও কোচ লিওনেল স্কালোনি রেফারির বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন বুধবার ম্যাচ শেষেই। মেসি তো সরাসরিই অভিযোগ করেন, রেফারি তাদের দু-দুটো ন্যায্য পেনাল্টি থেকে বঞ্চিত করেছেন। ওই ম্যাচে ২-০ গোলে জিতে ফাইনাল নিশ্চিত করেছে ব্রাজিল

কিন্তু মৌখিক অভিযোগের তো কোনো মানে নেই। মানে যাতে হয়, সেই ব্যবস্থাই করল আর্জেন্টাইন ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন (এএফএ)। ব্রাজিল ম্যাচের রেফারিং নিয়ে এএফএ এবার লিখিতভাবেই অভিযোগ দায়ের করল দক্ষিণ আমেরিকার ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা কনমেবলের কাছে।

এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে লিখিত অভিযোগ দায়েরের কথা জানিয়েছে এএফএ। বিবৃতিতে এএফএ দাবি করেছে, অধিনায়ক মেসি ও কোচ স্কালোনির অভিযোগ সত্য। ব্রাজিলের বিপক্ষে সেমি ফাইনালে রেফারি ভিএআরের (ভিডিও অ্যাসিস্টান্ট রেফারি, রিভিউ) সহায়তায় পক্ষপাতমূলক সিদ্ধান্ত দিয়েছেন। মানে ভিএআর ব্যবহার করে রেফারি ব্রাজিলের পক্ষে বাঁশি বাজিয়েছেন। আর্জেন্টিনা দুটো নিশ্চিত পেনাল্টি থেকে বঞ্চিত। দাবি জানিয়েছে বিতর্কিত রেফারিংয়ের বিরুদ্ধে কার্যকর ব্যবস্থা নেওয়ার।

মেসি সেদিন মাঠেই রেফারির বিতর্কিত সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ করেন। ইকুয়েডরের রেফারি রড্ডি জামব্রানো এবং তার দুই সহকারির সঙ্গে মাঠেই বাক-বিতণ্ডা হয় মেসির। পরে ম্যাচ শেষে গণমাধ্যমের সামনে দীর্ঘ বক্তব্যে রেফারিকে ধুয়ে দেন মেসি। তিনি সরাসরিই অভিযোগ করেন, রেফারি তাদের দুটি ন্যায্য পেনাল্টি থেকে বঞ্চিত করেছেন।

এমনকি মেসি এমনও অভিযোগ করেন, প্রযুক্তির (ভিএআর) সঠিক ব্যবহার করার দক্ষতাই রেফারির নেই! শুধু দু-দুটো ন্যায্য পেনাল্টি বাতিল নয়, ভিডিও দেখতে মাত্রাতিরিক্ত সময় নিয়ে রেফারি মাঠের খেলারও বিঘ্ন ঘটিয়েছেন বলে অভিযোগ করেন মেসি। ইকুয়েডরিয়ান রেফারি কোপার সেমি ফাইনালের মতো গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ পরিচালনার যোগ্য নন বলেও অভিযোগ করেন মেসি।

পরে কোচ স্কালোনিও সুর মেলান অধিনায়কের সঙ্গে। মজার বিষয় হলো, ব্রাজিল কিংবদন্তি রিভালদোও মেসি এবং আর্জেন্টাইনদের অভিযোগের সঙ্গে একমত। তিনি প্রকাশ্যেই বলেছেন, ব্রাজিলের বিপক্ষে আসলেই আর্জেন্টিনার দুটি পেনাল্টি প্রাপ্য ছিল। কিন্তু ভিএআরের সহায়তায় ভিডিও দেখার নাম করে রেফারি তা এড়িয়ে গেছেন! পেনাল্টি না দিয়ে চালিয়ে গেছেন খেলা।

বিশ্বকাপ, কোপা আমেরিকা, ফিফা কনফেডারেশনস কাপ— ব্রাজিল জাতীয় দলের হয়ে সবকিছুই জেতা ৪৭ বছর বয়সী রিভালদোর এই অভিমত নিশ্চিতভাবেই আর্জেন্টাইনদের অভিযোগকে আরও জোরালো করেছে। কিন্তু কথা হলো, আনুষ্ঠানিকভাবে লিখিত অভিযোগ করেই লাভ কী? কনমেবল ফল বাতিল করে ম্যাচটি পুনরায় আয়োজনের সিদ্ধান্ত দেবে, এমন সম্ভাবনা নিশ্চয়ই নেই।

তাছাড়া মেসিদের তো আজ রাতেই চিলির বিপক্ষে তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচটি খেলতে নেমে পড়তে হচ্ছে। তৃতীয় স্থান খেলা ফেলা দলকে নিশ্চয়ই আবার সেমি ফাইনাল খেলতে দেওয়ার সুযোগ দিয়ে নতুন বিতর্কের সৃষ্টি করবে না কনমেবল!

ম্যাচ বা ফল বাতিল না হোক, মনের সান্ত্বনা তো মিলবে।

কেআর

 

ফুটবল: আরও পড়ুন

আরও