যা হলে কোয়ার্টার ফাইনালে যেতে পারবে আর্জেন্টিনা

ঢাকা, ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | 2 0 1

যা হলে কোয়ার্টার ফাইনালে যেতে পারবে আর্জেন্টিনা

পরিবর্তন ডেস্ক ২:৩৬ অপরাহ্ণ, জুন ২১, ২০১৯

যা হলে কোয়ার্টার ফাইনালে যেতে পারবে আর্জেন্টিনা

কোপা আমেরিকার শিরোপা জয়ের দাবি নিয়েই ব্রাজিলে পা রেখেছে আর্জেন্টিনা। বিশ্বসেরা লিওনেল মেসি আছেন বলে, ফেভারিট তকমাও লাগানো তাদের গায়ে। কিন্তু সেই আর্জেন্টিনা এখন কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠা নিয়েই শঙ্কার জালেবন্দি।

নিজেদের এই কঠিন গহ্বরে নিয়ে গেছেন মেসিরাই। প্রথম ম্যাচে কলম্বিয়ার কাছে ২-০ গোলের লজ্জাজনক পরাজয়। প্যারাগুয়ের বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচে ভাগ্যক্রমে ১-১ গোলে ড্র। দুই ম্যাচে অর্জন মাত্র ১ পয়েন্ট। যা তাদের রেখেছে ৪ দলের বি গ্রুপের পয়েন্ট তালিকার ৪ নম্বরে!

এরপরও মেসিদের কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠার সম্ভাবনা আছে। তবে সেটা এখন শুধুই তাদের হাতে নেই। শেষ আটে উঠতে হলে নিজেদের ঘুরে দাঁড়ানোর পাশাপাশি তাকিয়ে থাকতে হবে অন্যের দিকেও।

টানা দুই জয়ে বি গ্রুপ থেকে এরই মধ্যে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করে ফেলেছে কলম্বিয়া। ৬ পয়েন্ট নিয়ে তারা নিশ্চিত করেছে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়াও। এখন লড়াইটা গ্রুপ রানার্সআপ ও তৃতীয় হওয়ার। যে লড়াইয়ে আছে গ্রুপের বাকি তিন দলই। মানে প্যারাগুয়ে, কাতার ও আর্জেন্টিনা, তিন দলের সামনেই সুযোগ আছে গ্রুপ রানার্সআপ হয়ে শেষ আটে যাওয়ার।

হ্যাঁ, সুযোগ আছে। তবে সেজন্য আর্জেন্টিনাকে কাতারের বিপক্ষে শুধু জিতলেই হবে না, সঙ্গে প্রার্থনা করতে হবে কলম্বিয়ার বিপক্ষে প্যারাগুয়ে যেন না জিতে। প্যারাগুয়ের পয়েন্ট এখন ২। শেষ ম্যাচে তারা জিতলে পয়েন্ট হবে ৫। সেক্ষেত্রে কাতারের বিপক্ষে জিতলেও আর্জেন্টিনাকে হতে হবে তৃতীয়। তখন তাকিয়ে থাকতে হবে অন্য দুই গ্রুপের দিকে!

এবারের কোপা আমেরিকায় মোট ১২টি দল অংশ নিয়েছে। তিন গ্রুপে ভাগ হয়ে খেলছে। প্রতিটি গ্রুপ থেকে চ্যাম্পিয়ন ও রানার্সআপ দল সরাসরি পাবে কোয়ার্টার ফাইনালের টিকিট। বাকি দুটি টিকিট পাবে তিন গ্রুপের তৃতীয় হওয়া তিন দলের মধ্যে সেরা দুটি দল। মানে তৃতীয় হওয়া তিন দলের মধ্যে যে দুটি দল পয়েন্ট ও গোল ব্যবধানে এগিয়ে থাকবে, শেষ আঠে যাবে তারাই।

ফলে তৃতীয় হলেও আর্জেন্টিনাকে তাকিয়ে থাকতে হবে অন্য গ্রুপের শেষ ম্যাচের দিকে। মেসির জন্য তাই সবচেয়ে সহজ সমীকরণ, কাতাদের বিপক্ষে তাদের জিততে হবে এবং কলম্বিয়ার সঙ্গে প্যারাগুয়ের ড্র বা হারতে হবে।

গ্রুপ রানার্সআপ হয়ে সরাসরি শেষ আঠে উঠার জন্য আর্জেন্টিনার রাস্তা এই একটাই বাকি। বাকি সব সমীকরণই আরও জটিল। আর্জেন্টিনা যদি কাতারের সঙ্গে হেরে যায়. তাহলে কোনো কথাই থাকবে না। তলিপতল্পা গুছিয়ে ধরতে হবে বাড়ির পথ। যদি ড্র করে?

সেক্ষেত্রে কলম্বিয়ার কাছে প্যারাগুয়ের অন্তত ২-০ গোলে হারতে হবে। তারপর তাকিয়ে থাকবে হবে অন্য দুই গ্রুপের তৃতীয় হওয়া দুই দলের দিকে। মেলাতে হবে সেই দুই দলের সঙ্গে পয়েন্ট ও গোল ব্যবধানের হিসাব-নিকাশ। তাতে সেরা দুইয়ে থাকতে পারলে ভাগ্য খুলবে।

আর্জেন্টিনা যদি ড্র করে এবং প্যারাগুয়েও যদি ড্র করে, সেক্ষেত্রেও মেসিদের ধরতে হবে বাড়ির পথ। সেক্ষেত্রে বি গ্রুপে তৃতীয় হয়ে যাবে কাতার। তখন অন্য দুই গ্রুপের দুই তৃতীয় দলের সঙ্গে হিসাব-নিকাশটা মেলাতে ব্যস্ত থাকবে কাতার।

বোঝাই যাচ্ছে মেসিদের ভাগ্য এখন আর শুধু মেসিদের হাতে নেই। বরং তাদের শেষ আটে যাওয়ার বিষয়টি পরের উপরই বেশি নির্ভরশীল।

বর্তমানে এ গ্রুপে তিন নম্বরে আছে ভেনেজুয়েলা। দুই ম্যাচে তাদের অর্জন ২ পয়েন্ট। সি গ্রুপে তিন নম্বরে থাকা জাপানের পয়েন্ট ১। বর্তমানের হিসেবে এই তিন তৃতীয় দলের মধ্যে আর্জেন্টিনার অবস্থান দুইয়ে। ভেনেজুয়েলা তো পয়েন্টেই এগিয়ে। তাদের গোল ব্যবধানও ভালো। জাপানের পয়েন্ট সমান এক হলেও জাপানিরা মেসিদের চেয়ে গোল ব্যবধানে পিছিয়ে।

এতসব সমীকরণ, হিসাব-নিকাশ মিলিয়ে মেসিরা পারবেন কোয়ার্টার ফাইনালে যেতে?

কেআর

 

ফুটবল: আরও পড়ুন

আরও