মেসিকে রুখো, সিলভাদের রিভালদো

ঢাকা, রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯ | ৪ কার্তিক ১৪২৬

মেসিকে রুখো, সিলভাদের রিভালদো

পরিবর্তন ডেস্ক ৩:০৪ অপরাহ্ণ, জুলাই ০২, ২০১৯

মেসিকে রুখো, সিলভাদের রিভালদো

আগামীকাল বুধবার ভোরে কোপা আমেরিকার প্রথম সেমিফাইনাল। ‍ফুটবলবোদ্ধাদের মতে, কাল বেলো হরিজেন্তোর সেমিফাইনালটিই আসলে এবারের কোপার আসল ফাইনাল! কালকের প্রথম সেমিফাইনালে যে মুখোমুখি প্রধান দুই শিরোপা প্রত্যাশি ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা। বোদ্ধাদের অভিমত, কাল যারা জিততে, চ্যাম্পিয়ন হবে তারাই। সেই অর্থে ফাইনালই তো!

ফাইনালে উঠার যুদ্ধে জিততে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা জয়ের জন্য মরিয়া চেষ্টা চেষ্টা করবে, সেটা অনুমিতই। প্রশ্ন হলো জিততে হলে কী করতে হবে? আর্জেন্টাইনরা কোন মন্ত্র ব্যবহার করবে, সেটি তারাই ভালো জানে। তবে ব্রাজিলিয়ানদের জন্য জয়মন্ত্রটা বাইরে থেকে বাতলে দিলেন রিভালদো।

বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ারে ক্লাব এবং জাতীয় দলের জার্সি গায়ে সম্ভাব্য সবকিছুই জিতেছেন রিভালদো। বাকি নেই কিছুই। ব্রাজিল জাতীয় দলের জার্সি গায়ে বিশ্বকাপ, কোপা আমেরিকা, ফিফা কনফেডারেশন কাপ-সবই জিতেছেন তিনি। ফলে বড় টুর্নামেন্টের শিরোপা কিভাবে জিততে হয়, সেটি তাই খুব ভালো করে জানা রিভালদোর।

সেই জানা থেকেই উত্তরসূরি সিলভাদের জয়মন্ত্রটা বাতলে দিলেন তিনি। খুবই ছোট্ট একটা মন্ত্র। রুখতে হবে মেসিকে। সেমির যুদ্ধে নামার আগে ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তি উত্তরসূরিদের তাড়না দিলেন, ‘জিততে চাও, মেসিকে আটকাও।’

এবারের কোপা আমেরিকায় বড় বেশি বিবর্ণ মেসি। এ পর্যন্ত খেলা ৪ ম্যাচের একটিতেও নিজের বিশ্বসেরা রূপ দেখাতে পারেননি বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন সুপারস্টার। ফল, চারদিকে বইছে মেসি সমালোচনার ঝড়। খোদ আর্জেন্টিনাতেই মেসির মুণ্ডুপাত হচ্ছে বেশি। এমন আলোচনাও হচ্ছে, মেসি আর্জেন্টিনার জার্সি গায়ে কিছু করতে পারবেন না!

কিন্তু রিভালদো জানেন মেসি কী জিনিস। নিজের দিনে কী করতে পারেন মেসি। রিভালদো এটাও জানেন, মেসির মতো খেলোয়াড়ের দুঃসময়কে পেছনে ফেলতে সময় লাগে না! স্রেফ একটা দৌড়েই মেসি পাল্টে ফেলতে পারেন ম্যাচের চিত্রনাট্য। শেষ করে দিতে পারেন ম্যাচ। তাই  উত্তরসূরিদের রিভালদোর সতর্কবার্তা, মেসির পক্ষে সব কিছুই করা সম্ভব। সুতরাং তাকে রুখো।

ব্রাজিলেরই এক টেলিভিশনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ৪৭ বছর বয়সী রিভালদো বলেছেন, ‘নিশ্চিতভাবেই আমাদের জন্য ফাইনালে উঠার পথটা সহজ হবে না। কারণ, একজন মেসি থাকলে সবকিছুই সম্ভব। বড় ম্যাচ হলেই হতাশার খোলস ছেড়ে মেসি স্বরূপে দেখা দেন। যখনই তাকে আর্জেন্টিনার সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন হয়েছে, সে সাড়া দিয়েছে। লিও জানে, এ রকম বড় চ্যালেঞ্জের ম্যাচে কিভাবে সারা দিতে হয়।’

কিন্তু আর্জেন্টিনা যে সর্বশেষ বড় তিনটি টুর্নামেন্টের ফাইনালে হেরেছে, তার একটিতেও তো জ্বলে উঠতে পারেননি মেসি? ২০১৪ বিশ্বকাপের ফাইনালের পর ২০১৫ এবং ২০১৬ সালের কোপা আমেরিকাতেও ফাইনালে হেরেছে আর্জেন্টিনা। মেসি একবারও দলের হার এড়াতে পারেননি। চরম এই সত্যটা মনে করিয়ে দেওয়ার পরও মেসির পক্ষেই ঢোল পেটালেন রিভালদো, ‘আর্জেন্টিনার জার্সি গায়ে ওই বড় ম্যাচগুলো সে ছিল দুর্ভাগা।’

নিজেদের ২০০২ বিশ্বকাপ জয়ের উদাহরণ টেনে রিভালদো বলেছেন, ‘২০১৪ বিশ্বকাপের ফাইনালে কিংবা চিলির বিপক্ষে কোপার ফাইনালে সে ভাগ্যের সহায়তা পায়নি। যেমনটা আমরা ২০০২ বিশ্বকাপে জার্মানির বিপক্ষে পেয়েছিলাম।’

কেআর/এএসটি

 

ফুটবল: আরও পড়ুন

আরও